Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ডোমেইন এবং স্ন্যাপশট
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কে এম আলী রেজা
মোট লেখা:১৫১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৯ - সেপ্টেম্বর
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
নেটওয়ার্ক
তথ্যসূত্র:
নেটওয়ার্ক
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ডোমেইন এবং স্ন্যাপশট


যেকোনো সার্ভারের জন্যই অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ, এতে ইউজার, গ্রুপ, অবজেক্টসহ অন্যান্য রিসোর্স সংরিক্ষত থাকে এবং প্রয়োজনে এগুলো খুঁজে বের করে অন্যদের সাথে শেয়ার করা হয়। এ লেখায় ২০০৮-এর অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি এবং এর অপর একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার ডিরেক্টরি স্ন্যাপশট নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

উইন্ডোজ সার্ভার ২০০৮-এ অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ডোমেইন ইনস্টল করা খুব সহজ। তবে যেসব তথ্যপ্রযুক্তি পেশাজীবী উইন্ডোজ সার্ভার নিয়ে প্রথমবারের মতো কাজ করছেন, তাদের কাছে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ইনস্টলেশনে কিছুটা সমস্যা হতে পারে। এখানে সেই বিষয়গুলোর ওপর আলোকপাত করা হয়েছে। সার্ভার ২০০৮-এ সফলভাবে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ইনস্টলেশনের জন্য যে বিষয়গুলো আবশ্যিকভাবে সিস্টেমে থাকতে হবে তাহলো :

* সার্ভারের হার্ডডিস্কে পর্যাপ্ত ডিস্ক স্পেসসহ একটি এনটিএফএস পার্টিশনের উপস্থিতি,
* একটি অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড,
* যথাযথভাবে টিসিপি/আইপি কনফিগারেশন,
* হাব ও সুইচের মাধ্যমে সার্ভারের সাথে নেটওয়ার্ক সংযোগ,
* সার্ভারে ডিএনএস সার্ভার ইনস্টলেশন এবং ডোমেইন কন্ট্রোলার সক্রিয় থাকা এবং
সার্ভারের একটি ডোমেইন নেম থাকা।

এনটিএফএস পার্টিশন

অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ইনস্টলেশনের পূর্বশর্ত হিসেবে হার্ডডিস্কের একটি পার্টিশন এনটিএফএস (নিউ টেকনোলজি ফাইল সিস্টেম) হিসেবে ফরমেট করতে হবে। এনটিএফএস ফরমেট ছাড়া সিকিউর ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড নিশ্চিত করা যাবে না। এনটিএফএস পার্টিশনে সার্ভার সিস্টেমের SYSVOL ফোল্ডারটি সংরক্ষিত থাকে এবং এটি সাধারণত C: পার্টিশন হিসেবেই থাকে। তবে যদি কোনো ক্ষেত্রে বড় আকারের অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরির প্রয়োজন হয়, তাহলে ভিন্ন কোনো পার্টিশনকে এনটিএফএস হিসেবে ফরমেট করে সেখানে ডিরেক্টরি তৈরি করতে পারেন। ধরুন, আপনি হার্ডডিস্কের C: ড্রাইভকে এনটিএফএস-এ রূপান্তর করতে চান। এজন্য কমান্ড প্রম্পটে ব্যবহার করতে হবে :

convert c:/fs:ntfs

ডিস্কে প্রয়োজনীয় ফ্রি স্পেস

অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি সিস্টেমে ইনস্টল করার জন্য হার্ডডিস্ক পার্টিশনে কমপক্ষে ২৫০ মেগাবাইট ফাঁকা জায়গা থাকতে হবে। তবে ফাঁকা জায়গার পরিমাণ এর দ্বিগুণ থাকা দরকার। কারণ, সিস্টেমে হয়তো বেশিসংখ্যক ইউজার, গ্রুপ এবং ডিরেক্টরি অবজেক্ট আপনি ক্রমান্বয়ে যোগ করতে থাকবেন।

লোকাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটর এবং ডোমেইন কন্ট্রোলার

মনে রাখবেন, শুধু একজন লোকাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বা তার সমকক্ষ কোনো সার্ভার ইউজারই প্রথম ডোমেইন এবং নিউ ফরেস্ট (ডোমেইনের অধীনে বিভিন্ন ইউজার গ্রুপ) ইনস্টল করতে পারে। সার্ভারে অতিরিক্ত ডোমেইন কন্ট্রোলার বা নতুন ট্রি সৃষ্টি করার জন্য ডোমেইন অ্যাডমিনের অনুমোদন প্রয়োজন হবে।




আইপি কনফিগারেশন

যদিও ডায়নামিক আইপি অ্যাড্রেস সম্বলিত সার্ভারে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ইনস্টল করা সম্ভব, তবে ডেডিকেটেড আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে ম্যানুয়ালি কনফিগার করা সার্ভারে এটি ইনস্টল করা উত্তম। ডেডিকেটেড আইপি অ্যাড্রেস ব্যবহার করা না হলে ডিএনএস (ডোমেইন নেম সার্ভিস) রেজিস্ট্রেশন ঠিকমতো নাও কাজ করতে পারে। আর এর ফলে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরির বিভিন্ন কার্যক্রম অনিশ্চিত হয়ে যেতে পারে। সার্ভার যদি মাল্টিহোমড (multi-homed) ধরনের হয়, অর্থাৎ এতে একাধিক নেটওয়ার্ক অ্যাডাপ্টার ইনস্টল করা থাকে, তাহলে যে অ্যাডাপ্টারটি ইন্টারনেটে যুক্ত নেই সেটি ডেডিকেটেড আইপি অ্যাড্রেস ধারণ করতে পারে। এতে করে ডিএনএস কানেক্টিভিটিতে কোনো সমস্যা হলে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টটি ডোমেইন কন্ট্রোলার ডিএনএস সার্ভারে সংরক্ষিত আইপি তালিকার স্মরণাপন্ন হয়। আপনি গ্রাফিক্স মোডে খুব সহজেই আইপি অ্যাড্রেস কনফিগার করতে পারেন। তবে, কমান্ড প্রম্পট থেকে NETSH কমান্ডের সাহায্যে সহজেই এ কাজটি সমাধা করা যেতে পারে।


চিত্র-১


চিত্র-২

লক্ষ করলে দেখা যাবে, চিত্র-১-এ কনফিগারেশনের জন্য আইপি-৪ এবং আইপি-৬ উভয় অপশন রয়েছে। তবে মনে রাখতে হবে আইপি-৬ কনফিগার করার বিষয়টি পুরোপুরি অপশনাল, এটি বাধ্যতামূলক কিছু নয়। সার্ভারে আইপি-৬ কার্যক্রমের প্রয়োজন না হলে এটি কনফিগারের কোনো প্রয়োজন নেই। এ অপশনটি অনায়াসে এড়িয়ে যেতে পারেন।

কনফিগারেশনের জন্য একটি স্ট্যাটিক এবং ডেডিকেটেড আইপি অ্যাড্রেস প্রথমে ঠিক করে নিন। নির্বাচিত নেটওয়ার্ক অ্যাডাপ্টারের মাধ্যমে যদি ইন্টারনেটে যুক্ত হবার প্রয়োজন না থাকে, তাহলে প্রাইভেট আইপি অ্যাড্রেস যেমন 192.168.101.0, সাবনেট মাস্ক হিসেবে 255.255.255.0. ব্যবহার করতে পারেন।

চিত্র-২-এ পুরো প্রক্রিয়াটি দেখানো হয়েছে। এখানে Advanced বাটনে ক্লিক করে DNS ট্যাবে পুনরায় ক্লিক করুন। এক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, নেটওয়ার্ক অ্যাডাপ্টারের আইপি অ্যাড্রেস যেনো ডিএনএস সার্ভারের অ্যাড্রেসের সাথে হুবহু মিলে যায়।

অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি স্ন্যাপশট তৈরির স্বয়ংক্রিয় প্রক্রিয়া

উইন্ডোজ সার্ভার ২০০৮-এ এটি একটি নতুন ফিচার, যা অ্যাডমিনিস্ট্রেটরকে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি ডাটাবেজের একটি স্ন্যাপশট তৈরির সুযোগ দেয়। সার্ভার যখন অফ-লাইনে থাকে তখন স্ন্যাপশটটি ব্যবহার করা যায়। অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি স্ন্যাপশট ব্যবহারের বেশ কয়েকটি ক্ষেত্র রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, যদি কেউ অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরির আওতায় কোনো অবজেক্টের প্রোপার্টিজ পরিবর্তন করার পর আবার অবজেক্টগুলোর পুরনো প্রোপার্টিজ ফিরিয়ে আনতে চান, তাহলে স্ন্যাপশটের কপি কাজে লাগাতে পারেন। এছাড়া স্ন্যাপশটের সাহায্যে মুছে ফেলা কোনো অবজেক্ট সিস্টেমে আবারো করতে পারেন এবং সমস্যা শনাক্তকরণের জন্য কোনো অবজেক্ট পর্যবেক্ষণ করতে পারেন।


চিত্র-৩


চিত্র-৪


চিত্র-৫

স্বয়ংক্রিয়ভাবে অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি স্ন্যাপশট তৈরির জন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন :

ক. প্রথমে একটি ব্যাচ (batch) ফাইল তৈরি করতে হবে। ব্যাচ ফাইলের মধ্যে যা থাকবে :

@echo off
ntdsutil snapshot "activate instance ntds" create quit quit
exit

u>খ. ফাইলটি এবার "ad-snapshot.bat" বা অনুরূপ কোনো নামে সেভ করুন এবং ফাইলের লোকেশনটি মনে রাখুন।

গ. এবার ম্যানুয়ালি রান করে দেখুন স্ক্রিপ্টটি ঠিকমতো রান করে কি না। এটি রান করার জন্য ডোমেইন কন্ট্রোলার সার্ভারে ডোমেইন অ্যাডমিন (Domain Admins) গ্রুপের সদস্য হিসেবে সিস্টেমে লগ-ইন করতে হবে।

ঘ. অ্যাডমিনিস্ট্রেটর টুল ফোল্ডার অথবা Manager > Configuration থেকে Task Scheduler ওপেন করুন।

ঙ. এবার বাম দিকের নোডে অবস্থিত Task Scheduler (Local)-এ ডান ক্লিক করুন এবং Create Basic Task সিলেক্ট করুন।

চ. এখান Create Basic Task উইন্ডোতে নতুন টাস্কের একটি নাম এবং বর্ণনা দিন। উপরের উদাহরণে Create AD snapshot নাম দেয়া হয়েছে। উইন্ডোর পরবর্তী নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করে টাস্ক সিডিউলারের ধাপগুলো সম্পন্ন করুন। এতে নির্ধারিত হবে টাস্কটি সার্ভারে কখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে রান করবে। টাস্কটি দৈনিক, সাপ্তাহিক বা মাসিকভিত্তিতে সার্ভারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রান করাতে পারেন।


চিত্র-৬

এ পর্যায়ে Start a Program উইন্ডোতে গিয়ে ইতোমধ্যে তৈরি করা ব্যাচ ফাইলটি খুঁজে বের করে Next বাটনে ক্লিক করুন।

বাই ডিফল্ট টাস্কটি এমনভাবে কনফিগার করা হয় যাতে সার্ভার অ্যাডমিনিস্ট্রেটর সিস্টেমে লগ-ইন করার পর পরই স্ক্রিপ্টটি রান করবে। তবে ইচ্ছে করলে কোনো ইউজারের সার্ভারে লগ-ইন ছাড়াই টাস্কটি রান করাতে পারেন। এজন্য Run whether user is logged on or not চেকবক্সটিতে ক্লিক করতে হবে।

টাস্কটি রান করার জন্য কোনো বিশেষ গ্রুপ বা ইউজারকে দায়িত্ব দিতে পারেন। এজন্য সংশ্লিষ্ট অপশনটি সিলেক্ট করে দিতে হবে।

প্রথমে Select User or Group উইন্ডোতে গিয়ে যে ইউজার টাস্কটি রান করবে তার নাম অ্যান্ট্রি দিতে হবে। এ কাজের জন্য অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের অ্যাকাউন্ট সিলেক্ট করতে পারেন, তবে সবচেয়ে ভালো হয় যদি এ ধরনের স্ক্রিপ্ট রান করার কাজে নিয়োজিতদের নিয়ে বিশেষ ধরনের অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নেন। অ্যাকাউন্টটি সিলেক্ট করে Ok বাটনে ক্লিক করে এই অ্যাকাউন্টের জন্য একটি পাসওয়ার্ড নির্ধারণ করে দিন, যাতে করে অননুমোদিত কেউ সার্ভারে লগ-ইন না করতে পারে।

পুরো প্রক্রিয়াটি শেষ হবার পর এবার পরীক্ষা করে দেখুন স্ন্যাপশটে নির্ধারিত টাস্কটি ঠিকমতো রান করছে কিনা। এজন্য টাস্কটি প্রথমে ব্রাউজ করে সিলেক্ট করুন এবং এর উপর মাউসের ডান বাটনে ক্লিক করে পপ-আপ মেনু থেকে Run কমান্ড সিলেক্ট করুন।

কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : kazisham@gmail.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস