Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি ৯.০
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: মোহাম্মদ ইশতিয়াক জাহান
ইমেইল:rony446@yahoo.com:
মোট লেখা:৮৮
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১০ - এপ্রিল
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
অ্যান্টি-ভাইরাস
তথ্যসূত্র:
সিকিউরিটি
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি ৯.০



ইন্টারনেট সিকিউরিটি নিয়ে যখনই সবাই ভাবতে শুরু করে, তখনই বিভিন্ন সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান বা অ্যান্টিভাইরাস প্রস্তুতকারক কোম্পানি নতুন সব অ্যান্টিভাইরাস বা সিকিউরিটি টুল বা আপডেট ফাইল বাজারে ছেড়ে সবাইকে হতবুদ্ধি করে দেয়। অ্যান্টিভাইরাস প্রস্ত্ততকারক কোম্পানি GRISOFT সম্প্রতি AVG Internet Security 9.0-এর নতুন ভার্সন ও শক্তিশালী অ্যাপ্লিকেশন স্যুট বাজারে ছেড়েছে। এ অ্যাপ্লিকেশনে এত সুবিধা রয়েছে, যা আপনার কমপিউটারকে সুরক্ষা দেবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছে GRISOFT। এবারের লেখা এ সিকিউরিটি টুল সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

হ্যাকার, ওয়ার্ম, স্পাইওয়্যার, অ্যাডওয়্যার প্রোভাইডার, ট্রোজান, ভাইরাস ও স্পামের ওপর সবাই কম-বেশি বিরক্ত। কারণ, উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের এসব ভাইরাসের সমস্যায় প্রতিনিয়ত পড়তে হচ্ছে। এদের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য ও কমপিউটারকে সবচেয়ে বেশি সিকিউরিটি দেয়ার জন্যই এভিজির এ টুল বাজারে ছাড়ার প্রধান কারণ। এ টুলের প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এর সাথে সংযুক্ত অবস্থায় একই সাথে পাবেন অ্যান্টিস্পাইওয়্যার টুল, অ্যান্টিভাইরাস, অ্যান্টিস্পাম এবং ফায়ারওয়াল।

ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত থাকা অবস্থায় অন্য সব অ্যান্টিভাইরাসের মতো এ টুলটিও ইন্টারনেট থেকে আপডেট ফাইল স্বয়ংক্রিয়ভাবে কমপিউটারে ডাউনলোড করে অ্যান্টিভাইরাস টুলকে আপডেটেড রাখে ও সিডিউলভিত্তিক কাজ করে থাকে। এ সিকিউরিটি টুলের সাইজ ১১০ মেগাবাইট, যা ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। নিচে এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি টুলের প্রধান ফিচারগুলো তুলে ধরা হয়েছে।



যেসব মডিউল এ টুলের সাথে যুক্ত রয়েছে :

০১. অ্যান্টিভাইরাস :

অ্যান্টিভাইরাস মডিউলটি ভাইরাস, ট্রোজান, ইন্টারনেট ওয়ার্ম কমপিউটার থেকে খুঁজে বের করে মুছে দেবে।

০২. অ্যান্টিস্পাইওয়্যার :

এটি কমপিউটারে কোনো স্পাইওয়্যার বা ম্যালিসিয়াস প্রোগ্রাম ইনস্টল করা থেকে রক্ষা করবে।

০৩. অ্যান্টিস্পাম :

ইনকামিং ও আউটগোয়িং ই-মেইলকে ফিল্টার করবে এবং যদি কোনো স্পাম পেয়ে থাকে তাহলে তা ডিলিট করবে।

০৪. অ্যান্টিরুটকীট :

কমপিউটারে কোনো হিডেন থ্রেট থাকলে তা যেনো কমপিউটারে ছড়িয়ে যেতে না পারে তা থেকে রক্ষা করবে।

০৫. ব্যক্তিগত পরিচয় রক্ষা করা :

আপনার পাসওয়ার্ড, ক্রেডিট কার্ড নম্বর, পার্সোনাল ডাটাসমূহকে অপরিচিত হুমকি থেকে রক্ষা করবে।

০৬. অ্যাক্টিভ সার্ফ শিল্ড :

ইন্টারনেটের কোনো ওয়েবপেজ সংক্রমিত থাকলে তা ব্রাউজ করার সময় কমপিউটারকে উক্ত পেজ থেকে রক্ষা করবে।

০৭. অন্যান্য :

মেসেঞ্জার, ওয়েবপেজ, নেটওয়ার্কের বিভিন্ন ক্ষতি থেকে কমপিউটাকে রক্ষা করতে পারবে।

এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি টুলের অন্যান্য ক্ষমতার মধ্যে হচ্ছে : বিভিন্ন অ্যাডভার্টাইজমেন্ট, স্পাইওয়্যার কুকিজ, রিস্কওয়্যার, পেইড ডায়ালারকে ট্র্যাক করতে পারে। সিডিউল ভিত্তিক স্ক্যানিং, অটোমেটিক ট্র্যাকিং সিস্টেম, স্টার্টআপের সময় কমপিউটার স্ক্যান করা, স্বয়ংক্রিয়ভাবে ট্র্যাকিং কুকিজকে ডিলিট করা এ টুলের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

মূল ফিচার

GriSoft-এর মতে এভিজির এ টুলটি একশত ভাগ ভাইরাস ডিটেকশনের ক্ষমতা রাখে। এভিজি সব ধরনের ভাইরাস, ট্রোজান, ওয়ার্ম থেকে কমপিউটারকে সুরক্ষা দিতে সক্ষম। কমপিউটার ব্যবহারকারীরা যেসব ই-মেইল ক্লায়েন্ট সফটওয়্যার অর্থাৎ এমএস আউটলুক, ইউডোরা, অন্যান্য এসএমটিপি/পপ৩ মেইল ক্লায়েন্ট যেমন আউটলুক এক্সপ্রেসের মেইলকেও চেক করতে সক্ষম। এ টুলটি শুধু ভাইরাস থেকেই কমপিউটারকে সুরক্ষা দেয় না, এটি নেটওয়ার্কের কানেকশনকে মনিটর করে এবং সব ধরনের নেটওয়ার্ক হুমকি থেকে কমপিউটাকে রক্ষা করে থাকে।



এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি ৯.০ কনফিগারেশন

এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি ৯.০ টুলটি ব্যবহার করার জন্য www.grisoft.com ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিন। ডাউনলোড করে অন্যান্য সফটওয়্যারের মতো এটিকে কমপিউটারে খুব সহজেই ইনস্টল করে নিন। ইনস্টলেশনের শেষের দিকে বেশ কিছু কনফিগারেশন আপনাকে ঠিক করে নিতে হবে। যেমন :

০১.
Firewall Configuration Wizard নামে একটি উইন্ডো আসবে, যেখানে কমপিউটারের ব্যবহার করার সিলেকশন সিলেক্ট করতে হবে। এখানে বলা হবে, এভিজিকে আপনার প্রটেকশন ও ফায়ারওয়াল সেটিং সিলেক্ট করতে হবে। এখানে দুই ধরনের অপশন পাবেন। ক. এ ডেস্কটপ কমপিউটার (এ কমপিউটারটি একটিমাত্র নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত হতে পারবে)। খ. এ পোর্টেবল কমপিউটার (ল্যাপটপ, নেটবুক ইত্যাদি। এ কমপিউটারটি বিভিন্ন নেটওয়ার্কের মাধ্যমে যুক্ত হতে পারবে)। আপনার অপশন সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

০২.
আপনার কমপিউটার কিভাবে ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত, তা এখানে উল্লেখ করতে হবে। ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত হওয়ার জন্য এখানে তিন ধরনের অপশন রয়েছে যেমন : ক. Directly via Modem ( single computer)। খ. Directly via wired or wireless router (home network)। গ. Your computer is part of a corporate network। আপনার অপশন সিলেক্ট করে নেক্সট বাটনে প্রেস করুন।

পরবর্তী উইন্ডোতে ফিনিশ বাটনে ক্লিক করে ইনস্টলেশন প্রসিডিউরটি শেষ করুন। ইনস্টলেশন শেষে কমপিউটার রিস্টার্ট হতে দিন। কমপিউটার স্টার্ট হওয়ার সাথে সাথে এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি টুলকে ইন্টারনেট থেকে আপডেট করে নিন।

ব্যবহার

এভিজি ইন্টারনেট সিকিউরিটি টুলের আইকনে ক্লিক করে ওপেন করুন। প্রধান উইন্ডোর ওভারভিউ অপশনে বেশ কিছু অপশন বা সুবিধার লিস্ট আইকন আকারে দেখতে পাবেন। এখানে Anti Virus, Anti Spyware, Link Scanner-এর ডাটাবেজ আউটডেটেড বলা থাকতে পারে। যদি এ ধরনের মেসেজ দেয়া থাকে তাহলে টুলটিকে ইন্টারনেটের সাহায্যে আপডেট করে নিন। ফায়ারওয়াল, ই-মেইল স্ক্যানার, রেসিডেন্ট শিল্ডকে Not Active দেখাবে। এ অপশনগুলো Active করে নিন।

Computer Scanner মেনুতে তিন ধরনের থ্রেট স্ক্যান করার লিস্ট দেখতে পাবেন। যেমন- ০১. কমপিউটার পুরো স্ক্যান করার জন্য Scan whole computer, ০২. নির্দিষ্ট কোনো ফাইল বা ফোল্ডার স্ক্যান করার জন্য রয়েছে Scan specific files or folders, ০৩. অ্যান্টিরুটকীট স্ক্যান করার জন্য রয়েছে Anti Rootkit Scan অপশন। প্রথম ও তিন নম্বর অপশনটি দিয়ে কমপিউটারে স্ক্যান করুন।

সিডিউলভিত্তিক স্ক্যান করতে চাইলে Schedule Scans অপশনটি ব্যবহার করতে পারেন। এ অপশনে গেলে আপনাকে সিডিউল ঠিক করে দিতে হবে। আরো অনেক ধরনের সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে এ টুলের সাথে।

যেহেতু প্রতিনিয়ত নতুন সব অ্যান্টিভাইরাস বা সিকিউরিটি টুল বাজারে আসছে, তাই কোনো লাইসেন্স ভার্সন ব্যবহার করার আগে ইন্টারনেট হতে ডেমো ভার্সন বা ফ্রিওয়্যার ভার্সন ডাউনলোড করে ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : rony446@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস