Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সফটওয়্যারের কারুকাজ
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কজ
মোট লেখা:১০৪১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৮ - ফেব্রুয়ারী
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ট্রিকস ‍এন্ড টিপস
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সফটওয়্যারের কারুকাজ

জি-মেইলের কিছু টিপস

ইনবক্স রিফ্রেশ করা

আপনি একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছেন৷ এমন সময় জি-মেইল ইনবক্সে আসা নতুন ই-মেইল চেক করা দরকার৷ অথচ আপনি চাচ্ছেন না বর্তমান কাজটি বন্ধ করতে৷ জি-মেইল অ্যাকাউন্টে নতুন মেসেজ চেক করতে পারবেন শর্টকাট কী ব্যবহার করে৷ এজন্য শুধু খ চাপুন৷ ইনবক্স স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিফ্রেশ হবে নতুন মেসেজ প্রদর্শন করার জন্য৷ কী বোর্ড শর্টকাট কেবল তখনই কাজ করবে, যখন Keyboard shortcut থাকবে৷ এখন নিচে বর্ণিত ধাপগুলো সম্পন্ন করুন৷

০১. Settings লিঙ্কে ক্লিক করুন, যা জি-মেইল অ্যাকাউন্টের উপরে ডানপ্রান্তে আবির্ভূত হয়৷

০২. General ট্যাবে ক্লিক করুন৷

০৩. Keyboard shortcuts সেকশনে Keyboard shortcuts -এ রেডিও বাটন সিলেক্ট করুন৷

০৪. Save Changes বাটনে ক্লিক করুন৷
তাত্ক্ষণিকভাবে এটাচমেন্ট ভিউ করা

জি-মেইলে এটাচমেন্ট ডাউনলোড না করে ভিউ করা যায়, কারণ, জি-মেইল কিছু সাধারণ ফাইল ফরমেট সাপোর্ট করে৷ যেমন PDF, DOC, XLS, PPT, RTF, SXW, SXI, SDW, SDC, SDD এবং WML ৷

০১. এজন্য আপনাকে জি-মেইলে এইচটিএমএল ইন্টারফেস ব্যবহার করতে হবে, যার কারণে যেকোনো ফরমেটের ফাইল ভিউ করা যায়৷

০২. এটাচমেন্ট সম্বলিত ই-মেইল ওপেন করুন৷

০৩. মেসেজের View as HTML ফাইল লিঙ্কে ক্লিক করুন৷

০৪. মূল মেসেজ উইন্ডোতে ফিরে যেতে চাইলে নতুন ব্রাউজার উইন্ডোজ বা ট্যাব বন্ধ করুন৷

০৫. লক্ষণীয়, জি-মেইলে View as HTML ফিচার ইমেজ প্রদর্শন করে না৷
ইমেজ ইনসার্ট করা

জি-মেইলের মাধ্যমে ইমেজ পাঠাতে চাচ্ছেন, তবে তা এটাচমেন্ট হিসেবে নয়৷ আমরা জানি জি-মেইলে ইনসার্ট ইমেজ বাটন নেই৷ তারপরও নিচে বর্ণিত ধাপগুলো সম্পন্ন করে এ কাজটি করতে পারবেন৷

০১. নিশ্চিত হয়ে নিন, রিচ টেক্সট এডিটিং ফিচার জি-মেইল মেসেজে এনাবল করা আছে কিনা৷ রিচ টেক্সট এডিটিংকে এনাবল করার জন্য Rich formatting লিঙ্কে ক্লিক করুন৷

০২. যদি ওয়েবে গ্রাফিক্স থাকে, তাহলে নিশ্চিত হয়ে নিন, কপিরাইট আইন ভঙ্গ না করে তা ব্যবহার করতে পারবেন কি না৷

০৩. যদি ইমেজটি আপনার জন্য হয়ে থাকে, তাহলে নিশ্চিত হতে পারবেন যে, সেটি ওয়েব সার্ভারে রয়েছে৷ এর ফলে আপনার ওয়েব ব্রাউজারে তা ওপেন করতে পারবেন, যার অ্যাড্রেস লাইন শুরু হবে র্র্দয দিয়ে৷ www.imageshack.us সাইট থেকে ফ্রি ডাউনলোড করতে পারবেন৷

০৪. যদি ইমেজের সাইজ ৬৪০ * ৬৪০ পিক্সেলের চেয়ে বেশি হয়, তাহলে তা অনলাইনে পাবলিশ করার আগে কমিয়ে নিন৷

০৫. ওয়েবসাইটে ইমেজকে লোকেট করুন অথবা সরাসরি ব্রাউজারে ওপেন করুন৷

০৬. Ctrl+A চেপে ইমেজ সিলেক্ট করুন৷

০৭. Ctrl+C চেপে ইমেজ কপি করুন৷

০৮. জি-মেইলে মেসেজে কার্সর নির্দিষ্ট করুন, যেখানে আপনি ইমেজ দেখতে চান৷ এবার Ctrl+V চাপুন ইমেজ পেস্ট করার জন্য৷

আফতাব আহমেদ খান
গড়পাড়া, মানিকগঞ্জ
..................................................................................

মজিলা ফায়ারফক্সের কিছু টিপস - বুকমার্ক ফোল্ডার তৈরি করা

নিচে বর্ণিত ধাপগুলো অনুসরণ করে বুকমার্ক ফোল্ডার তৈরি করা যায়৷

০১. সিলেক্ট করুন Bookmarks®Organiz Bookmarks ৷

০২. বুকমার্কস ম্যানেজার টুলবক্সে সিলেক্ট করুন New Folder ৷ এরপর ফোল্ডারের নাম ও অপশনাল বর্ণনা দিয়ে ওকে করুন৷

০৩. তৈরি করা ফোল্ডারে বুকমার্ক পেজ সেভ করার জন্য Bookmarks®Bookmarks This Page-F -এ ক্লিক করুন৷

০৪. অ্যাড বুকমার্কস ডায়ালগবক্সে গিয়ে ক্লিক করুন Create In ড্রপডাউন লিস্টে এবং নতুন তৈরি করা ফোল্ডারের নাম দিয়ে ওকে করুন৷

এ পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনার বুকমার্ক পেজকে পছন্দ অনুযায়ী অর্গানাইজ করতে পারবেন৷ মাল্টিপল হোমপেজ ওপেন করা

ফায়ারফক্স ট্যাব সাপোর্ট করে, যা ব্যবহার হয় সিঙ্গেল ব্রাউজারে মাল্টিপল পেজ ওপেন করতে৷ স্বতন্ত্র ট্যাবে মাল্টিপল হোমপেজ ওপেন করার অপশনও এতে রয়েছে৷ যেমনটি রয়েছে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৭-এ৷ যখন ফায়ারফক্স স্টার্টআপ হয় তখন একটিমাত্র ট্যাব ওপেন থাকে৷ অন্য সাইট সার্ফ করতে চাইলে Ctrl+T চেপে অ্যাড্রেস টাইপ করতে হবে৷

স্টার্টআপ স্বয়ংক্রিয়ভাবে পছন্দনীয় ওয়েবসাইট সম্বলিত নতুন ট্যাব ওপেন করার জন্য নিম্নলিখিত উপায়ে কাস্টোমাইজ করতে পারবেন৷

০১. Tools -> Options সিলেক্ট করুন৷

০২. Main ট্যাব সিলেক্ট করুন৷

০৩. স্টার্টআপ গ্রুপে সিলেক্ট করুন Show my home page ৷ এবার Firefox starts ড্রপডাউন লিস্ট আবির্ভূত হবে৷

০৪. Home Page সেকশনে কাঙিক্ষত সাইটের নাম টাইপ করুন৷

০৫. ওকেতে ক্লিক করুন৷
পপআপ ব্লক বা অনুমোদন করা

পপআপ উইন্ডোজ ব্রাউজিংয়ের সময় আপনার সম্মতি ছাড়াই ওপেন হয়৷ নিচে বর্ণিত পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনি এ ধরনের ঝামেলা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন৷

০১. Tools -> Options-F -এ ক্লিক করে Content ট্যাবে ক্লিক করুন৷

০২. Block pop-up windows -এর পাশের চেকবক্সে ক্লিক করুন৷

০৩. ওকেতে ক্লিক করুন৷

০৪. যদি বিশেষ কোনো সাইটের পপআপ ব্লক করতে চান, অন্য কোনো সাইটের নয়, তাহলে Block pop-up windows আনচেক করুন৷ এর ফলে বিশ্বস্ত কোনো সাইটের পপআপ কেবল ডিসপ্লে হবে৷ এর জন্য যা করতে হবে - ০৫. Tools -> Options-F -এ ক্লিক করুন৷

০৬. Content ট্যাবে ক্লিক করুন৷

০৭. Exception বাটনে ক্লিক করুন, যা Block pop-up windows -এর সমান্তরালে রয়েছে৷

০৮. আপনার কাঙিক্ষত সাইটের নাম যুক্ত করুন যেগুলোকে পপআপে অনুমোদন করাতে চান৷ এরপর Allow After adding the names of the sites that you wish to permit ক্লিক করে ক্লোজ বাটনে ক্লিক করুন৷

০৯. ওকেতে ক্লিক করুন নতুন সেটিং প্রয়োগ করার জন্য৷

এনামুল কবীর সাতমাথা,
বগুড়া
.................................................................................।

সিস্টেম রিস্টোর ঝুটঝামেলা কমাবে

উইন্ডোজ এক্সপি চালিত কমপিউটারে সিস্টেম রিস্টোর ব্যবহার করে কমপিউটারের ঝুটঝামেলা হতে কিছুটা হলেও রক্ষা পাওয়া যায়৷ এজন্য Start\Programs\Accessories\System tools -এ ক্লিক করতে হবে৷ সিস্টেম রিকোভারির বেশিরভাগ কাজ সম্পন্ন করে উইন্ডোজ এক্সপি৷ এজন্য ইউজারকে নিশ্চিত হতে হবে সিস্টেম রিস্টোর খোলা কি না৷ *control panel\system খুলতে হবে৷ সিস্টেম রিস্টোর ট্যাবে ক্লিক করুন৷ Turn off System Restore বক্সে টিক চিহ্ন দিতে হবে৷ যদি একাধিক Harddisk Drive থাকে, তাহলে প্রতিটিতে ক্লিক করে এদের সেটিংয়ে কতটুকু জায়গা ব্যবহার করতে হবে তা নির্ধারণ করতে হবে৷ ফলে যখনই কমপিউটারের নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে যেমন সফটওয়্যার ইনস্টল, আনইনস্টল ও হার্ডওয়্যার পরিবর্তন করা হয়, তখন এক্সপি গুরুত্বপূর্ণ সিস্টেম ফাইল সেটিং স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেভ করবে৷ ইউজাররা ইচ্ছে করলে সিস্টেম রিস্টোর চালিয়ে এবং Create restore point সিলেক্ট করে সুনির্দিষ্ট রিস্টোর পয়েন্ট তৈরি করতে পারেন৷ এরপরও যদি কমপিউটার ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়ে তাহলে সিস্টেম রিস্টোর চালাতে হবে৷ এরপর Restore My Computer ot an earlier time সিলেক্ট করে নেক্সটে ক্লিক করুন৷ এবার ইউজারকে সমস্যা ছাড়া কবে কমপিউটার শেষবারের মতো চালিয়েছিলেন, সে তারিখটি উল্লেখ করতে হবে৷ ফলে এক্সপি সেই তারিখের পরের সেটিং ও ফাইল স্বয়ংক্রিয়ভাবে আবার ফিরিয়ে আনবে৷ এখানে উল্লেখ্য, ইউজার শুধু বোল্ড করা তারিখ সিলেক্ট করতে পারেন৷ রিকোভারির কাজ শেষে কমপিউটার পুনরায় চালু করতে হবে৷ এক্সেসের ফাইলে পাসওয়ার্ড

পাসওয়ার্ড দিয়ে সহজেই নিরাপদ রাখা যায় এমএস এক্সেস-এর ফাইলকে৷ এমএসএক্সেস সফটওয়্যারে যে ফাইলে পাসওয়ার্ড দিতে চান সেটি খুলুন ও Tools\Security -তে মাউস আনুন৷ পর্দায় ডান দিকে অপশন দেখা যাবে৷ এবার Set Database Password->Click এবার পাসওয়ার্ড দিন৷ Veritf: আবার লিখুন৷ এরপর ওকে করুন৷

শ্রী প্রেম রঞ্জন দেব মেজরটিলা,
সিলেট

পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
২০০৮ - ফেব্রুয়ারী সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস