Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > থ্রিডি মডেল বিক্রি করে বাড়তি আয়
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: টংকু আহমেদ
মোট লেখা:৫৩
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১০ - ফেব্রুয়ারী
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
থ্রিডি স্টুডিও ম্যাক্স
তথ্যসূত্র:
মাল্টিমিডিয়া
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
থ্রিডি মডেল বিক্রি করে বাড়তি আয়

গত সংখ্যায় ‘অনলাইন থ্রিডি শপ’ নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা করা হয়েছিল। চলতি সংখ্যায় অন্যতম থ্রিডি মার্কেটপ্লেস ‘টারবো স্কুইড’ সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

থ্রিডি মার্কেটপ্লেস TURBO SQUID

‘টারবো স্কুইড’ হলো অনলাইন থ্রিডি শপগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় ও পুরনো মার্কেটপ্লেস। ওয়েবসাইটটিতে থ্রিডি মডেলের বিক্রির হারও বেশ ভালো। https://www.turbosquid.com সাইটটি ব্রাউজ করে হোম পেজ ওপেন করুন। এই অবস্থায় গেস্ট মেম্বার হিসেবে উপরের দিকের হোম, প্রোডাক্টস ইত্যাদি বাটনে ক্লিক করে ব্রাউজ করতে পারেন।

রেজিস্ট্রেশন

কোনো মডেল আপলোড অথবা ডাউনলোড করতে হলে আপনাকে প্রথমে সাইটটির রেজিস্টার্ড মেম্বার হতে হবে। আর রেজিস্ট্রেশনের জন্য ‘মেম্বার’ বাটনে ক্লিক করুন। লগ-ইন স্ট্যাটাসের পাতায় ‘লগ-ইন’ ও ‘ক্রিয়েট নিউ মেম্বার অ্যাকাউন্ট’ অপশন দুটি দেখা যাবে। ‘ক্রিয়েট নিউ মেম্বার অপশন’-এর রিকোয়েস্টেড নেমের স্থানে আপনার অথবা আপনার কোম্পানির নাম টাইপ করুন। মনে রাখবেন, এই নামটিই হবে মেম্বার অথবা অথোর নেম। সুতরাং আপনি যে নামে সাইটটিতে পরিচিত হতে চান সেটিই লিখুন। এর পরের ঘরে আপনার ই-মেইল (প্রাইভেট) আইডি টাইপ করুন। এরপর পাসওয়ার্ড টাইপ ও রিটাইপ করুন। সবার নিচের ফাঁকা ঘরে আপনি যে ধরনের কাজ করতে চান, ড্রপ ডাউন লিস্ট হতে সেটি সিলেক্ট করুন। ‘I agree to...’ লেখাটির বামের চেক বক্সটিকে চেক করে দিয়ে ডানের ‘সাবমিট’ বাটনে ক্লিক করুন; চিত্র-০১। ২নং ইমেজের মতো নতুন পেজ ওপেন হবে। বামের ‘ওয়েলকাম’ লেখার ওপর মাউস কার্সর নিলে ‘এডিট এভাটার’ লেখাটি দেখাবে; চিত্র-০২। ইচ্ছে করলে এভাটারে ক্লিক করে আপনার অথবা কোম্পানির লোগো বা ছবি ব্যবহার করতে পারবেন। তবে ইমেজটি অবশ্যই jpg, png অথবা gif ফরমেটে এবং বর্গাকার হতে হবে। যেমন ১০০x১০০। পিসির নির্দিষ্ট লোকেশন হতে লোগোটি ব্রাউজ করে ওকে করুন; চিত্র-০৩। এখন আপনি ‘টারবো স্কুইড’ সাইটের একজন রেজিস্টার্ড মেম্বার। আপনার নামের পাশে লোগোটি প্রদর্শিত হবে।


চিত্র-০১


চিত্র-০২


চিত্র-০৩

আপলোড প্রোডাক্ট

আপলোডের জন্য ফাইল প্রস্ত্তত থাকলে আবার মেম্বার বাটনে ক্লিক করুন। ২নং চিত্রের মতো পেজটি ফিরে আসবে। বামের সবার নিচের ‘Sell your product on Turbosquid’ অপশনের ‘Publish and Selling’ লিঙ্কে ক্লিক করুন; চিত্র-০৪। ‘প্রোডাক্ট ম্যানেজার’ পেজ ওপেন হবে। এর আওতায় রয়েছে আপলোড ফাইলস, ক্রিয়েট প্রোডাক্টস এবং এডিট প্রোডাক্টস; চিত্র-০৫। ফাইল আপলোডের জন্য আপলোড লিঙ্কে ক্লিক করুন। এখানকার ‘হেল্প টিপস’টি মনোযোগ সহকারে কয়েকবার পড়লেই আপলোড ও ক্রিয়েট প্রোডাক্টের বিষয়টি পরিষ্কার হবে। বিষয়টি সহজতর করার জন্য এখান থেকে প্রতিবারে একসঙ্গে ১০টি করে ফাইল আপলোড করতে পারবেন। এর মধ্যে থাম্বনেইল হিসেবে ৪০০৪০০ সাইজের jpg ইমেজ এবং মূল ফাইল অর্থাৎ থ্রিডির ফাইল উইন-জিপ বা উইন-রার ফরমেটে আপলোড করতে পারবেন। সুতরাং আপলোডের আগেই কাজগুলো আপনাকে সম্পন্ন করতে হবে। প্রতিটি ব্রাউজ বাটনে ক্লিক করে আপনার নির্দিষ্ট ফাইল বা ইমেজগুলোকে একটি একটি করে ব্রাউজ করুন। ব্রাউজ করা শেষ হলে আপলোড বাটনে ক্লিক করুন। এছাড়া ‘Turbosquid Tentacles’ টুলটি দিয়েও মডেল আপলোড করতে পারেন; চিত্র-০৬। আপলোড শেষ হলে ‘Successfully Uploaded Files’ মেসেজ আসবে এবং নিচে ফাইলগুলোর নাম দেখাবে। আরও ফাইল আপলোড করতে চাইলে একই নিয়মে ব্রাউজ করে কাজটি করে নিন।


চিত্র-০৪


চিত্র-০৫


চিত্র-০৬

ক্রিয়েট ও পাবলিশ প্রোডাক্টস

আপলোড শেষে প্রোডাক্টটিকে ক্রিয়েট ও পাবলিশ করতে হবে। এর জন্য এই পেজের বামের ‘ক্রিয়েট প্রোডাক্টস’ লেখাটিতে ক্লিক করুন; চিত্র-০৭। ক্রিয়েট প্রোডাক্টসের পাতায় আপলোডেড ফাইলগুলোর লিস্ট দেখতে পাবেন, যার প্রত্যেকটির বামে ‘অ্যাড ডেসক্রিপশন’ ও ‘ডিলিট’ নামে দুটি করে বাটন থাকবে। আপনি ইচ্ছে করলে ডিলিট বাটনে ক্লিক করে যেকোনো ভুল বা অপছন্দের ফাইল ডিলিট করতে পারবেন আর পাবলিশ করার জন্য মূল ফাইলের ‘অ্যাড ডেসক্রিপশন’ বাটনে ক্লিক করলে ‘ম্যাক্স’ ফাইল; চিত্র-০৮। প্রোডাক্ট ইনফরমেশনের পেজ ওপেন হবে। আপনার জন্য এই পেজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং ভালোভাবে বুঝে, সতর্কতার সাথে ইনফরমেশনগুলো লিখতে বা সিলেক্ট করতে হবে। প্রথমেই প্রোডাক্টটির নামকরণ করতে হবে। প্রোডাক্ট নেমের ঘরে নামটি লিখুন। মিডিয়া টাইপ হিসেবে ‘থিডি মডেলস’কে সিলেক্ট করুন। কী-ওয়ার্ডের ঘরে পণ্যসংশ্লিষ্ট কী-ওয়ার্ড লিখুন। মডেলের দাম আপনাকেই নির্ধারণ করতে হবে। সাহায্যের জন্য একই ধরনের অন্যান্য মডেলের দাম দেখে নিতে পারেন। তবে খুব বেশি পার্থক্যে মূল্য নির্ধারণ করবেন না। ক্যাটাগরি হিসেবে সঠিক ক্যাটাগরি নির্ধারণ করুন, যেমন একটি মনিটরের মডেলের জন্য ইলেকট্রনিক্স >কমপিউটার >মনিটর, এমনটি হতে পারে। ২য় ক্যাটাগরি হিসেবে এর কাছাকাছি কোনো অপশন সিলেক্ট করুন। শর্ট ডেসক্রিপশনে মডেল সম্পর্কে সংক্ষেপে কিছু লিখুন এবং ফুল ডেসক্রিপশনে টেকনিক্যাল ইনফরমেশনসহ বিস্তারিত লিখুন। মেইন প্রোডাক্টের অ্যাড ফাইলস ঘরের থ্রিডি মডেল ফাইলগুলো সিলেক্ট করে অ্যাড ফাইলস বাটনে ক্লিক করে ফাইলগুলো যুক্ত করে নিন। ফাইল টাইপ হিসেবে নির্দিষ্ট ফরমেটকে সিলেক্ট করে দিন, যেমন ম্যাক্স ফাইলের জন্য 3ds Max (.max) এবং ভার্সন = ৮.০।


চিত্র-০৭


চিত্র-০৮


চিত্র-০৯


চিত্র-১০

টেকনিক্যাল প্রোডাক্ট ইনফরমেশনে জিয়োমেট্রি=পলিগনাল, পলিকাউন্ট=মডেলের মোট পলিগন সংখ্যা, নাম্বার অব ভারটেক্স=মোট ভারটেক্স সংখ্যা টাইপ করুন। টেক্সার ও মেটেরিয়াল ব্যবহার করে থাকলে সে দুটিতে টিকচিহ্ন দিন। ‘থাম্বনেইল’ অপশনের ইমেজগুলোর লিস্ট হতে মডেলের জন্য নির্দিষ্ট ইমেজগুলো কন্ট্রোল (কীবোর্ড) চেপে সিলেক্ট করে ডানের ‘অ্যাড ফাইলস’ বাটনে ক্লিক করলে ইমেজগুলো থাম্বনেইল হিসেবে শো করবে। সব ইনফরমেশন সঠিকভাবে দেয়া হয়েছে কি না একবার চেক করে নিন এবং ‘পাবলিশ’ বাটনে ক্লিক করুন; চিত্র-০৯। মডেলটি কিভাবে ডিসপ্লে হবে সেটা দেখতে চাইলে ‘প্রিভিউ’ বাটনে ক্লিক করে দেখে নিতে পারেন। এরপর পাবলিশ বাটনে ক্লিক করলে আপনার মডেলটি বিক্রির জন্য টারবো স্কুইড শপের ডিসপ্লেতে চলে যাবে। এভাবেই আপনার প্রতিটি মডেল আপলোড করুন। মডেল বিক্রির টাকার কত অংশ এবং কিভাবে পাওয়া যাবে সে বিষয়ে জানব পরবর্তী সংখ্যায়।

কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : tanku3da@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস