Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > ভাইরাস সমস্যা ও সমাধান
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: সৈয়দ হাসান মাহমুদ
মোট লেখা:১৪৩
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৭ - অক্টোবর
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ভাইরাস
তথ্যসূত্র:
ভাইরাস সন্ত্রাস
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
ভাইরাস সমস্যা ও সমাধান
ভাইরাস সমস্যাটি কমিপউটার ব্যবহারকারীদের দৈনন্দিন সমস্যা৷ এই সমস্যার সমাধানকল্পে এখন থেকে প্রতি সংখ্যায় কমপিউটার জগৎ-এ ভাইরাস শীর্ষক বিভাগ খোলা হয়েছে৷ এখন থেকে ধারাবাহিকভাবে ভাইরাস সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে বিভাগটি সাজানো হবে৷ গত জুলাই সংখ্যায় দুটি জনপ্রিয় অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার আলোকপাত করা হয়েছিল৷ এরই ধারাবাহিকতায় এই সংখ্যায় ভাইরাস বিভাগে কয়েকটি পরিচিত ভাইরাস সমস্যার সমাধান দেয়া হলো৷

আমরা ডিস্ক নাইট ভাইরাস সমস্যাটি নিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ পেয়েছি৷ এটির সমস্যা হলো এন্টিভাইরাসগুলো একে ডিটেক্ট করতে পারে না৷ তাই এই পর্বে এর সমাধানও দেয়া হলো৷ আশা করা যায় এখন থেকে ভাইরাস ও ভাইরাসজনিত সমস্যা থেকে সবাই মুক্ত থাকবেন৷

ভাইরাস শব্দটি ল্যাটিন৷ এর অর্থ বিষ৷ আমরা অকেই হয়তো জানি না যে Vital Information Resources Under Siege-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হছে VIRUS.

পিসি ব্যবহার করেন কিন্তু ভাইরাস আক্রান্ত হননি এমন লোক খুঁজে পাওয়া খুবই কঠিন৷ ভাইরাসের বিপরীতে নতুন উন্নত অ্যান্টিভাইরাসগুলোর কারণে ভাইরাসগুলো পিসির জন্য খুব একটা ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে না৷ তারপরও কিছু ভাইরাস ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায় ভালো অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার না করা এবং ঠিকমতো এন্টিভাইরাস আপডেট না করার কারণে৷

ভাইরাস সম্পর্কে নতুন করে আর কিছু বলার প্রয়োজন নেই৷ কারণ গত জুলাইয়ে মর্তুজা আশীষ আহমেদের ভাইরাসথেকে আপনার সিস্টেম সুরক্ষিত রাখুন শীর্ষক রচনায় তিনি ভাইরাস, স্পাইওয়্যার এডওয়্যার, স্প্যামওয়ার্ম, থ্রেড এবং অ্যান্টিভাইরাস ফিচার উপস্থাপন করেছেন৷ যারা পড়েননি তারা ভাইরাসের জানা-অজানা তথ্য সম্পর্কে জানতে ফিচারটি পড়ে দেখুন৷

এইবার আমরা আলোচনা করব কয়েকটি ভাইরাসের সমস্যা ও সমাধান নিয়ে৷ ভাইরাসগুলো খুব একটা ক্ষতির কারণ না হলেও এগুলো কমপিউটার ব্যবহারকারীদের ঘুম হারাম করে দিয়েছে৷ এমনি কিছু সমস্যা সৃষ্টিকারী প্রোগ্রাম হচ্ছে ডিস্ক নাইট, ব্রনটক ও ট্রোজান হর্স৷

ডিস্ক নাইট

মজার ব্যাপার হলো ডিস্ক নাইটকে অনেকে ভাইরাস বলেন কিন্তু আসলে এটি একটি অ্যান্টিভাইরাস৷ চট্টগ্রামের ১৯ বছর বয়সী ছাত্র আরিফুল ইসলাম এটি বানিয়েছিলেন মোবাইল ড্রাইভ থেকে পিসিতে বিস্তার লাভ করা ভাইরাস দূর করার জন্য৷

সমস্যা : প্রোগ্রামটি পেনড্রাইভে থাকলে বা পিসিতে থাকলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে যেকোনো প্রোগ্রাম চালাতে বাধা দেয় এবং মেসেজ দেখায় যে প্রোগ্রামটি এলাউ, ব্লক না কিল করবে৷ এটি খুব দ্রুত ছড়িয়ে যায় পেনড্রাইভে এবং কোনো পিসিতে পেনড্রাইভ কানেক্ট করলে ডিস্ক নাইট অটোরান করে৷ তাই পিসি ব্যবহারকারীদের জন্য এটি বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, যদিও এটি ক্ষতিকর নয়৷

সমাধান : ০১. পেনড্রাইভ থেকে ডিস্ক নাইট দূর করার জন্য ড্রাইভে এক্সেস করুন৷ যদি এক্সেসের সময় রাইট বাটনে ওপেন অপশন না থাকে তবে এক্সপ্লোর করে এক্সেস করুন৷ যদি তাতেও না হয় তবে উইন্ডোজের টুলবারে Folders -এ ক্লিক করুন৷ এরপর বাম পাশের প্যানেল হতে USB ড্রাইভটিতে ক্লিক করে ড্রাইভটিতে এক্সেস করুন৷ এরপর Tools->Folder Option->View-> ShowHidden Files and Folders অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং তার একটু নিচে Hide Protected Operating System Files -এর চেকবক্সের টিক উঠিয়ে দিয়ে ওকে করুন৷ এরপর ড্রাইভটিতে থাকা autorun.inf ও Disk knight.exe ফাইল দুটো ডিলিট করে দিন৷ প্রয়োজনে ড্রাইভটির নাম পরিবর্তন করে রিফ্রেশ করুন৷

০২. পেনড্রাইভ লাগানোর পর শিফট কী চেপে রাখলে ডিস্ক নাইট রান করে না৷

০৩. ডিস্ক নাইট ডিজাবল করার জন্য টাস্কবারের ডিস্ক নাইটের আইকনে রাইট ক্লিক করে Disable protection অথবা Fll চাপুন৷ এতে দ্বিতীয়বার সিস্টেম রিস্টার্ট না করা পর্যন্ত এটি ডিজাবল থাকবে৷

০৪. Control Panel->Add or Remove Program থেকেও Disk knight রিমুভ করা যায়৷

০৫. যদি এটি Add Remove Program লিস্টে না থাকে তবে C:\Windows\Disk knight.exe ফাইলটি ডিলিট করুন৷ এরপর Run->msconfig->startup -এ গিয়ে knight নামের বক্স থেকে টিক উঠিয়ে দিন৷ Search -এ knight লিখে খুঁজুন৷ System32 ফোল্ডারে Knight -এর তৈরি করা দুটি .dll ফাইল পেতে পারেন৷ ওগুলো ডিলিট করলেই আপনার পিসি হবে ডিস্ক নাইট মুক্ত৷

ডিস্ক নাইটের স্রষ্টা আরিফুল ইসলাম এটি আরো উন্নত করার চেষ্টায় আছেন৷ এটির সব সমস্যা দূর করে তিনি আমাদের ভালো একটি প্রোগ্রাম উপহার দেবেন বলে আশা রাখি৷

ট্রোজান হর্স

ট্রোজান হর্স ভাইরাস গোত্রের একটি প্রোগ্রাম৷ এর অনেক রূপ রয়েছে এবং এর একেক রূপ একেক রকম সমস্যার সৃষ্টি করে৷

সমস্যা : ট্রোজান হর্স ভাইরাসের একটি রূপ Windows ড্রাইভের MS32DLL.dll.vbs ফাইলটির ক্ষতি করে৷ অ্যান্টিভাইরাস দিয়ে এটি দূর করা গেলেও এটি কোনো ড্রাইভে ডবল ক্লিক করে ঢুকতে দেয় না৷ কোনো ড্রাইভে ঢুকতে গেলে Can not find script file "C:\MS32DLL.dll.vbs"” অথবা "Cant open copy.exe"মেসেজ দেখায়৷ তখন Explore ড্রাইভে ঢুকতে হয়৷

সমাধান : এই সমস্যা দূর করতে Folder Option->View->Show Hidden Files and Folders সিলেক্ট ও Hide Protected Operating System Files -এর টিক তুলে দিয়ে ওকে করুন৷ এরপর প্রত্যেক ড্রাইভের Explore করে ঢুকে autorun.inf ও MS32DLL.dll.vbs ফাইল দুটি শিফট চেপে ডিলিট করুন৷ এরপর Run->Regedit->HKEY_LOCAL_MACHINE\Software\Microsoft\Windows\CurrentVersion\Run -এ গিয়ে "MS32*... কী ডিলিট করে পিসি রিস্টার্ট করুন৷ উল্লেখ্য, সবাই MS32DLL.dll.vbs ফাইলটি নাও পেতে পারেন৷ আবার শুধু autorun.inf ফাইল ডিলিটের মাধ্যমে ও সমস্যার সমাধান হতে পারে৷

ব্রনটক

এই ভাইরাসটিরও অনেক প্রকারভেদ রয়েছে এবং এটি উইন্ডোজের অনেকরকম ক্ষতির কারণ৷ এখানে Win32/Brontok.A ভাইরাসটি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে৷

সমস্যা : এটি উইন্ডোজের Folder Options ডিজাবল করে দেয়৷ অনেকে এ সমস্যা সমাধানে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলেন আবার অনেকে নতুন করে উইন্ডোজ ইনস্টল করেন৷ কিন্তু এত কিছু না করে খুব সহজেই এটি দূর করা যায়৷

সমাধান : Group Policy Editor খোলার জন্য স্টার্ট মেনু থেকে Run -এ gpedit.msc টাইপ করুন৷ এরপর User Configaration->Administrative templates-> Windows Component-> Windows Explorer -এ ক্লিক করুন৷ এখানে ডান পাশের প্যানেলের তিন নম্বর অপশন Removes the Folder Option menu item from the tools menu-তে ডবল ক্লিক ক েএনাবল করুন এবং not configured চেকবক্সে টিক দিয়ে পিসি রিস্টার্ট করে দেখুন Folder option ফিরে এসেছে কিনা৷ সব সমস্যারই সমাধান রয়েছে এই পৃথিবীতে৷ তাই ভাইরাসের ভয়ে আতঙ্কিত হবার কোনো কারণ নেই৷ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য নিয়মিত কমপিউটার জগত্-এর সাথে থাকুন৷ ভাইরাসের এই সমস্যাগুলোর সমাধান ঠিকমতো হলো কিনা জানাবেন৷

ফিডব্যাক shmt_21@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০০৭ - অক্টোবর সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস