Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > জনগণের মুখোমুখি সংসদ সদস্য - এক বছরের কর্মকান্ডের ডাটাবেজ তথ্যউপাত্ত উপস্থাপন করলেন ড. আকরাম এমপি
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কজ রিপোর্টার
মোট লেখা:৩৭৮
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১০ - ফেব্রুয়ারী
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ডাটা বেজ
তথ্যসূত্র:
প্রেক্ষাপট
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
জনগণের মুখোমুখি সংসদ সদস্য - এক বছরের কর্মকান্ডের ডাটাবেজ তথ্যউপাত্ত উপস্থাপন করলেন ড. আকরাম এমপি

কমপিউটার জগৎ রিপোর্ট \

আমরা অনেকেই জানি না ‘তথ্য চাওয়া, পাওয়া ও প্রকাশের অধিকার প্রতিটি মানুষের মৌল নাগরিক অধিকার’। এ সত্যের সম্যক উপলব্ধি সূত্রেই জনগণের সামনে বিগত এক বছরের কর্মকান্ড উপস্থাপন করলেন নওগাঁ ৩ আসনের সংসদ সদস্য ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী। ‘জনগণের মুখোমুখি সংসদ সদস্য : কর্মকান্ডের জবাবদিহিতার এক বছর ২০০৯’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে ড. আকরাম তার নির্বাচনী এলাকা মহাদেবপুর উপজেলার সব কর্মকান্ডের তথ্য-উপাত্ত ডিজিটাল পদ্ধতিতে জনগণের সামনে উপস্থাপন করেন। ২১ জানুয়ারি সকালে মহাদেবপুর উপজেলা অডিটরিয়ামে স্থানীয় নাগরিক কমিটির আহবায়ক গোলাম নুরানী আলালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই- ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম।



সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ এবং মহাদেবপুর উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় স্থানীয় নাগরিক কমিটির এ আয়োজনে উপজেলার পাঁচশ’রও বেশি প্রতিনিধি এতে অংশ নেন। অনুষ্ঠানটি সরাসরি অনলাইনে সম্প্রচার করে ‘কমজগৎ ডটকম’। দেশের ভেতর ও বাইরের অসংখ্য দর্শক সরাসরি সম্প্রচারিত এ অনুষ্ঠান দেখতে পান।

‘সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ’-এর চেয়ারপার্সন সংসদ সদস্য ড. আকরাম হোসেন চৌধুরীর গবেষণাধর্মী এ উপস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করে উপজেলায় চালু ৩০টিরও বেশি দফতরের প্রতিবেদন কমপিউটারায়িত ডাটা সংরক্ষণপদ্ধতি ব্যবহার করে উপস্থাপন করা হয়। ‘সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট’-এর ফেলো তরুণ সমাজগবেষক জাহিদুল হক খান, আইসিটিবিষয়ক শিক্ষক মো: সাইফুদ্দিন খালিদ গবেষণা প্রস্ত্ততি গ্রহণ ও প্রয়োগে সর্বক্ষণিক নিয়োজিত থেকে গবেষণা কাজটি সম্পন্ন করেন। গবেষণা কার্যক্রমের অন্যতম সদস্য সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট গবেষণা দলের রিসার্চ ফেলো ও কমপিউটার জগৎ-এর সহকারী সম্পাদক এম. এ. হক অনু অ্যাম্বাসেডরের দায়িত্ব পালন করেন।

উপজেলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ বাহিনী, নওগাঁ জেলা পরিষদ, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন সমিতি, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা ডাকঘর, উপসহকারী প্রকৌশলী, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন লিমিটেড (বিটিসিএল), ইসলামিক ফাউন্ডেশন, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়, মহাদেবপুর উপজেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, উপজেলা ভূমি দফতর, উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা পশু সম্পদ দফতর, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা, উপজেলা একাডেমিক সুপারভিশন ইউনিট, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সল, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন, সমবায় ও স্থানীয় সরকার বিভাগ, উপজেলা সমাজসেবা অধিদফতর, উপজেলা সমবায় অধিদফতর, মহাদেবপুর উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর, উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন দফতরের সদ্য সমাপ্ত ২০০৯ সালে পরিচালিত সব কর্মকান্ডসহ সম্ভাবনা ও সমস্যা তিনি এ পদ্ধতি ব্যবহার করে মাত্র ৪৩ মিনিটের উপস্থাপনায় উপস্থাপন করতে সক্ষম হন।

ড. আকরাম গবেষণাধর্মী এ উপস্থাপনার পর সর্বসাধারণের জন্য তার বিভিন্ন কর্মকান্ডের ওপর সমালোচনামূলক প্রশ্নোত্তর শুরু হয়। প্রাণবন্ত ও জীবনঘনিষ্ঠ এবং প্রায়োগিক ও ব্যবহারিক দিকসম্বলিত আলোচনায় সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ টিমের রিসার্চ ফেলো এবং বাংলাদেশ এনজিওস ফর রেডিও অ্যান্ড কমিউনিকেশনের (বিএনএনআরসি) প্রধান নির্বাহী এএইচএম বজলুর রহমান। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গসহ সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চের গবেষক দলের রিসার্চ ফেলো এবং ‘চেঞ্জ মেকার’-এর নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ তামজিদ-উর-রহমান।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিধি ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম বলেন, আমেরিকার বর্তমান প্রেসিডেন্ট একই পদ্ধতি ব্যবহার করে জনগণের সামনে হাজির হয়েছিলেন তার এক বছরের কর্মকান্ড উপস্থাপনের জন্য। জনগণের সামনে ড. আকরাম হোসেন চৌধুরী একইভাবে আজ উপস্থাপন করলেন আমাদের সামনে তার এক বছরের কর্মকান্ড। তিনি বলেন, যে মডেল মহদেবপুরে দেখান হলো তা সারাদেশে সম্প্রসারিত হওয়া প্রয়োজন।

‘সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ’ পরিচালিত কার্যক্রমটি নওগাঁ-৩ সংসদীয় আসনের অন্য একটি উপজেলা বদলগাছিতেও পরিচালিত হচ্ছে। এটি হবে সারাদেশের সংসদ সদস্যদের জন্য একটি রোল মডেল। এর ফলে মহাদেবপুরে অনুষ্ঠিত এই আইসিটিনির্ভর ‘গণগবেষণা’কে তার প্রধান মেথডলজিক্যাল প্রক্রিয়া হিসেবে নিষ্ঠার সাথে ও সৃষ্টিশীলভাবে অনুসরণ করে এদেশে সাম্প্রতিক গণগবেষণা আন্দোলনে একটি নতুন মাত্রা যোগ করেছে এবং দেশের উন্নয়ন প্রচেষ্টায় আইসিটি গণগবেষণার অবদানের বিরাট সম্ভাবনার আরেকটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত পরিবেশন করেছে। এটা প্রমাণিত হয়েছে, জনগণের মালিকানায় তাদের জীবন-সংগ্রামের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহের কাজে উপজেলা অত্যন্ত মূল্যবান দায়িত্ব পালন করতে পারে। এর জন্য আইসিটিবান্ধব সংসদীয় পরিবেশের পাশাপাশি সংবেদনশীল নেতৃত্ব থাকা প্রয়োজন। তেমনি স্থানীয় জনগণেরও সংগঠিত সচেতনতা ও সামাজিক চাপ থাকা প্রয়োজন, যাতে কমিউনিটি এই দায়িত্ব সম্পর্কে সজাগ ও তৎপর হয়।

দেশব্যাপী এভাবে তৃণমূল মানুষের কাছে তথ্য নিয়ে যাবার ব্যবস্থা ও আন্দোলন করা যেমন জরুরি, পাশাপাশি সমাজের সবাইকে যত দ্রুত সম্ভব সচেতন করে তোলাও সমান জরুরি। সচেতন জনগণ তাদের জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য আধুনিক তথ্যকে যে অনেক বেশি কাজে লাগাতে পারবে একথা বলাই বাহুল্য। ‘সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ’-এর এ জাতীয় কর্মকান্ডের ফলে একজন সংসদ সদস্যের জনপ্রিয়তাই শুধু বাড়বে না, তৃণমূল মানুষরা তাদের জীবন-পথ সন্ধানের প্রত্যাশাও অনেক বাড়াতে পারবে। ফলে এরা যেমন নিজেদের জীবনকে এগিয়ে নেবার সুযোগ অনেক বেশি পাবে, তেমনি এদেশে উন্নয়নের পথ আরো দ্রুততর ও প্রশস্ততর হবে। গণমানুষের কাছে তথ্য নিয়ে যাওয়া ও তার মালিকানা হস্তান্তর করাও তখন অনেক বেশি ফলপ্রসূ হবে।

এ ধরনের উপস্থাপন বাংলাদেশের সব নির্বাচিত স্তরে নিয়ে আসবে নতুন মাত্রা। এ জন্য পরিচালিত ‘সেন্টার ফর ই-পার্লামেন্ট রিসার্চ’-এর দেশজ উদ্যোগ দেশময় ছড়িয়ে দেয়ার এ আন্দোলন গণমানুষদের মধ্যে, সহযোগী ছাত্র-তরুণ-শিক্ষক-সাংবাদিকদের মধ্যে, সংসদ সদস্যদের মধ্যে, উপজেলা চেয়ারম্যানদের ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যদের মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময়, পারস্পরিক সহযোগিতার ফলে গড়ে উঠতে পারে আইসিটিনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ।

কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : zhaquekhan@gmail,com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস