Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > স্কাইপে ভিডিও কনফারেন্সিং
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: মাহফুজ রহমান
মোট লেখা:৩
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১০ - অক্টোবর
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ইন্টারনেট
তথ্যসূত্র:
ইন্টারনেট
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
স্কাইপে ভিডিও কনফারেন্সিং



স্কাইপ হচ্ছে একটি সফটওয়্যারভিত্তিক যোগাযোগের প্লাটফর্ম, যা ব্যক্তিগত বা বাণিজ্যিক পর্যায়ে কথা বলা ভিডিও বা টেক্সট শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী যোগাযোগের জন্য উচ্চ মান ও সহজে ব্যবহারযোগ্য টুলস প্রদান করে। এ সফটওয়্যারের মূল লক্ষ্য হলো বিশ্বজুড়ে সবার পছন্দসই একটি সহজ যোগাযোগের মাধ্যম প্রতিষ্ঠা করা। এর মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী বিনামূল্যে বিশ্বের যেকোনো স্থানে অবস্থিত একে অন্যের সাথে ভিডিও শেয়ারিং, কথা বলা বা তাৎক্ষণিক মেসেজের মাধ্যমে যোগাযোগ সৃষ্টি করতে পারবে। এমনকি একজন ব্যবহারকারী স্বল্প খরচে বিভিন্ন দেশে মোবাইল বা ল্যান্ডফোনে কথা বলতে পারবেন। স্কাইপের ভাষ্যমতে, তাদের বর্তমানে ১২ কোটি ৪০ লাখ বা ১২৪ মিলিয়ন ব্যবহারকারী আছে এবং তারা আরও জানায় ২০১০-এর প্রথমার্ধে তাদের মোট ৯৫০০ কোটি মিনিট বা ৯৫ বিলিয়ন মিনিট কল হয়েছে যার প্রায় ৪০ শতাংশই ভিডিও কল। এই পরিসংখ্যানই বর্তমানে ইন্টারনেটের এ যুগে স্কাইপের অবস্থান ও জনপ্রিয়তা প্রকাশ করে। স্কাইপ একইসাথে মোবাইল ফোন বা কমপিউটারে ব্যবহারের সুবিধা দেয়ার মাধ্যমে একটি প্লাটফর্ম হিসেবে নিজের অবস্থানকে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে।

স্কাইপ উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য তার দ্বিতীয় বেটা সংস্করণ বাজারে এনেছে যার ভেতরে ও বাইরে এসেছে বিশাল পরিবর্তন এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে এর মাধ্যমে ১০ জনের অংশগ্রহণে ভিডিও কনফারেন্সের ব্যবস্থা করা যাবে। এ সংস্করণটি তার ভালো মানের পাশাপাশি এতে নতুন আউটলুক প্রদান করেছে।

পরিবার, স্বজন, বন্ধু, ব্যবসায়ী, সঙ্গী মোটকথায় প্রয়োজন যাই হোক না কেন এখন একজন মানুষ একইসাথে ৫ জনের সাথে ভিডিও কল করার সুযোগ পাবে।



এই সুবিধাটি ব্যবহারের জন্য ব্যবহারকারীর কাছে মোটামুটি ক্ষমতাসম্পন্ন (ডুয়াল কোর) একটি কমপিউটার থাকতে হবে। ব্যবহারকারী ভিডিও কনফারেন্সিং করতে চাইলে তাকে অবশ্যই ক্যামেরার সাহায্য গ্রহণ করতে হবে। আর এ জন্য কমপিউটারে একটি বিল্ট-ইন ক্যামেরা অথবা একটি এক্সটার্নাল ক্যামেরা সংযুক্ত থাকতে হবে।

তারপর কমপিউটারে স্কাইপের নতুন ৫.০ (Skype 5.0 beta for Windows) ভার্সন ইনস্টল করে নিতে হবে। নতুন এ ভার্সনটি পাওয়া যাবে http://download.cnet.com/skype-for- windows/3000-2349_4-11383572.html থেকে।

যার সাথে ভিডিও কনফারেন্স করতে হবে তার অবশ্যই স্কাইপে একটি অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে। এখন যদি এক্ষেত্রে কারও স্কাইপে অ্যাকাউন্ট না থাকে, তবে সফটওয়্যারটি ইনস্টল করার সময় তার কাছে থেকে স্কাইপ রেজিস্ট্রেশনের সব তথ্য জেনে নিয়ে তার নতুন একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিন। অথবা এই লিঙ্কে http://login.skype.com/account/ signup-form ক্লিক করে তৈরি করে নিতে পারেন নতুন স্কাইপ অ্যাকাউন্ট।

এখন প্রথমেই স্কাইপে লগ ইন করে নিলে ব্যবহারকারী তার প্রোফাইল দেখতে পাবেন। যাকে কল করতে হবে যদি তার নাম স্কাইপের অ্যাড্রেস বুকে থাকে, তবে তার নাম সিলেক্ট করে ভিডিও কল বাটনে ক্লিক করলেই হবে। কিন্তু কারও নাম যদি না থাকে, সেক্ষেত্রে তার স্কাইপ উইন্ডোর উপরের দিকে একটি সার্চ বক্স আছে যেখানে তার নাম ও লোকেশন টাইপ করে দিলে স্কাইপ স্বয়ংক্রিয়ভাবে তার নাম ও লোকেশন খুঁজে বের করে একটি তালিকা দেয়, এর ফলে খুঁজে নিতে পারবেন আপনার কাঙ্ক্ষিতজনকে।



যতক্ষণ পর্যন্ত অপর প্রান্তে আপনার কলটি রিসিভ না করা হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত আপনার কমপিউটার ভিডিও কনফারেন্সের জন্য কলারকে রিং করতে থাকে এবং কলার বিপ টোন শুনতে পাবেন। আপনি যখন ভিডিও আইকনটিতে ক্লিক করবেন, তখন ছোট একটি বৃত্তের মাধ্যমে ভিডিও ক্যামেরা দেখা যাবে এবং তাতে আপনার ছবি ভেসে উঠবে। এখন কাজ হচ্ছে, আপনার চেহারার সাথে ভালোভাবে পয়েন্ট করা যাতে অপরপ্রান্তে আপনার চেহারা পরিষ্কারভাবে দেখা যায়।

অন্যদিকে অপর প্রান্তে যখন আপনার কল আসবে বা আপনাকে কোনো কল রিসিভ করতে হবে তখন Answer নামে একটি অপশন দেখা যাবে। অপর প্রান্তে উপস্থিতজন যদি আপনার ভিডিও কলে সম্মত হন, তবে দুজনেই একটি ছোট বক্সের মতো জায়গায় ভিডিও দেখতে পাবেন। যদি কেউ কলটি রিসিভ করতে না চায়, তবে তাকে ignore বাটনে ক্লিক করতে হবে।

ভিডিও কল করার জন্য ভিডিও কল এবং কনফারেন্স কল করার জন্য কল গ্রুপ নামের অপশন দেখতে পাওয়া যায়।

আপনি চাইলে চেক সেটিংস অপশন থেকে পছন্দমতো বিভিন্ন সেটিংস পরিবর্তন করে নিতে পারেন।

এ ভার্সনটি ব্যবহারকারী শুরু থেকেই দেখতে পাবেন, এটি আগের অন্য ভার্সনগুলোর তুলনায় অনেক বেশি গোছানো এবং পরিপাটি। স্কাইপের মতে, এ ভার্সনটিতে ব্যবহারকারীরা অনেক বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন। তাছাড়াও এ ভার্সনটিতে আছে ‘স্কাইপ হোম’। হোমে যেকোনো ব্যবহারকারী তার প্রোফাইল তৈরি করতে পারবেন, প্রোফাইলে ছবি সংযোজন করতে পারবেন, নিজের মোড মেসেজ বা অবস্থার বার্তা তৈরি করতে পারবেন, পোস্ট করতে পারবেন বা অন্যের মোড মেসেজ পড়তে পারবেন।

স্কাইপ তার ভার্সনের কলের মান আরো উন্নত করেছে, কারণ ভিডিও কনফারেন্সের জন্য কলের মান অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কলের মান যদি ভালো না হয়, তবে কল কনফারেন্স সুবিধার কোনো মাহাত্ম্যই থাকবে না। তাছাড়াও বর্তমান এই সংস্করণে আগের বিভিন্ন ত্রুটি সংশোধন করে তৈরি করা হয়।

স্কাইপ তার নতুন এ ভার্সনটিতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য সংযোজন করেছে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো ইকো বা সাউন্ড টেস্টিং সার্ভিস। এ সুবিধার মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী তার কথা বলা শুরু করার আগে তার কমপিউটারে কথার বা ভয়েস কোয়ালিটি চেক করে নিতে পারবেন। পারবেন স্বয়ংক্রিয় বা অটোমেটিক কল রিকভারি সুবিধা। এ সুবিধার মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী ভিডিও কলে সংযোগরত অবস্থায় যদি কোনো কারণে বিশেষত নেটওয়ার্কে কোনো সমস্যার জন্য কল বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় তবে স্কাইপ এক্ষেত্রে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আগের কলারের সাথে আগের সংযোগ করবে।

স্কাইপের আরেকটি সুবিধার কথা না বললেই নয়, আর তা হলো বিভিন্ন সোস্যাল নেটওয়ার্কিং বা সামাজিক ওয়েবসাইটগুলোর সাথে সংযোগ স্থাপন।

সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে স্কাইপ তার গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন নতুন সুযোগসুবিধা সংযোজনের মাধ্যমে বর্তমান ইন্টারনেটভিত্তিক প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে একটি শক্তিশালী অবস্থান তৈরি করেছে। এছাড়া কেউ স্কাইপ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে চাইলে এই ঠিকানায় www.skype.com ভিজিট করুন।


কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : mahfuz.sust001@gmail.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস