Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > এসাসিন ক্রীড ও দ্য সিমস ২ ফ্রি টাইম
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: সৈয়দ হাসান মাহমুদ
মোট লেখা:১৪৪
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৮ - এপ্রিল
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
কমপিউটার গেম
তথ্যসূত্র:
গেমের জগৎ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
এসাসিন ক্রীড ও দ্য সিমস ২ ফ্রি টাইম

এসাসিনস ক্রীড



যারা Prince of Persia, Farcry, Splinter Cell, Ghost Recon ইত্যাদি খেলেছেন, তারা তো জানেনই Ubisoft -এর তৈরি অ্যাকশন গেম মানেই মনমাতানো গেমপ্লে, চোখ ধাঁধানো গ্রাফিক্স কোয়ালিটি, দারুণ শব্দশৈলী আর নিত্যনতুন সব দুর্দান্ত যুদ্ধ কৌশলের সমাহার৷ এ বছর তাদের মুক্তি দেয়া বহুল প্রতীক্ষিত অসাধারণ গেমটি হচ্ছে এসাসিনস ক্রীড৷ এটি মূলত ঐতিহাসিক কাহিনীর ওপর ভিত্তি করে নির্মিত থার্ড পারশন অ্যাকশন গেম৷ এতে তুলে ধরা হয়েছে তৃতীয় ক্রুসেডের এক আততায়ীর দুঃসাহসিক অভিযান৷



গেমের পটভূমি হচ্ছে ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর, যেখানে বারটেন্ডার ডেসমন্ড মাইলসকে অপহরণ করে নিয়ে আসা হয় এবস্টেরগো নামের এক বৈজ্ঞানিক গবেষণাকেন্দ্রে৷ কারণ গবেষকদের এনিমাস প্রজেক্টে তাকে ব্যবহার করা হবে৷ এই এনিমাস যন্ত্রটির সাহায্যে কারো DNA থেকে জেনেটিক মেমরি সংগ্রহ করে তার পূর্ববর্তী বংশধরের সময়ে স্বপ্নের মাধ্যমে তাকে বিচরণ করতে দেয়া সম্ভব৷ ডেসমন্ডকে ধরে আনার কারণ সে তৃতীয় ক্রুসেডের সময়কার আততায়ী গোষ্ঠীর সদস্য অলটেয়ার ইবনে লা-আহাদ-এর শেষ বংশধর৷ ওই যুগে আততায়ীরা কিভাবে হত্যা করতো, তাদের জীবনযাত্রার কৌশল এবং তাদের সম্পর্কে আরো বিশদভাবে জানাই গবেষকদের মূল উদ্দেশ্য ছিলো৷

গেমটিতে আপনাকে ডেসমন্ড ও অলটেয়ার দুজনইে নিয়ে খেলতে হবে৷ এতে আপনার মূল লক্ষ্য হবে ১১৯১ সালের ক্রুসেডের ৯ জন ঐতিহাসিক ব্যক্তিকে হত্যা করা (ইতিহাস অনুযায়ী তারা সবাই যুদ্ধে নিহত বা নিখোঁজ হয়েছিলেন) এবং নিজেকে সেরা আততায়ী হিসেবে গড়ে তোলা৷ গেমটিতে আপনাকে বিচরণ করতে হবে চারটি শহর-জেরুসালেম, আক্রা, দামাস্কাস ও মাসইয়াফ৷ গেমটিতে শহরের পরিবেশের বাস্তবতা এতটাই মনোমুগ্ধকর করা হয়েছে যে খেলার সময় আপনি সেই প্রাচীন শহরের মাঝে হারিয়ে যাবেন৷ বাস্তবতার দিক থেকে এইরকম গেম খুঁ জে পাওয়া মুশকিল কারণ এতে ঐতিহাসিক পরিবেশ নিখুঁতভাবে তুলে ধরা হয়েছে এবং শহরের মানুষের কথাবার্তা, চলাফেরা, তাদের ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া অসম্ভব সুন্দর ও বাস্তব করে তোলা হয়েছে৷ কিছু চমত্কার বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে অলটেয়ারের রাস্তায় চলার সময় মানুষদের সরিয়ে জায়গা করে নিয়ে হাঁটা, রাস্তার পথচারী কাউকে মারলে তার প্রতিক্রিয়া, কোনো ব্যতিক্রমধর্মী কাজ করতে গেলে মানুষের ভিড় জমে যাওয়া তা দেখার জন্য, কোনো অপ্রীতিকর কাজ করলে জনসাধারণের বাধা প্রদান ইত্যাদি৷



গুপ্তহত্যা করার প্ল্যান, পালানোর কৌশল, আত্মরক্ষার কৌশল, ছাদের ওপরে ও অন্যান্য সরু স্থানে দৌড়ানোর বা হাঁটার সময় ভারসাম্য রক্ষা করা, দূর থেকে শত্রুকে ঘায়েল করা, পকেট মারা, আড়ি পেতে কথা শোনা, নিষ্ঠুরতার সাথে খুন করা ইত্যাদি গেমে এনে দিয়েছে আরেক ধাপ নতুনত্ব৷ স্বাধীনভাবে নিজের ইচ্ছেমতো মিশন শেষ করার সুবিধা রয়েছে৷ পুরো শহরে বিচরণ করা যাবে হেঁটে বা ঘোড়ায় চড়ে৷ উঁচু এলাকা থেকে পুরো শহর পর্যবেক্ষণ করা যাবে পালানোর পথ ঠিক করা ও হত্যা করার প্ল্যান তৈরি করার জন্য৷ অলটেয়ারের বিশেষ ক্ষমতার মধ্যে রয়েছে ঈগল ভিশন, যা আলাদা রঙের মাধ্যমে শত্রু-মিত্র, সাধারণ মানুষ দেখার কাজে সহায়তা করবে৷ মূল গেমের পাশাপাশি এতে রয়েছে আরো কিছু বাড়তি মিশন, এগুলোর মধ্যে নির্দিষ্ট লোককে খুন করা, পতাকা সংগ্রহ করা, শিকারকে খুঁ জে বের করা ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য৷

সাদা কাপড় পরিহিত, মাথায় হুড দেয়া অলটেয়ার ধার্মিক ব্যক্তির বেশে শহরে ঘুরবে সৈন্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে৷ এরই রহস্যময় চরিত্র নিয়ে খেলতে আপনি অনুভব করবেন দারুণ এক অনুভূতি৷ খেলতে খেলতে আপনি অর্জন করবেন নতুন সব অস্ত্র এবং আক্রমণ ও আত্মরক্ষার কৌশল৷ গেমটিতে অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে সাধারণ মারামারির জন্য তলোয়ার, ছোট ব্লেড, ছুড়ে মারার জন্য ছুরি এবং অলটেয়ারের বাঁ হাতে লুকানো রয়েছে ধারালো ব্লেড যা কাছের শত্রুকে বধ করতে কাজে দেবে৷

গেমটি অনেকের কাছে প্রিন্স অব পারসিয়ার মতো মনে হতে পারে৷ কিন্তু এটি তার চেয়েও আরো বেশি নিখুঁত ও বাস্তবসম্মত, মারামারির কৌশল আর উন্নতমানের অন্যান্য বিষয় এতো বেশি আকর্ষণীয়, আশা করা যায় তা গেমটিকে এনে দেবে এই বছরের সেরা গেমের মুকুট, যদি না একে টেক্কা দেয়ার মতো কোনো গেম এ বছর বাজারে আসে৷ গেমের সাউন্ড সিস্টেম ও গ্রাফিক্সের কথা বললে এক কথায় বলতে হয় অবিশ্বাস্য৷ তাই গেমটিকে এখন পর্যন্ত বছরের সেরা গেম বলাটা ঠিক হয়েছে কিনা, তা যাচাই করার জন্য রহস্যময়, রোমাঞ্চময় এই ঐতিহাসিক গেমটির মাঝে ডুবে গিয়ে দেখুন৷

যা যা প্রয়োজন

প্রসেসর : ইন্টেল ডুয়েল কোর ২.৬ গি. হা./এএমডি এথলন ৬৪ এক্স২ ৩৮০০+ র‌্যাম : ১ গিগাবাইট (ভিসতার জন্য ২ গিগাবাইট) গ্রাফিক্স কার্ড : ২৫৬ মেগাবাইট (এনভিডিয়াজিফোর্স৬৮০০/এটিআইরেডন এক্স ১৬০০) হার্ডডিস্ক : ৮ গিগাবাইট


ফিডব্যাক : shmt_21@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
২০০৮ - এপ্রিল সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস