Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > উইকিপিডিয়ার ১০ বছর
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: বেলায়েত হোসেন
মোট লেখা:১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১১ - জানুয়ারী
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
উইকিপিডিয়া
তথ্যসূত্র:
প্রচ্ছদ প্রতিবেদন
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
উইকিপিডিয়ার ১০ বছর


উইকিপিডিয়া। ইন্টারনেটভিত্তিক বহুভাষিক ও মুক্ত কন্টেন্ট দিয়ে তৈরি এক উন্মুক্ত বিশ্বকোষ। এ বিশ্বকোষ সবার সম্পাদনার জন্য উন্মুক্ত এবং সহজে সম্পাদনা করা যায় এমন একটি সম্পাদনা ইন্টারফেস দিয়ে এটি তৈরি করা হয়েছে। ‘উইকিপিডিয়া’ নামটি আদতে উইকি ও এনসাইক্লোপিডিয়া শব্দ দুটির সম্মিলিত রূপ। উইকি শব্দের অর্থ দ্রুত। সাধারণত যেকেউ সম্পাদনা করতে পারে এমন ওয়েবসাইটকে বোঝাতে ‘উইকি’ শব্দটি ব্যবহার হয়। উইকিপিডিয়ার নিবন্ধগুলো ব্যবহারকারীকে ওই বিষয় সম্পর্কে প্রাসঙ্গিক তথ্যসহ সে সম্পর্কিত আরও তথ্য পাওয়া যাবে এমন কিছু উৎসের লিঙ্ক দেয়।

বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অসংখ্য অপরিচিত স্বেচ্ছাসেবীর বিনা পারিশ্রমিকের প্রচেষ্টায় উইকিপিডিয়া গড়ে উঠেছে। ইন্টারনেট সংযোগ আছে এমন যেকেউ উইকিপিডিয়ায় সম্পাদনা করতে পারেন, অবশ্য নির্দিষ্ট কিছু পাতা ছাড়া, যেগুলো অবাঞ্ছিত সম্পাদনা ও ধ্বংসপ্রবণতা থেকে রক্ষার্থে সুরক্ষিত করে রাখা হয়েছে। ব্যবহারকারীরা নিজেদের ইচ্ছেমতো, অজ্ঞাত ব্যবহারকারী হিসেবে কোনো অ্যাকাউন্ট না খুলে, বা নিজের বা কোনো ছদ্মনামে অ্যাকাউন্ট খুলেও সম্পাদনা করতে পারেন। যে মৌলিক নীতিমালা মেনে উইকিপিডিয়া পরিচালিত হয়, তা ‘পঞ্চস্তম্ভ’ নামে পরিচিত। একটি মানসম্পন্ন বিশ্বকোষ গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে উইকিপিডিয়ার ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন নীতিমালা ও নির্দেশাবলী তৈরি করেছেন। যদিও উইকিপিডিয়ায় সম্পাদনা শুরুর পূর্বে সব নীতিমালা সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে অবগত হওয়ার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।



২০০১ সালে উইকিপিডিয়ার যাত্রা শুরু থেকে দ্রুত বেড়ে এটি এখন বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ রেফারেন্স ওয়েবসাইটে পরিণত হয়েছে। অক্টোবর ২০১০ পর্যন্ত পরিচালিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী প্রতি মাসে বিশ্বের প্রায় ৪০ কোটি ৮০ লাখ মানুষ উইকিপিডিয়া ওয়েবসাইট ভিজিট করছেন। এছাড়াও ২৭০টিরও বেশি ভাষার ১ কোটি ৭৯ লাখেরও বেশি নিবন্ধে সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন প্রায় ৯১ হাজারেরও বেশি অবদানকারী। এর মধ্যে এককভাবে সবচেয়ে বড় ইংরেজি উইকিপিডিয়ার সর্বমোট নিবন্ধ সংখ্যা প্রায় ৩৫ লাখ। প্রতিদিন বিশ্বের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মানুষ ছোট-বড় শত শত সম্পাদনার মাধ্যমে উইকিপিডিয়ার এই বিপুল জ্ঞানভান্ডারকে সমৃদ্ধ করে চলেছেন। সব বয়স, সংস্কৃতি ও পেশার মানুষ এখানে নিবন্ধের অংশ, তথ্যসূত্র, ছবি এবং অন্যান্য মিডিয়া সম্পাদনা করতে পারেন। এক্ষেত্রে কে সম্পাদনা করছেন, অর্থাৎ তার বিশেষত্ব কী বা যোগ্যতা কী, তার চেয়ে তিনি কী সম্পাদনা করেছেন সেটিই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যা দেখা হয়, তা হচ্ছে সম্পাদনাটি আদৌ উইকিপিডিয়ার নীতিসিদ্ধ কী না। এসব নীতির মধ্যে আছে যে তথ্য সংযুক্ত করা হয়েছে, তা নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্রের মাধ্যমে যাচাইযোগ্য কী না, সম্পাদনাকারীর নিজস্ব বিশ্বাস ও মতামত মুক্ত কী না, অর্থাৎ লেখার টোন নিরপেক্ষ কী না, লেখাটি কপিরাইট বাধ্যবাধকতামুক্ত কী না। এছাড়াও জীবিত ব্যক্তির ওপর লিখিত নিবন্ধের ক্ষেত্রে সংযোজিত তথ্যটি গুরুত্ববহ, বা বিশ্বকোষীয় কী না, তাও যাচাই করা হয়। কোনো একটি অনাকাঙ্ক্ষিত সম্পাদনা কোনো নিবন্ধকে স্থায়ীভাবে নষ্ট করে দিতে পারে না, কারণ সফটওয়্যার সবসময়ই পূর্ববর্তী সম্পাদনাগুলো নিবন্ধের ইতিহাসে সংরক্ষণ করে এবং খুব সহজেই একটি অনাকাঙ্ক্ষিত সম্পাদনা বাতিল করে তা পূর্বের অবস্থানে ফিরিয়ে নেয়া সম্ভব। বিভিন্ন অভিজ্ঞ সম্পাদনাকারী এই সম্পাদনাগুলোকে নজরে রাখেন এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে গঠনমূলক সম্পাদনার সুরক্ষা নিশ্চিত করেন। আর সম্পাদনার এই মহাযজ্ঞটি সবাই শুরু করেছেন, পাতার ওপরে থাকা ‘সম্পাদনা’ লিঙ্কটিতে একটি সাধারণ ক্লিক করার মাধ্যমে। উইকিপিডিয়া একটি সহযোগিতামূলক প্রকল্প, যা কাগজে ছাপা বিশ্বকোষ থেকে বিভিন্ন দিক থেকে আলাদা। কাগজে ছাপা না হওয়ায় এটি নিত্য পরিবর্ধনশীল ও হালনাগাদ করা হচ্ছে। বিভিন্ন ঐতিহাসিক বিষয়ে কয়েক মিনিটের মধ্যেই তথ্য যুক্ত হচ্ছে বা নতুন নিবন্ধ তৈরি হচ্ছে; কাগজে ছাপা বিশ্বকোষের ক্ষেত্রে যা কয়েক মাস থেকে বছর পর্যন্ত লাগতে পারে। এছাড়াও সময়ের সাথে সাথে বার বার সম্পাদিত পুরনো নিবন্ধগুলো আরও বেশি সমৃদ্ধ ও ভারসাম্যপূর্ণ হয়ে ওঠে। যদিও কিছু ক্ষেত্রে নতুন তৈরি নিবন্ধগুলোতে ভুল, অবিশ্বকোষীয়, বা ধ্বংসপ্রবণ তথ্যাদি সন্নিবেশিত হতে দেখা যায়। কিন্তু সচেতন প্রদায়কদের কার্যকর নজরদারি, সদ্য সংযোজিত এসব ভুল তথ্য শনাক্তকরণ ও দূরীকরণে ভূমিকা রাখে।



উইকিপিডিয়ার সব নীতিমালা ও নির্দেশাবলী সংক্ষেপে নিচের পঞ্চস্তম্ভের মাধ্যমে প্রকাশ করা যায় :

এক :
উইকিপিডিয়া একটি অনলাইন বিশ্বকোষ এবং একই সাথে একটি উন্মুক্ত বিশ্বকোষ রচনা প্রকল্প। এটি একাধারে একটি সাধারণ ও বিশেষায়িত বিশ্বকোষ। অন্যদিকে এই বিশ্বকোষে বর্ষপঞ্জিও অন্তর্ভুক্ত। উইকিপিডিয়ার নিবন্ধ কোনো মৌলিক গবেষণা হতে পারবে না এবং নিবন্ধে সঙ্কলিত তথ্য যাচাইযোগ্য হতে হবে। উইকিপিডিয়া ব্যক্তিগত মতামত, অভিজ্ঞতা বা যুক্তি উপস্থাপনের স্থান নয়। বাছবিচারহীন তুচ্ছ তথ্যের সংগ্রহও এটি নয়। উইকিপিডিয়াকে ব্যক্তিগত বক্তৃতামঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করা যায় না। এতে অবদান রাখতে হলে কিছু নিয়মনীতি মেনে চলতে হয়। উইকিপিডিয়ার কর্মপদ্ধতি নৈরাজ্যমূলক বা গণতান্ত্রিক নয়। এটি কোনো ওয়েব নির্দেশিকা নয়। এটি কোনো অভিধান, সংবাদ মাধ্যম বা তথ্য-উৎসের দলিলও নয়; এই তিন ধরনের কাজের জন্য আপনি উইকিপিডিয়ার এই সহপ্রকল্পগুলোতে অবদান রাখতে পারেন : উইকিঅভিধান, উইকিসংবাদ এবং উইকিসঙ্কলন।

দুই :
উইকিপিডিয়া নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করে। নিবন্ধকে এখানে একপেশে দৃষ্টিভঙ্গি থেকে মুক্ত রাখার চেষ্টা করা হয়। কখনো কখনো এর জন্য ভিন্ন ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গির উপস্থাপন প্রয়োজন; এক্ষেত্রে দৃষ্টিভঙ্গিকে যথাযথভাবে উপস্থাপন করতে হবে; কার বা কাদের দৃষ্টিভঙ্গি তার উল্লেখ করতে হবে এবং কোনো একটি দৃষ্টিভঙ্গিকে ‘সঠিক’ বা ‘সবচেয়ে ভালো’ হিসেবে উপস্থাপন করা যাবে না, যতক্ষণ না তা তথ্যসূত্র দিয়ে প্রমাণিত হয়। তথ্যের বিপরীতে যথাসম্ভব যাচাইযোগ্য ও নির্ভরযোগ্য উৎসের উল্লেখ প্রয়োজন, বিতর্কিত বিষয়ের ওপর যা বিশেষভাবে প্রযোজ্য। নিরপেক্ষতা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হলে নিবন্ধে ‘বিতর্কিত’ ট্যাগ জুড়ে দিয়ে আলোচনার পাতায় এর বিস্তারিত আলোচনা ও বিতর্ক নিরসন নীতি অনুসরণ প্রয়োজন।

তিন :
উইকিপিডিয়া একটি মুক্ত আধেয়, যা যেকেউ সম্পাদনা করতে পারেন। এর সব লেখা GNU Free Documentation License (GFDL) লাইসেন্সের আওতায় রয়েছে এবং সে অনুযায়ী সংযোগ ও বিতরণযোগ্য। মনে রাখবেন নিবন্ধগুলো যেকেউ পরিবর্তন করতে পারে এবং কোনো নিবন্ধের ওপর একক কোনো ব্যক্তির নিয়ন্ত্রণ নেই; তাই আপনার দেয়া যেকোনো লেখা নির্মমভাবে সম্পাদনা হতে পারে এবং কমিউনিটির যেকেউ তা পুনঃবিতরণ করতে পারে। এমন কোনো লেখা এখানে লিখবেন না যা কপিরাইট লঙ্ঘন করে বা এমন লাইসেন্স করা লেখা দেবেন না, যা GFDL এবং ক্রিয়েটিভ কমন্স অ্যাট্রিবিউশন/শেয়ার-অ্যালাইক লাইসেন্সের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ।

চার :
উইকিপিডিয়ানরা পরস্পরের সাথে অবশ্যই সশ্রদ্ধ ও সভ্য আচরণ বজায় রাখবেন। আপনার সহকর্মী উইকিপিডিয়ানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন এবং ভদ্র আচরণ করুন, এমনকি আপনার মতের অমিল হলেও। উইকিপিডিয়ার শিষ্টাচার প্রয়োগ করুন এবং ব্যক্তিগত আক্রমণ থেকে বিরত থাকুন। ঐকমত্য হওয়ার চেষ্টা করুন এবং সম্পাদনাযুদ্ধ পরিহার করুন। মনে রাখবেন, উইকিপিডিয়ায় বহু নিবন্ধ রয়েছে যার ওপর কাজ করতে হবে এবং এ বিষয়ে আলোচনা করুন। বিশ্বস্ততার সাথে আচরণ করুন, উইকিপিডিয়ায় কোনো বিষয় সুস্পষ্ট করতে কখনই বাধা দেবেন না এবং অন্যের বিশ্বস্ততার প্রতি আস্থা রাখুন। যেকোনো বিষয়ে খোলাখুলি আলোচনা করুন এবং অন্যকে সাদরে আমন্ত্রণ জানান।

পাঁচ :
উইকিপিডিয়ায় কোনো কঠোর নিয়ম নেই। উইকিপিডিয়ার নিয়মনীতি পাথরে খোদাই করা কোনো স্থায়ী নিয়ম নয়, আসলে নিয়মের অন্তর্নিহিত অর্থই নিয়মের চেয়েও ভালো ফল দেয়। নিবন্ধ সম্পাদনায় সাহসী হোন এবং ভুল করার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন হবেন না। আপনার প্রচেষ্টা নিখুঁত হওয়ার প্রয়োজন নেই; আগের সংস্করণ সংরক্ষিত রয়েছে, তাই কোনো ক্ষতিই এখানে অপূরণীয় নয়।

উইকিপিডিয়ার সহযোগী প্রকল্পসমূহ

উইকিঅভিধান :

উইকিঅভিধান হলো উইকিপিডিয়ার একটি সহপ্রকল্প। এর লক্ষ্য একটি বহুভাষিক অভিধান তৈরি করা। অর্থাৎ, এই অভিধানে কোনো একটি শব্দের অর্থ প্রচলিত সব ভাষায় পাওয়া যাবে। এখানে সাধারণ অভিধানের মতো শুধু লিখিত অনুবাদ নয়, বরং দেয়া শব্দের উচ্চারণ, অনুবাদ, ব্যুৎপত্তিগত তথ্য ও এর সাথে সম্পর্কযুক্ত আরও শব্দ, উদ্বৃতি এবং প্রবচনগুলোও অন্তর্ভুক্ত থাকবে। প্রকল্পটি চালু হয় ২০০২ সালের ডিসেম্বরের এবং ২০১০ সালের অক্টোবর নাগাদ ১৫০টিরও বেশি ভাষায় এটি বিস্তৃতি লাভ করে। উইকিঅভিধানের সবচেয়ে বড়ো সংগ্রহটি হলো এর ইংরেজি সংস্করণ, যেখানে ৪০০টিরও বেশি ভাষায় প্রায় ২১ লাখ ৭২ হাজারেরও বেশি ভুক্তি রয়েছে। এর পরেই ভুক্তির দিক থেকে প্রথম দিকে রয়েছে ফরাসি, চীনা ও লিথুনীয় সংস্করণ। এদের ভুক্তিসংখ্যা যথাক্রমে ১৯ লাখ, ৯ লাখ ৪০ হাজার ও ৫ লাখ ৪০ হাজারেরও বেশি।

উইকিউক্তি :

উইকিউক্তি হচ্ছে বিভিন্ন বিখ্যাত মানুষ, বই, বক্তৃতা, চলচ্চিত্র, অথবা বুদ্ধিবৃত্তিক যেকোনো উদ্ধৃতির একটি সংগ্রহশালা। এছাড়াও বিভিন্ন প্রবাদ, কবিতার পঙ্ক্তি এবং স্লোগানও এখানে সংগ্রহ করা হয়। ২০০৩ সালের জুলাই মাসে এই প্রকল্পটি শুরু হয় এবং ২০১০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত এই প্রকল্পের অধীনে ৭৫টি ভাষায় ১,১৩,৫৬৪টিরও বেশি পাতা তৈরি হয়েছে। এর সবচেয়ে বড় সংগ্রহটি হলো উইকিউক্তির ইংরেজি সংস্করণ, যেখানে পাতার সংখ্যা ১৮,০০০-এরও বেশি। পরবর্তী অবস্থানে রয়েছে উইকিউক্তির পোলীয়, ইতালীয় ও জার্মান সংস্করণ, যার প্রতিটিতে প্রায় ৭,৫০০-এর বেশি পাতা রয়েছে।

উইকিসঙ্কলন :

উইকিসোর্স হলো একটি বহুভাষী প্রকল্প। এর উদ্দেশ্য হলো উন্মুক্ত লেখাগুলোকে একত্র করা। তবে এই প্রকল্পে ক্লাসিক গল্প, আইন এবং অন্যান্য মুক্ত লেখা সংগ্রহের পাশাপাশি এসব লেখাকে বিভিন্ন ভাষায় অনুবাদের ভিত্তি হিসেবেও তৈরি করা হয়েছে। একদম শুরুতে হিব্রু ব্যতীত বাকি সব ভাষার জন্য একটিই মাত্র উইকিপ্রকল্প কাজ করতো। কিন্তু এখন উইকিসোর্সের বেশ কয়েকটি ভিন্ন ভাষার সংস্করণ রয়েছে।

এই প্রকল্পটি শুরু হয়েছিল ২০০৩-এর নভেম্বরে। ২০১০ সালের অক্টোবর নাগাদ এর অধীনে মোট ৮৮০০০০টির মতো লেখা সংগ্রহ করা হয়। সবচেয়ে বড় সংগ্রহটি হলো ইংরেজি ভাষায়, যার ভুক্তিসংখ্যা ১৫০০০০টির মতো। এছাড়া রুশ এবং চীনা ভাষার সংস্করণে ১০০০০০টির মতো করে ভুক্তি রয়েছে।

উইকিপ্রজাতি :

উইকিস্পেসিস হলো একটি উইকিভিত্তিক প্রকল্প, যার লক্ষ্য হলো জীবের বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাসের একটি সমৃদ্ধ তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা। ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়া এই প্রকল্পটিতে ২০১০ সালের অক্টোবরের মধ্যে ২৪০০০০টি ভুক্তি যুক্ত হয়। পরবর্তিতে ‘এনসাইক্লোপিডিয়া অব লাইফ’-এর সাথে উইকিস্পেসিসের সমন্বয় করার একটি পরিকল্পনা রয়েছে।

উইকিসংবাদ :

২০০৪ সালের ডিসেম্বরে এই প্রকল্প চালু হয়। এর মূল লক্ষ্য হলো বিস্তৃত বিষয়বস্তু নিয়ে সংবাদ পরিবেশন করা। ২০১০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত ২৯টি ভিন্ন ভাষায় উইকিনিউজের সংস্করণ প্রকাশ পেয়েছে এবং এখান থেকে ১৪০০০০টিরও বেশি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ইংরেজিসহ আরও কয়েকটি ভাষার উইকিনিউজ সংস্করণের সংবাদ আরএসএস ফিডের মাধ্যমেও পাওয়া যায়। এ সব নিবন্ধ দুনিয়াজুড়ে অসংখ্য অবদানকারী বিভিন্ন উৎস থেকে সংগ্রহ করে এবং সারসংক্ষেপ আকারে প্রকাশ করে। প্রতিটি নিবন্ধই নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গি থেকে লিখতে হয়।

উইকিবিশ্ববিদ্যালয় :

এই উইকি প্রকল্পটির লক্ষ্য হলো শিক্ষণ উপকরণ তৈরি করা এবং পাশাপাশি গবেষণার ব্যবস্থা করা। এর যাত্রা শুরু হয়েছিল ১৫ আগস্ট ২০০৬ সালে ইংরেজি এবং জার্মান সংস্করণের মাধ্যমে। এই প্রকল্পের নামে ‘ভার্সিটি’ শব্দটি থাকায় মনে হতে পারে এটি শুধু বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ব্যবহারকারীদের জন্য তথ্য সরবরাহ করবে। কিন্তু আসলে বিষয়টি সেরকম নয়। এই প্রকল্প সব ব্যবহারকারীর শিক্ষা উপকরণ দিয়ে সাহায্য করার উদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি। এর বিস্তৃতি দিন দিন বাড়ছে। তবে এর মূল ভিত্তি হলো ‘করার মাধ্যমে শেখা’ অথবা ‘অভিজ্ঞতার মাধ্যমে শেখা’।

২০১০ সালের অক্টোবর নাগাদ এই প্রকল্পের অধীনে ১২টি ভিন্ন ভাষায় মোট ৩০০০০টির বেশি শিক্ষণ উৎসের ভুক্তি তৈরি করা হয়। এর ইংরেজি সংস্করণে রয়েছে ১৩০০০ এবং ফ্রেঞ্চ ও জার্মান ভাষায় প্রতিটিতে ২০০০টির মতো ভুক্তি রয়েছে।

উইকিমিডিয়া কমন্স :

এই উইকিভিত্তিক প্রকল্পের লক্ষ্য মুক্ত আলোকচিত্র, নকশা, ম্যাপ, ভিডিও, অ্যানিমেশন, গান, শব্দ এবং অন্যান্য উন্মুক্ত মিডিয়ার একটি সংগ্রহশালা গড়ে তোলা। এটি একটি বহুভাষী প্রকল্প এবং এটি বিভিন্ন উইকিমিডিয়া প্রকল্পের কেন্দ্রীয় সংগ্রহশালা হিসেবে ব্যবহার হয়। এ প্রকল্পটি শুরু হয়েছিল ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে।

বাংলা ভাষায় বর্তমানে নিচের উইকিমিডিয়া প্রকল্পগুলো চালু রয়েছ :

প্রকল্প-----স্থানীয় নাম-----ঠিকানা

উইকিপিডিয়া-------বাংলা উইকিপিডিয়া----bn.wikipedia.org
উইকিসঙ্কলন--------উইকিসঙ্কলন----------bn.wikisource.org
উইকিঅভিধান------উইকিঅভিধান--------bn.wiktionary.org
উইকিবই-----------উইকিবই-------------bn.wikibooks.org

বাংলা উইকিপিডিয়া :

বাংলা উইকিপিডিয়া হলো বাংলা ভাষায় প্রচলিত বৃহত্তম উইকি এবং উইকিমিডিয়ার বাংলা প্রকল্পসমূহের মধ্যে সবচেয়ে সক্রিয়। ডিসেম্বর ২০১০ পর্যন্ত বাংলা উইকিপিডিয়ার সর্বমোট নিবন্ধসংখ্যা প্রায় ২২ হাজার। এছাড়াও বাংলা উইকিপিডিয়ার মোট পৃষ্ঠাসংখ্যা ১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি এবং নিবন্ধিত ব্যবহারকারীর সংখ্যা সাড়ে ১৭ হাজারের বেশি। রক্ষণাবেক্ষণকার্য পরিচালনার বাংলা উইকিপিডিয়ায় বর্তমানে ৯ জন প্রশাসক ও ১ জন ব্যুরোক্র্যাট রয়েছেন। প্রশাসকদের মাঝে বর্তমানে ৫ জন সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন। বাংলা উইকিপিডিয়ার ৯ জন প্রশাসকের ২ জন ভারতীয় ও বাকিরা বাংলাদেশী। উইকিপিডিয়াগুলোর তালিকায় বাংলা উইকিপিডিয়ার গভীরতার (উইকিপিডিয়ার মান নির্ণয়ের একটি একক) মান ১০২, যা ভারতীয় ভাষাসমূহের মধ্যে দ্বিতীয়। এই তালিকায় প্রথম অবস্থানে রয়েছে মালয়লাম উইকিপিডিয়া। বাংলা ইন্টারফেস ও হোমপেজ সহকারে বাংলা উইকিপিডিয়ার নিজস্ব মোবাইল সংস্করণও বিদ্যমান, যা পাওয়া যাবে bn.m.wikipedia.org ঠিকানায়। ব্যবহারকারীদের ব্রাউজ ও সম্পাদনায় আরও সুবিধা দিতে ২০১০ সালের ৩০ জুলাই বাংলা উইকিপিডিয়ার ওয়েব ইন্টারফেস পূর্বের ‘মনোবুক’ থেকে ‘ভেক্টর’-এ উন্নীত করা হয়।



বাংলা উইকিসঙ্কলন :

উইকিমিডিয়ার বাংলা প্রকল্পগুলোর মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ প্রকল্পটি হচ্ছে বাংলা উইকিসঙ্কলন। ২০০৭ সালের উইকিম্যানিয়ার পর ঐ বছরেরই সেপ্টেম্বর মাসে বাংলা উইকিসঙ্কলন চালু হয়। সর্বকনিষ্ঠ হলেও এটি সক্রিয়তার দিক থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বাংলা উইকিপ্রকল্প। প্রথম অবস্থানে রয়েছে বিশ্বকোষ রচনার প্রকল্প বাংলা উইকিপিডিয়া। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মতো বিখ্যাত বাংলা সাহিত্যিকের বিভিন্ন কাজ বাংলা উইকিসঙ্কলনে রয়েছে। সম্প্রতি বাংলা উইকিসঙ্কলন ৫ হাজার পাতার মাইলফলক পার করেছে। এছাড়া বিষয়বস্তু পাতার সংখ্যা অনুযায়ী মোট ৫৬টি ভাষার উইকিসঙ্কলনের মধ্যে এই প্রকল্পের অবস্থান ২১।

বাংলায় অন্যান্য প্রকল্প :

উইকিপিডিয়া ছাড়াও উইকিসঙ্কলন, উইকিঅভিধান এবং উইকিবই প্রকল্পগুলোও বাংলা ভাষায় সক্রিয় রয়েছে। যদিও উইকিপিডিয়া ছাড়া অন্য প্রকল্পগুলোর সক্রিয়তার হার বেশ কম। সম্প্রতি উইকিপিডিয়া কমিউনিটিতে এই প্রকল্পগুলোতেও অংশগ্রহণকারী বাড়ানোর জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। উইকিপিডিয়াতে অংশগ্রহণকারীরা নিয়মিতভাবে উন্মুক্ত লাইসেন্সের আওতায় স্থানীয় বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের ছবি উইকিমিডিয়া কমন্সে আপলোড করে থাকেন। এছাড়াও সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত বার্তাগুলোর শতভাগ এবং মিডিয়াউইকি সফটওয়্যারের ইন্টারফেস বার্তাগুলোর শতকরা ৮৫ ভাগেরও বেশি বার্তা স্থানীয়করণ করা হয়েছে ট্রান্সলেটউইকি ডট নেট ওয়েবসাইটে। এছাড়াও সব ওয়েবসাইটে প্রযোজ্য বিভিন্ন নোটিসবার্তাসমূহের অনুবাদেও বাংলা সম্প্রদায় মেটা-উইকিতে সক্রিয়ভাবে কাজ করে। এ ধরনের বার্তাগুলোর মধ্যে আছে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের তহবিল গঠনমূলক বিভিন্ন ব্যানার, বার্তা ও ইন্টারফেস।

উইকিপিডিয়ার ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিশেষ আয়োজন

জানুয়ারি ১৫, ২০১১ তারিখে উইকিপিডিয়া তার প্রথম দশক পূর্ণ করতে যাচ্ছে। উইকিপিডিয়ার এই জন্মদিন উপলক্ষে শুধু উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনই নয়, বিশ্বের ১২০টিরও বেশি শহরে উইকিপিডিয়ান কমিউনিটিগুলো হাতে নিয়েছে বিভিন্ন কর্মসূচি, আয়োজন করেছে বিভিন্ন অনুষ্ঠান। এ অনুষ্ঠানগুলোর দুটি উদ্দেশ্য- এক. উইকিপিডিয়ার জন্মদিন উদ্যাপন, দুই. উইকিপিডিয়া সম্পর্কে স্থানীয় জনগণকে শিক্ষিত করে তোলা। বাংলাদেশের ঢাকার উইকিপিডিয়ান কমিউনিটিও এ উপলক্ষে আয়োজন করেছে বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান। এর মধ্যে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের আয়োজনে উইকিপিডিয়ার জন্য ফুট ওয়ার্ক, উইকিপিডিয়া ওয়ার্কশপ, উইকিপিডিয়ার জন্য ঘুড়ি উড়ানোসহ রয়েছে উইকিপিডিয়ার জন্মদিনের অনুষ্ঠান। এছাড়াও ঢাকার বাইরের উইকিপিডিয়ানরা বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। উইকিপিডিয়ার ১০ বছর পূর্তি উদ্যাপনের বিস্তারিত জানতে দেখুন http://ten.wikipedia.org সাইটে।

উইকিপিডিয়ার ইতিহাস

পৃথিবীর সব তথ্য এক স্থানে জড়ো করার ধারণাটি প্রাচীনকালের আলেক্সান্দ্রিয়া ও পারগামনের গ্রন্থাগারের সময় থেকে চলে আসছে, কিন্তু সাধারণভাবে ব্যবহার্য ও ব্যাপক বিস্তৃত ছাপানো বিশ্বকোষের ধারণাটির উদ্ভব ডেনিশ ডিডেরট ও ১৮শ শতকে অপরাপর বিশ্বকোষবিদের সময়ের কিছু আগে। ছাপাখানার বদলে স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে অধিকতর ব্যবহারোপযোগী বিশ্বকোষের ধারণা পাওয়া যায় মানডেনুয়েম ইনস্টিটিউটের ও [the Mundaneum institution] প্রতিষ্ঠাতা পল ওলের বই Traité de documentation (১৯৩৪), এইচ জি ওয়েলসের বই ওয়ার্ল্ড ব্রেইন (১৯৩৮) এবং ভ্যানেভার বুশ নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘এস উই মে থিংক’ (১৯৪৫) থেকে। এক্ষেত্রে আরেকটি মাইলফলক হলো ১৯৬০ সালে আরম্ভ হওয়া টেড নেলসনের হাইপার টেক্সট ডিজাইন Project Xanadu. এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকার মতো পূর্বের অন্য বিশ্বকোষগুলো ছিল বই আকারে, কিন্তু ১৯৯৩ সালে মাইক্রোসফটের প্রকাশিত এনকার্টা সিডি আকারেও প্রকাশ করা হয় এবং এতে হাইপারলিঙ্ক দেয়া ছিল। ওয়েবের বিকাশের সাথে সাথে অনেকেই ইন্টারনেটভিত্তিক বিশ্বকোষ তৈরির চেষ্টা করেন। রিচার্ড গেটস ১৯৯৩ সালে Interpedia নামে এ ধরনের একটি প্রকল্প প্রস্তাব করেন; কিন্তু এই প্রকল্পটি বিশ্বকোষের কোনো উপাদান সংগ্রহের পূর্বেই শেষ হয়ে যায়। মুক্ত সফটওয়্যারের প্রবক্তা রিচার্ড স্টলম্যান ১৯৯৯ সালে একটি মুক্ত ও সর্বজনীন বিশ্বকোষ ও শিক্ষা উপকরণের প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন। তার প্রকাশিত লেখার লক্ষ্য ছিল দিকনির্দেশনামূলক- ‘মুক্ত বিশ্বকোষের কী করা উচিৎ, এর ব্যবহারকারীদের কী ধরনের স্বাধীনতা দেয়া দরকার এবং আমাদের কিভাবে এটি শুরু করা দরকার।’ উইকিপিডিয়া শুরুর দুই দিন পর ২০০১ সালের ১৭ জানুয়ারি ফ্রি সফটওয়্যার ফাউন্ডেশনের (FSF) গনুপিডিয়া প্রকল্প নুপিডিয়ার (উইকিপিডিয়ার প্রথম প্রকল্প) প্রতিযোগী হিসেবে অনলাইনে প্রকাশিত হয়, কিন্তু বর্তমানে FSF সবাইকে উইকিপিডিয়া ব্যবহারে এবং এতে অবদান রাখতে উৎসাহিত করে।


উইকিপিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা জিমি ওয়ালেস

২০০০

২০০০ সালের মার্চ মাসে নুপিডিয়া প্রকল্প শুরু হয়। এর উদ্দেশ্য ছিল বিশেষজ্ঞদের লেখা প্রবন্ধ সঙ্কলন করে সেগুলো বিনামূল্যে ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া। জিমি ওয়ালেস, ল্যারি স্যাঙ্গারকে প্রধান সম্পাদক হিসেবে নিয়ে নুপিডিয়া প্রকল্পটি শুরু করে; এর অর্থায়ন করেন বমিস।

২০০১

২০০১ সালে নুপিডিয়ার সহপ্রকল্প হিসেবে উইকিপিডিয়ার যাত্রা শুরু হয়, এর উদ্দেশ্য ছিল পুনবীক্ষণ প্রক্রিয়ায় দেবার আগে নিবন্ধসমূহে পারস্পরিক সহযোগিতার সুযোগ করে দেয়া। wikipedia.com এবং wikipedia.org ডোমেইন নাম দুটি ১২ জানুয়ারি এবং ১৩ জানুয়ারি ২০০১ পর্যায়ক্রমে নিবন্ধন করা হয়; wikipedia.org একই দিনে অনলাইনে প্রকাশ করা হয়; প্রকল্পটি ১৫ জানুয়ারি (উইকিপিডিয়া দিবস) আনুষ্ঠানিকভাবে আরম্ভ করা হয়; প্রথম দিককার আন্তর্জাতিক (অন্যান্য ভাষার) উইকিপিডিয়াগুলো তৈরি করা হয় (মার্চ-মে : ফরাসি, জার্মান, ক্যাটালান, সুইডিশ); নিরপেক্ষ দৃষ্টিভঙ্গির নীতি (NOPV) প্রণীত হয়; প্রথম স্ল্যাশডটার ওয়েভ আসে ২৬ জুলাই। উইকিপিডিয়া সম্পর্কে প্রথম নিবন্ধটি কাকতালীয়ভাবে ওয়েলস অন সানডে পত্রিকায় ২০০১-এর আগস্টে প্রকাশিত হয়। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর হামলার ঘটনায় উইকিপিডিয়ার হোমপেজে ব্রেকিং নিউজ একের পর এক প্রকাশিত হতে থাকে, সেই সাথে সম্পর্কযুক্ত নিবন্ধসমূহের লিঙ্কসহ তথ্যছকও প্রকাশিত হতে থাকে।

২০০২

এই বছর বমিসের অর্থায়ন সমাপ্ত হয় এবং ল্যারি স্যাঙ্গার বিদায় নেন। স্প্যানিশ উইকিপিডিয়ার ওপর ভিত্তি করে এনসাইক্লোপিডিয়া লিবারে তৈরি হয় এবং প্রথমবারের মতো বহনযোগ্য মিডিয়াউইকি সফটওয়্যার তৈরি হয়। স্বয়ংক্রিয় কাজের জন্য বট সংযোজন করা হয়। জিমি ওয়ালেস সুনিশ্চিত করেন উইকিপিডিয়া কখনোই অর্থায়নের জন্য বিজ্ঞাপন প্রচার করবে না। উইকিপিডিয়ার প্রথম সহপ্রকল্প উইকিশনারি শুরু হয় এবং উইকিতে লেখার প্রথম আনুষ্ঠানিক সুষম লেখনরীতি প্রকাশ করা হয়। প্রকল্প তত্ত্বাবধায়নের জন্য আলাদা পরিচালকমন্ডলী নিয়োগ করার কথা মেটাউইকিতে প্রাথমিকভাবে আলোচনা হয়।

২০০৩

এ বছর Tex ব্যবহার করে উইকিপিডিয়ায় গাণিতিক সূত্রগুলোর প্রবর্তন করা হয়; ইংরেজি উইকিপিডিয়া ১০০,০০০ নিবন্ধের মাইলফলক অতিক্রম করে (দ্বিতীয় বৃহত্তম জার্মান উইকিপিডিয়া ১০,০০০ নিবন্ধের মাইলফলক অতিক্রম করে); উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠিত হয়; উইকিপিডিয়ার নতুন জিগস পৃথিবীর লোগো গ্রহণ করা হয়; এবং উইকিপিডিয়ানদের প্রথম সাক্ষাতের আয়োজন করা হয়। উইকিপিডিয়ার আরবিট্রেশন সিস্টেম অ্যান্ড কমিটির মূলনীতিগুলো প্রণয়ন করা হয়, যার বেশিরভাগই করেন ফ্লোরেন্স ডেভুয়ার্ড, ফ্রেড বাউডার এবং অন্যান্য প্রথম দিককার মুখ্য উইকিপিডিয়ানরা।

২০০৪

এ বছরে পৃথিবীজুড়ে উইকিপিডিয়ার মোট নিবন্ধ সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পেতে থাকে, এক বছরেই নিবন্ধ সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়। পৃথিবীর ১০০টিরও বেশি ভাষায় মোট নিবন্ধ সংখ্যা ৫ লাখ থেকে ১০ লাখে পৌছায় যার মধ্যে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার নিবন্ধ সংখ্যা ছিল অর্ধেকের কিছু কম। উইকিপিডিয়ার সার্ভারগুলো ক্যালিফোর্নিয়া থেকে ফোরিডায় স্থানান্তর করা হয়; মিডিয়াউইকি সফটওয়্যারে Category এবং CCS স্টাইল কনফিগারেশন সিট চালুরা হয়; স্থানীয় জনগণ যেন উইকিপিডিয়া পড়তে না পারে এজন্য চীন সরকার ২০০৪ সালের জুন মাসে প্রথমবারের মত চীনে উইকিপিডিয়া ব্লক করে। এই ব্লক চীনে ২ সপ্তাহ স্থায়ী ছিল। উইকিপিডিয়ায় অবদানকারীদের বিবাদসমূহ সুরাহা করতে একটি বোর্ড এবং আরবিট্রেশন কমিটির আনুষ্ঠানিক নির্বাচন হয়।

Bourgeois বনাম Peters, (11th circuit, 2004)। এটি এমন কিছু মোকদ্দমার অন্যতম যাতে প্রথমবারের মতো উইকিপিডিয়ার কথা উল্লিখিত এবং এর থেকে উদ্ধৃত করা হয়। এতে বলা হয় “We also reject the notion that the Department of Homeland Security’s threat advisory level somehow justifies these searches. Although the threat level was “elevated” at the time of the protest, “to date, the threat level has stood at yellow (elevated) for the majority of its time in existence. It has been raised to orange (high) six times.”

২০০৫

এ বছরে বহুভাষিক ও বিষয়ভিত্তিক পোর্টালগুলো প্রতিষ্ঠা করা হয়; ক্রমবর্ধমান চাহিদা মোকাবেলায় সিস্টেম উন্নয়নের লক্ষে বছরের প্রথম ত্রৈমাসিক অনুদান সংগ্রহের পরিমাণ প্রায় ১০০,০০০ মার্কিন ডলারে পৌঁছায়; Hitwise-এর মতে, উইকিপিডিয়া ইন্টারনেটের সবচাইতে জনপ্রিয় রেফারেন্স ওয়েবসাইট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়; চীন আবারও উইকিপিডিয়া ব্লক করে অক্টোবরে; ইংরেজি উইকিপিডিয়া ৭৫০,০০০ নিবন্ধের মাইলফলক অতিক্রম করে। এ বছরই প্রথমবারের মতো উইকিপিডিয়ায় বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়, যখন এটি প্রকাশিত হয় যে একজন অতিপরিচিত ব্যক্তির জীবনীতে ভুল তথ্য সন্নিবেশিত করা হয়েছে- এটা কয়েক মাস অগোচরে ছিল (Seigenthaler incident)। এই ঘটনার ফলে এবং এ ধরনের আরও ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে প্রথমবারের মতো নীতিগত ও সিস্টেমে পরিবর্তন সাধন করা হয়। এসব ব্যবস্থার মধ্যে রয়েছে Checkuser সুবিধা নীতির পরিমার্জন (checkuser একটি Mediawiki tool, যা sock puppetry অনুসন্ধানে সহায়তা করে); সেমি প্রোটেক্টেড নামের একটি নতুন ব্যবস্থা; জীবিত ব্যক্তিদের জীবনীর ক্ষেত্রে আরও কঠোর নীতি অবলম্বন এবং এগুলোকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পুনবীক্ষণের জন্য ট্যাগ করা। ২০০৫ সালের ডিসেম্বরে নতুন নিবন্ধ শুরু করার ক্ষমতা শুধু নিবন্ধিত ব্যবহারকারীদের জন্য সংরক্ষিত করা হয়।

২০০৬

এ বছর ইংরেজি উইকিপিডিয়ায় ১৫ লক্ষতম নিবন্ধ যুক্ত হয়; প্রথম অনুমোদিত উইকিপিডিয়া নিবন্ধ নির্বাচন বিনা খরচে ডাউনলোড করার জন্য মুক্ত করা হয়; উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের একটি ট্রেডমার্ক হিসেবে ‘উইকিপিডিয়া’ নিবন্ধিত হয়; ‘কনগ্রেশনাল এইডস বায়োগ্রাফি স্ক্যান্ডাল’ জনসমক্ষে চলে আসে : এটি এমন কয়েকটি ঘটনাপুঞ্জ যেখানে মার্কিন কংগ্রেসের কিছু কর্মচারী এবং একজন প্রচার ব্যবস্থাপক উইকিপিডিয়ার জীবনীমূলক কিছু নিবন্ধ গোপনে পরিবর্তন করার সময় ধরা পড়ে যান, পরবর্তীতে ওই প্রচার ব্যবস্থাপক পদত্যাগ করেন।

উইকিম্যানিয়া ২০০৬-এ জিমি ওয়ালেস ঘোষণা করেন উইকিপিডিয়া যথেষ্ট পরিমাণে বড় হয়েছে এবং তিনি নিবন্ধের মান বাড়ানোর ব্যাপারে তাগিদ দেন, এটিকে ১০০,০০০ নির্বাচিত নিবন্ধের তাগিদ হিসেবেও আখ্যা দেয়া হয়; Oversight নামে একটি নতুন সুবিধা সংযোজন করা হয়, যাতে অগ্রহণযোগ্য বস্তু আছে এমন কিছু নির্দিষ্ট ভার্সনের আর্কাইভ করা পৃষ্ঠা non-viewable করা হয়; বেনামী অপকর্ম রোধ করার জন্য প্রণীত semi protection আশাতীত জনপ্রিয়তা অর্জন করে, এ সময় ১০০০-এর বেশি পৃষ্ঠা semi protected অবস্থায় ছিল। উইকিপিডিয়াকে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ড হিসেবে গণ্য করা হয়।

২০০৭

এ বছরেও উইকিপিডিয়ার প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থাকে। ২৫০টি ভাষায় ৭৫ লাখ নিবন্ধে ৫০ লাখ স্বেচ্ছাসেবীর ১৭৪ কোটি শব্দ লিখিত হয়। ইংরেজি উইকিপিডিয়াতে প্রতিদিন নিয়মিত প্রায় ১৭০০ নতুন নিবন্ধ যোগ হতে থাকে, আর Wikipedia.org ডোমেইনটি ইন্টারনেটের প্রথম ১০টি ডোমেইনের মধ্যে একটিতে পরিণত হয়। উইকিপিডিয়ার উপস্থিতি ধীরে ও নিশ্চিতভাবে সংবাদ মাধ্যমে দৃষ্টিগোচর হতে থাকে। একই সাথে সম্মিলিত তথ্য সংগ্রহ ও আইনী সিদ্ধান্ত গ্রহণের উৎস হিসেবে বিবেচিত হয়। এ বছরেই এসজে বিতর্কের সূচনা হয় যখন একজন নির্ভরযোগ্য জ্যেষ্ঠ সদস্যকে তার ব্যক্তিগত যোগ্যতা সম্পর্কে মিথ্যা বলার ঘটনা ধরা পড়ে যায়। সিটিজেনডিয়াম নামে ভিন্ন একটি প্রকল্প জনসম্মুখে চালু হয়। এই প্রকল্পে লেখকদের প্রকৃত পরিচয় ও জীবনীর ওপরে জোর দেয়া হয়।

২০০৮

উইকিপিডিয়ার বিভিন্ন বিষয়ের ওপর কাজ করার জন্য গঠিত বিভিন্ন উইকিপ্রকল্প তাদের নিজ নিজ বিষয়ের নিবন্ধগুলো তৈরি ও সমৃদ্ধ করতে থাকে। এপ্রিলে উইকিপিডিয়ার ১ কোটিতম নিবন্ধটি তৈরি হয়, এবং এর কয়েক মাস পরেই ইংরেজি উইকিপিডিয়ার নিবন্ধ সংখ্যা ২৫ লাখ ছাড়িয়ে যায়।

২০০৯

২০০৯ সালের আগস্ট মাসে সব উইকিপিডিয়ার সর্বমোট নিবন্ধ সংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ৪০ লাখ। এছাড়াও গ্রিনিচ মান সময় অনুযায়ী আগস্ট মাসের ১৭ তারিখ, ৪টা বেজে ৫ মিনিটে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার ৩০ লক্ষতম নিবন্ধটি তৈরি হয়। ওই বছরেরই মে মাসে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার বিতর্ক নিরসন কমিটি চার্চ অব সায়েন্টোলিজর আইপি ঠিকানাগুলো থেকে ইংরেজি উইকিপিডিয়ায় সম্পাদনা সুবিধা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়াও ওই দলভুক্ত কিছু সদস্যের নির্দিষ্ট কিছু নিবন্ধে সম্পাদনার ওপরেও বাধা আরোপ করে। সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে কমিটি তার বক্তব্যে উল্লেখ করে যে, উভয় পক্ষই উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে পরস্পরকে আক্রমণ করে চলেছে এবং ফলে ক্ষতির শিকার হচ্ছে জীবিত ব্যক্তির ওপর লেখা নিবন্ধগুলো।

২০১০

এ বছরের মার্চ মাসের ২৪ তারিখে উইকিপিডিয়ার ইউরোপিয়ান সার্ভার অতিরিক্ত গরমের সমস্যার কারণে বন্ধ হয়ে যায়। সাময়িক ব্যবস্থা হিসেবে ফ্লোরিডার অতিরিক্ত সার্ভারগুলো চালু করা সম্ভব হয়নি; ফলে উইকিপিডিয়ার DNS resolution সারাবিশ্বে অকেজো হয়ে পড়ে। এ সমস্যাটি দ্রুতই সমাধা করা হয়; কিন্তু DNS caching effects-এর কারণে কিছু এলাকা থেকে উইকিপিডিয়ায় ঢুকতে অন্যদের তুলনায় বেশি সময় লাগছিল।

২০১০ সালে ১৩ মে সাইটটির নতুন সংস্করণ প্রকাশ করা হয়। নতুন বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে ছিল- নতুন পরিমার্জিত লোগো, নতুন নেভিগেশন টুল এবং একটি লিঙ্ক উইজার্ড। যারা পুরনো সংস্করণটি ব্যবহার করতে চান তাদের জন্য আগেরটি ব্যবহারের সুবিধাও রাখা হয়েছিল।

উইকিপিডিয়া কমিউনিটি :

বাংলা উইকিমিডিয়া সম্প্রদায়ের সদস্যরা প্রধানত বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গ থেকে আসলেও এদের অনেকেই পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে বসবাস করেন। উইকিপিডিয়ার কথা দেশের সব স্তরে পৌঁছে দিতে সম্প্রদায়ের বাংলাদেশী সদস্যরা ২০০৫ সালের শেষ থেকে সক্রিয়ভাবে কাজ করে চলেছেন। প্রথম থেকেই উইকিপিডিয়া এবং অন্যান্য উইকিমিডিয়া প্রকল্প সম্পর্কে জানাবার জন্য সম্প্রদায়ের বাংলাদেশী সদস্যরা বাংলা ব্লগ সাইটগুলোতে মনোযোগী হন এবং বিভিন্ন জনপ্রিয় বাংলা ব্লগ সাইটে প্রকল্প এবং কার্যক্রমসমূহ তুলে ধরেন। যেহেতু পৃথিবীর এই অঞ্চলে ইন্টারনেট সুবিধা অপ্রতুল, সেহেতু সম্প্রদায়ের সদস্যরা ইউনিকোডে বাংলা টাইপ করতে পারেন এমন সম্ভাব্য নতুন অবদানকারী খুঁজে পাওয়ার উপযুক্ত স্থান হিসেবে বাংলা ব্লগ সাইটসমূহকে চিহ্নিত করেন। বিভিন্ন সময়ে সম্প্রদায়ের বাংলাদেশী সদস্যরা সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের কাছে উইকিপিডিয়ার কথা ছড়িয়ে দিতে বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় প্রকল্প এবং এর কার্যক্রম সম্পর্কে সংবাদ প্রকাশের কাজও করেছেন। রাজধানী ঢাকাসহ আঞ্চলিক শহরগুলোতেও তারা নিয়মিত অনলাইন এবং সরাসরি সাক্ষাৎ বা সম্মিলনের আয়োজনও করে থাকেন। ইতোমধ্যেই স্থানীয় ওপেন সোর্স সম্প্রদায়ের সহযোগিতায় তারা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে উইকিপিডিয়া সম্পর্কিত কর্মশালার আয়োজনও করেছেন। উইকিপিডিয়া ও এর অন্যান্য সহপ্রকল্পে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে কয়েক হাজারেরও বেশি আলোকচিত্র সংগ্রহ এবং মুক্ত মিডিয়া ভান্ডার, উইকিমিডিয়া কমন্সে আপলোড করা হয়েছে। সেই সাথে বাংলাদেশ সম্পর্কে আরও আলোকচিত্র এবং তথ্যসূত্র সংগ্রহের নিমিত্তে তারা বিভিন্ন স্থানীয় পর্যায়ে ব্যক্তিবর্গ এবং প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করে চলেছেন। বাংলাদেশী উইকিমিডিয়া সম্প্রদায় বর্তমানে উইকিমিডিয়া প্রকল্পসমূহে আরও ভালোভাবে কাজ করার জন্য আরো বেশি সংগঠিত হবার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছে। তারা ‘উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ’ নামে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের একটি চ্যাপ্টার হিসেবে সংগঠিত হবার পরিকল্পনাও করছে। উইকিমডিয়ায় বাংলাদেশের মেইলিং লিস্ট, ফেসবুক পাতা এবং টুইটার ঠিকানাও রয়েছে।

ওয়েব ঠিকানাগুলো হলো :

উইকিমিডিয়া মেটা পাতা : http://meta.wikimedia.org/wiki/Wikimedia_Bangladesh

মেইলিং লিস্ট : https://lists.wikimedia.org/ mailman/listinfo/wikimedia-bd

ফেসবুক পাতা : facebook.com/WikimediaBD

টুইটার : twitter.com/wikimediaBD

কজ ওয়েব

ফিডব্যাক : bellayet@gmail.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস