Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > উইন্ডোজ পার্টিশনে চালান লিনআক্স
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: মর্তুজা আশীষ আহমেদ
মোট লেখা:৭৭
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১০ - জানুয়ারী
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
লিনআক্স
তথ্যসূত্র:
লিনআক্স
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
উইন্ডোজ পার্টিশনে চালান লিনআক্স


দৈনন্দিন কমপিউটিংয়ে আমরা সবাই কমবেশি উইন্ডোজের ওপর নির্ভরশীল। উইন্ডোজের রয়েছে বিশাল সফটওয়্যার কম্প্যাটিবিলিটি, তা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। এখনও লিনআক্স এসব বিষয়ে বেশ পিছিয়েই আছে। তবে লিনআক্সে কাজ চলার মতো সফটওয়্যার সাপোর্ট অবশ্যই আছে। কিন্তু এত কিছুর পরও নতুন করে পার্টিশন করার ঝামেলার কারণে সিস্টেমে লিনআক্স ইনস্টল করার ক্ষেত্রে অনেকেরই অনীহা দেখা যায়। তবে লিনআক্সে অনেক আগে থেকেই যেকোনো পার্টিশনে অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার সুবিধা আছে। এমনকি উইন্ডোজের পার্টিশন যেমন ফ্যাট বা এনটিএফএস পার্টিশনেও লিনআক্স ইনস্টল করা যায়। যেকোনো লিনআক্সের নতুন ভার্সনে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের নতুন পার্টিশন উইনএফএসের কম্প্যাটিবিলিটিও আছে। লিনআক্স ধারাবাহিকের এই সংখ্যায় দেখানো হয়েছে কিভাবে উইন্ডোজের পার্টিশনে লিনআক্স চালানো যায়।

উইন্ডোজের ক্ষেত্রে যেমন একই সিস্টেমে একাধিক অপারেটিং সিস্টেম (সব উইন্ডোজ ঘরানার) ইনস্টল করার জন্য আলাদা আলাদা পার্টিশন ব্যবহার করতে হয়, লিনআক্সের ক্ষেত্রে এমন কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। এমনকি রুট ডিরেক্টরিতে উইন্ডোজ থাকলেও সি ড্রাইভে লিনআক্স ইনস্টল করা যায়। সেক্ষেত্রে একই ড্রাইভে দুইটি অপারেটিং সিস্টেম থাকবে। কিন্তু আলাদা ধরনের কার্নেলের কারণে কারো সাথে কেউ কনফ্লিক্ট করবে না। তবে লিনআক্স ইনস্টল করার ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে, একসাথে একটিই লিনআক্স ইনস্টল করা যাবে। অর্থাৎ লিনআক্সের একটি ডিস্ট্রিবিউশন ইনস্টল করা যাবে, একাধিক নয়। অর্থাৎ একসাথে উইন্ডোজের সাথে লিনআক্সের যেকোনো একটি ডিস্ট্রিবিউশন যেমন উবুন্টু, ফেডোরা ইত্যাদি ইনস্টল করা যাবে। তবে একসাথে উবুন্টু এবং ফেডোরা ইনস্টল করা যাবে না।

সিস্টেমে লিনআক্স ইনস্টলেশনের ক্ষেত্রে কমপিউটিংয়ের জটিলতা এড়ানোর জন্য আলাদা পার্টিশন তৈরি করা শ্রেয়। পার্টিশন করার জন্য থার্ড পার্টি পার্টিশনিং টুল ব্যবহার করা যায়, যেমন পাওয়ারকোয়েস্ট পার্টিশন ম্যাজিক। ইন্টারনেটে খুঁজলে এমন অনেক ধরনের পার্টিশনিং টুল পাওয়া যাবে। পার্টিশন করার জন্য লিনআক্সে অনেক টুল থাকলেও পার্টিশনিং সহজ করার জন্যই পাওয়ারকোয়েস্ট পার্টিশন ম্যাজিক ব্যবহার করা ভালো। নতুন করে পার্টিশন না করে সিস্টেমে লিনআক্স ইনস্টল করার জন্য যে পার্টিশনে লিনআক্স ইনস্টল করতে চান (যেমন সিডি ইত্যাদি) সেই পার্টিশন থেকে গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো আলাদা করুন বা ব্যাকআপ রাখুন। ভালো হয়, যদি ডিভিডিতে রাইট করে করা যায়।



এবারে যে ড্রাইভে লিনআক্স ইনস্টল করতে চান, সেই ড্রাইভের রুট ডিরেক্টরির ফোল্ডারগুলোর একটা তালিকা তৈরি করে ফেলতে হবে। যাতে করে লিনআক্স ইনস্টল করার পরে লিনআক্সের ফাইল এবং ফোল্ডার আলাদাভাবে ট্র্যাক করা যায়। এতে কোনটা লিনআক্সের ফাইল এবং কোনটা উইন্ডজের ফাইল তা নিয়ে কোনো সংশয় থাকবে না।

লিনআক্সের সিডি থেকে বুট করে ইনস্টল করতে হয়। তাই বলে প্রথমেই সিস্টেমের বুট ডিভাইস সেটিং ঠিক করে নিতে হবে। সাধারণত হার্ডডিস্ক থেকেই সিস্টেম বুট করে বলে অপটিক্যাল ডিভাইসকে (সিডি রম বা অন্যান্য) হার্ডডিস্কের আগে প্রায়োরিটি সেট করে দিতে হবে। এজন্য সিস্টেম বুট করার সময় বায়োসে প্রবেশ করতে হবে। আজকাল অনেক বায়োসই বুট সিকোয়েন্স পরিবর্তন না করেই যেকোনো ডিভাইস থেকে বুট করার সুযোগ দেয়। বেশিরভাগ বায়োসেই এটি করার জন্য বায়োস পার হবার সময় F8 চাপতে হয়। যে সিস্টেমে লিনআক্স চালানো হবে, তার বায়োসে কোন কী চাপতে হয় তা জেনে নিতে হবে। এরপর ড্রাইভে লিনআক্সের সিডি রেখে ড্রাইভটি সিলেক্ট করে দিলেই এক্ষেত্রে চলবে।

সিডি থেকে বুট হলে লিনআক্সের বুট মেনু আসলে এন্টার চাপুন। ফলে অটোমেটিক লাইভ সিডি চালু হবে। লাইভ সিডি চালু হলে কিছু সময় পর সরাসরি লিনআক্সের লাইভ ডেস্কটপে চলে আসবেন। ডেস্কটপে ইনস্টল নামে একটি আইকন দেখতে পাবেন। আইকনটি ক্লিক করলে সিস্টেমে লিনআক্স ইনস্টলেশন শুরু হবে।

প্রথমেই আপনার সামনে আসবে ভাষা নির্বাচন মেনু। এখান থেকে ভাষা নির্বাচন করতে হবে। ইচ্ছে করলে বাংলা ভাষাও নির্বাচন করা যায়। বাংলা ভাষা নির্বাচন করলে সবকিছু বাংলায় দেখাবে। এরপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করতে হবে। পরের মেনু থেকে আন্তর্জাতিক সময় এবং অঞ্চল নির্বাচন করতে হবে। তারপর নেক্সটে ক্লিক করে পরের মেনুতে কীবোর্ড ব্যবহার সিলেক্ট করতে হবে। এর পরের মেনু থেকেই পার্টিশন করতে বলা হবে। এখান থেকে নিজ হাতে বা self সিলেক্ট করতে হবে। তারপর নেক্সট ক্লিক করে পরের মেনুতে যেতে হবে।

যেহেতু উইন্ডোজের পার্টিশনেই লিনআক্স ইনস্টল করার কথা, তাই আমাদের নতুন করে পার্টিশন না করে শুধু তৈরি করা পার্টিশন সিলেক্ট করে দিলেই চলবে। তৈরি করা পার্টিশন নিজের ইচ্ছেমতো সিলেক্ট করতে হবে। সিলেক্ট করে দেয়া পার্টিশন এনটিইএফএস, ফ্যাট বা উইনএফএস হতে পারে। পার্টিশন যাই হোক, তা দেখাবে এবং সিলেক্ট করে দিতে হবে। পার্টিশনটি সিলেক্ট করে ফরমেট বক্সে ভুলেও টিক মার্ক দেয়া যাবে না। কারণ, টিক মার্ক দিলে পার্টিশন ফরমেট হয়ে যাবে। অবশ্য পার্টিশনের সব ফাইল এবং ফোল্ডার ব্যাকআপ নিয়ে নিলে ফরমেট করা যেতে পারে। এরপর রাইট বাটন ক্লিক করে মাউন্ট পয়েন্ট অপশনে “/” সিলেক্ট করতে হবে। লিনআক্স ইনস্টলেশনের মূল কাজটিই করা শেষ। সবশেষে ফিনিশ বাটনে ক্লিক করলে ইনস্টলেশন শুরু হবে। এভাবে ইনস্টলেশন শেষ করে সিস্টেম রিস্টার্ট করতে হবে। এভাবে অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করলে লিনআক্স থেকে উইন্ডোজের ফাইল পড়া এবং উইন্ডোজ থেকে লিনআক্সের ফাইল পড়া নিয়ে কোনোরকম সমস্যা হবে না।

আশা করা যায়, ফাইল সিস্টেম নিয়ে যাদের সন্দেহ ছিল লিনআক্স ব্যবহার করার ক্ষেত্রে এবং যারা পার্টিশন করে লিনআক্স ইনস্টল করার পক্ষপাতী নন তাদের জন্য এভাবে লিনআক্স ইনস্টলেশন বেশ কাজে লাগবে। আর ইনস্টল করার সময় উইন্ডোজের ডকুমেন্টস সেটিং ইমপোর্ট করে উইন্ডোজের মতো যাবতীয় সেটিংসে লিনআক্স সিস্টেমে কাজ করা যাবে। এজন্য ইনস্টলেশনের সময় যখন ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড চাইবে তখন উইন্ডোজের মাই ডকুমেন্টস থেকে সেটিং ইমপোর্ট করার জন্য অনুমতি চাইলে টিক মার্ক দিয়ে নিশ্চিত করতে হবে।


কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : mortuzacsepm@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস