Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়ছেই
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: নেবুলা ইসলাম
মোট লেখা:৪
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৮ - মার্চ
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
প্রযুক্তি
তথ্যসূত্র:
রির্পোট
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়ছেই

সারা বিশ্বেই আইটি বিশেষজ্ঞদের আয় বেড়ে গেছে৷ মূলত চলমান কর্মী সঙ্কটের কারণে বড় প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের জনবল ঘাটতি মেটাতে অধিক বেতন-ভাতা দিয়ে সংগ্রহ করছে তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী৷ একই সাথে সারা বিশ্বেই ক্রমাগত সম্প্রসারিত হচ্ছে আইটি বাজার৷ এই বিশাল বাজারের সুষ্ঠু নিয়ন্ত্রণ, ব্যবস্থাপনা এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য দক্ষ কর্মীর প্রয়োজন অধিকমাত্রায় দেখা দিয়েছে৷ এই তথ্য দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠান এন্টারপ্রাইজ সিস্টেমস৷ এরা সম্প্রতি আইটি কর্মীদের বেতন-ভাতার জরিপ করে এই মন্তব্য করেছে৷

এন্টারপ্রাইজ সিস্টেমস কর্তৃপক্ষ বলেছেন, এরা ১ হাজার ৩২টি আইটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বেতন-ভাতার ওপর সম্প্রতি জরিপ চালিয়েছেন৷

জরিপে দেখা গেছে, প্রায় সব পদেই সাম্প্রতিক সময়ে বেতন-ভাতা বেড়েছে৷ সার্বিক বিবেচনায় এই বেড়ে যাওয়ার হার ৪.৮ শতাংশ৷ সবচেয়ে বেশি সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে স্টোরেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর, এবং সিস্টেম প্রোগ্রামার৷ শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং অ্যাপ্লিকেশন পরিবেশের ওপর বেতন-ভাতা ওঠা-নামা লক্ষ করা গেছে৷ গড় বেতন-ভাতা বেশি হওয়ায় সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমস (এসসিএম) এখন আইটি পেশাজীবীদের কাছে লোভনীয় পোশা হিসেবে গণ্য হচ্ছে৷

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের কর্মীদের বেতন-ভাতা কেনো ক্রমাগত বেড়ে চলেছে জরিপে তার দুটি কারণ উঠে এসেছে৷ একটি হচ্ছে, সব প্রতিষ্ঠানই এখন চাইছে নিজেদের নিরাপত্তা ও প্রকল্প ব্যবস্থাপনা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করতে৷ আর এ কারণেই কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়াতে হচ্ছে৷ অন্য মতটি হলো, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে জ্ঞান ও দক্ষতাসম্পন্ন কর্মীর অপ্রতুলতা৷ চৌকস কর্মী সংগ্রহ করতে গিয়েই প্রতিযোগিতার মধ্যে পড়তে হচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলোকে৷

একটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, যেহেতু তাদের ব্যবসায় ক্রমাগত বাড়ছে এবং ভালো ব্যবসায় হচ্ছে তাই এরা তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়িয়ে দিচ্ছেন৷

জরিপে বলা হয়, সব প্রতিষ্ঠানই যে বেতন-ভাতা বাড়িয়েছে, তা নয়৷ অনেক প্রতিষ্ঠানই ব্যবসায়িক কারণে অন্যদের সাথে প্রতিযোগিতামূলক হারে কর্মীদের বেতন-ভাতা বাড়াতে পারছে না৷ তাই এরা কর্মীসংখ্যা বাড়িয়ে ব্যবসায় সম্প্রসারণ ঘটাতে ব্যর্থ হচ্ছে৷

অ্যাপ্লিকেশন সিস্টেম এনালিস্ট :

সিস্টেম এনালিস্টস পদে যদিও ক্রমাগত বেতন-ভাতা বাড়ছে, তবে এর পরিমাণ অস্বাভাবিক নয়৷ গত বছরের তুলনায় বর্তমানে এই প্রবৃদ্ধির হার মাত্র ২ শতাংশ বেশি৷ করপোরেট ম্যানেজমেন্টে সিস্টেমস এনালিস্টদের এখন গড় বেতন বছরে ৭২ হাজার ১৫০ ডলার৷ ২০০৬ সালে ছিলো ৭০ হাজার ৫০০ ডলার৷ যে ৮টি ক্যাটাগরিতে জরিপ করা হয়েছে, তার মধ্যে বেতন বেড়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সিস্টেম এনালিস্ট রয়েছে চতুর্থ অবস্থানে৷ চলতি বছর এরা বোনাস পেয়েছে ৩ হাজার ২০০ ডলার৷ এটি গত বছরের চেয়ে ৮ শতাংশ কম৷ ই-বিজনেস অ্যাপ্লিকেশন প্রতিষ্ঠানে সিস্টেম এনালিস্টদের বেতন বি২সি ক্যাটাগরিতে ৭৯ হাজার ডলার এবং বি২বি ক্যাটাগরিতে ৭৮ হাজার ডলার৷ মেইন ফ্রেম শপে সিস্টেম এনালিস্টরা পাচ্ছে ৭৭ হাজার ১০০ ডলার৷ তবে উইন্ডোজ শপের এনালিস্টদের বেতন ৭০ হাজার ডলার৷ হাইটেক সফটওয়্যার খাত এবং উত্পাদনশীল খাতে এদের বেতন যথাক্রমে ৭৭ হাজার ও ৭৬ হাজার ডলার৷

প্রোগ্রামার/এনালিস্ট :

গত জরিপের তুলনায় এবারের জরিপে এদের বেতন বেড়েছে ৫ শতাংশেরও বেশি৷ ৬৭ হাজার ৪শ ডলার থেকে এখন ৭১ হাজার ২০ ডলার দাঁড়িয়েছে বেতন৷ অ্যাপ্লিকেশন ক্যাটাগরিতে এই পদে বার্ষিক বেতন ৭৭ হাজার ডলার, বিজনেস টু বিজনেস শপে ৭৬ হাজর ডলার, সিওবিওএ শপে ৭৭ হাজার এবং সিআইসিএস শপে ৭৬ হাজার ডলার৷ প্রতিষ্ঠানভেদে এই পদে বেতন কাঠামোয় কিছুটা পার্থক্য রয়েছে৷

অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামার :

এরা সাধারণত লেখে এবং কোড পরীক্ষা করে৷ এদের বার্ষিক গড় বেতন ৬৩ হাজার ডলার৷ গত বছরের চেয়ে এই হার প্রায় ৩ শতাংশ বেশি৷ ২০০১ সালে এই পদে বেতন ছিলো ৪৯ হাজার ডলার৷ এদের বোনাস গড়ে ২ হাজার ৯০০ ডলার৷ মাঝারি ধরনের কমপিউটিং শপের এই পদে বেতন বছরে ৬৮ হাজার ডলার, জাভা শপ প্রোগ্রামাররা পাচ্ছেন ৬৯ হাজার ডলার, সি/সি++ ডেভেলপমেন্ট সাইটে ৬৮ হাজার ডলার, সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট পদে ৬৯ হাজার ডলার এবং স্বাস্থ্য খাতে ৬৭ হাজার ডলার৷
সিস্টেমস প্রোগ্রামার :

বর্তমান যুগ নেটওয়ার্কের যুগ৷ ফলে দক্ষতার সাথে নেটওয়ার্কিংয়ের কাজটি করার জন্য প্রয়োজন সিস্টেমস প্রোগ্রামারের৷ এই পদে গড় বার্ষিক বেতন ৭৯ হাজার ডলার৷ এদের বোনাসের পরিমাণও বেশি৷ চলতি বছর এই বোনাসের পরিমাণ ছিলো ৪ হাজার ডলার৷ এখন এন্ট্রি লেভেল সিস্টেম প্রোগ্রামাররা পাচ্ছেন ৭০ হাজার ডলার৷ সিওবিওএল প্রোগ্রামিং খাতে এই পদে বেতন গড়ে ৮৫ হাজার ডলার৷ হাইটেক সফটওয়্যার কোম্পানিতে এই পদে বেতন ৮৭ হাজার ডলার৷

নেটওয়ার্ক অ্যাডমিনিস্ট্রেটর :

এই পদে গড় বেতন ৬২ হাজার ডলারের কাছাকাছি৷ বছরের চেয়ে এ বছর বেতন বেড়েছে মাত্র ১ শতাংশ৷ যে ৮টি ক্যাটাগরিতে জরিপ হয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে কম বেতন পাচ্ছে নেটওয়ার্ক অ্যাডমিনিস্ট্রেটররা৷ এই পদে বার্ষিক বোনাসের হারও কম৷ বছরের আড়াই হাজার ডলার থেকে কমে এ বছর হয়েছে ২ হাজার ১০০ ডলার৷ ইউটিলিটি খাতে এই পদে বেতন বেশি, ৭৩ হাজার ডলার৷

সিস্টেমস অ্যাডমিনিস্ট্রেটর :

গত কয়েক বছরের তুলনায় এ পদে বেতন বেড়েছে৷ এই পদে গড় বেতন ৬৪ হাজার ৭০০ ডলার৷ গত বছরের তুলনায় এই হার ৫ শতাংশ বেশি৷ এই পদে বোনাসের অবস্থা আশাব্যঞ্জক নয়৷ বার্ষিক গড় বোনাসের পরিমাণ ২ হাজার ১৭০ ডলার৷ গত বছর ছিল ৩ হাজার ডলার৷ এখন এন্ট্রি লেভেল সিস্টেমস অ্যাডমিনিস্ট্রেটররা পাচ্ছেন ৫৫ হাজার ৫০০ ডলার৷ এর একধাপ উপরে ৬৮ হাজার ডলার৷ মেইনফ্রেম প্রতিষ্ঠানে বেতন ৭৪ হাজার ডলার৷

ডাটাবেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর :

এই পদে বার্ষিক গড় বেতন ৭৫ হাজার ডলার৷ আইটি পেশায় এটা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গড় বেতন৷ বোনাস ৩ হাজার ১০০ ডলার৷ এক বছর আগের তুলনায় এটি ১৮ শতাংশ কম৷ এন্ট্রি লেভেলে এই পদে বেতন ৬৬ হাজার ২০০ ডলার৷ সর্বোচ্চ বেতন ৮০ হাজার ডলার৷ প্রতিষ্ঠানভেদে এই পদে বেতন ৮২ হাজার থেকে ৯২ হাজার ডলার পর্যন্ত রয়েছে৷

স্টোরেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর :

গত বছরের তুলনায় এ বছর এই পদে বেতন বেড়েছে ১০ শতাংশ৷ এই পদে গড় বার্ষিক বেতন ৭১ হাজার ৬০০ ডলার৷ তবে বার্ষিক বোনাসের পরিমাণ ৩ হাজার ৬০০ ডলার থেকে কমে আড়াই হাজার ডলার হয়েছে৷ প্রতিষ্ঠানভেদে এই পদে বেতন ৭৮ হাজার ডলার পর্যন্ত রয়েছে৷

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অন্যান্য পদেও বেতন বেড়েছে৷ ফলে এখন যারা এই খাতসমূহে প্রবেশ করবে তারা অবশ্যই লাভবান হবে৷

বছরে বেতন

পদ বেতন (ডলার)

১. স্টোরেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ৭১৬০০-৭৮০০০
২. ডাটাবেজ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ৬৬২০০-৯২০০০
৩. সিস্টেম প্রোগ্রামার ৭০০০০-৮৭০০০
৪. অ্যাপ্লিকেশন সিস্টেম অ্যানালিস্ট ৭০০০০-৭৯০০০
৫. প্রোগ্রামার/এনালিস্ট ৭১০২০-৭৭০০০
৬. সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ৫৫৫০০-৭৪০০০
৭. নেটওয়ার্ক অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ৬৬০০০-৭৩০০০
৮. অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামার ৬৩০০০-৬৯০০০
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
২০০৮ - মার্চ সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস
অনুরূপ লেখা