Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সফটওয়্যারের কারুকাজ
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কজ
মোট লেখা:১০৪১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৩ - জুলাই
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ট্রিকস ‍এন্ড টিপস
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সফটওয়্যারের কারুকাজ
লগঅন স্ক্রিন কাস্টোমাইজ করা

উইন্ডোজ লগঅন স্ক্রিন পরিবর্তন করা যেমন জটিল কাজ, তেমনই হ্যাক করা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। তবে উইন্ডোজ ৭-এ কাজটি বেশ সহজে করা যায়। এজন্য প্রথমে ব্রাউজ করুন HKEY_ LOCAL_MACHINE\Software\Microsoft\Windows\CurrentVersion\Authentication\LogonUI\Background in REGEDIT। এবার DWORD কী-তে ডাবল ক্লিক করুন, যাকে OEMBackground বলা হয়। যদি এই ভ্যালু না থাকে, তাহলে এর ভ্যালু ১ হিসেবে সেট করুন। এবার একটি ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ খুঁজে বের করুন, যা আপনি ব্যবহার করতে চাচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে লক্ষ রাখতে হবে ইমেজ সাইজ যেনো ২৫৬ কি.বা.-এর কম হয় এবং অ্যাসপেক্ট রেশিও যেনো আপনার স্ক্রিনের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হয়।

এরপর ওই ইমেজকে %Windir%\ system32\ oobe\info\background ফোল্ডার কপি করুন। যদি info\background ফোল্ডার না থাকে তাহলে তা তৈরি করে নিন। এ ইমেজটিকে রিনেম করুন backgroundDefault.jpg নামে। পিসি রিবুট করুন। এর ফলে আপনি দেখতে পারবেন একটি নতুন কাস্টম লগঅন স্ক্রিন।

বিকল্প হিসেবে সবকিছু হ্যান্ডেল করার জন্য একটি টুল ব্যবহার করতে হবে। Logon Changer ডিসপ্লে করে প্রিভিউ, যাতে আপনি বুঝতে পারেন পিসি রিবুট না করে লগঅন স্ক্রিন কেমন হবে, যেখানে লগঅন স্ক্রিন রোটেটর গ্রহণ করে মাল্টিপল ইমেজ এবং ডিসপ্লে করে একটি ভিন্ন জিনিস প্রতিবার লগঅনের সময়।

উপভোগ করুন একটি রেট্রো টাস্কবার

উইন্ডোজ ৭ বর্তমানে এমনভাবে টাস্কবার বাটনকে সমন্বিত করেছে যে প্রচুর ডেস্কটপ স্পেস সাশ্রয় হয়। অবশ্য এতে বেশ জটিলতা সৃষ্টি হয়। ফলে তাৎক্ষণিকভাবে বলা মুশকিল হয়ে পড়ে যে কোনো আইকন রানিং অ্যাপ্লিকেশনকে উপস্থাপন করছে নাকি একটি শর্টকাট। এ ক্ষেত্রে যদি আপনি অধিকতর গতানুগতিক অ্যাপ্রোচ পছন্দ করেন, তাহলে টাস্কবারে ডান ক্লিক করে Properties সিলেক্ট করুন এবং Taskbar Button-কে ‘Combine when taskbar in full’-এ সেট করুন। এর ফলে আপনি প্রতিটি রানিং অ্যাপ্লিকেশনের জন্য পাবেন স্পষ্ট এবং আলাদা রাটন, যা সহজ করবে প্রোগ্রামগুলোকে শনাক্ত করা।

শিউলী

সাহেব বাজার, রাজশাহী
এমএসওয়ার্ডে ব্যাকগ্রাউন্ড হিসেবে ওয়াটারমার্ক ইমেজ/টেক্সটের ব্যবহার

অনেক সময় এমএসওয়ার্ডে লেখার পেছনে কোন লেখাকে বা ছবিকে ওয়াটার কালারের মতো ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়। এজন্য এমএসওয়ার্ড ২০০৩-এর ক্ষেত্রে মেনুবারের ফরম্যাট থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড অপশনে যান এবং Printed Watermark... নির্বাচন করুন। প্রিন্টেড ওয়াটারমার্ক উইন্ডো আসার পর Picture Watermark সিলেক্ট করুন এবং Select Picture বাটনে ক্লিক করে পিকচারের লোকেশন দেখিয়ে দিন। তবে ওয়াটারমার্ক ইমেজসহ কোনো ডকুমেন্ট প্রিন্ট করতে চাইলে সে ক্ষেত্রে Washout মার্ক করুন। এবার Apply, Ok দিয়ে বের হয়ে আসুন। কোনো লেখাকে ওয়াটারমার্ক করতে চাইলে ওয়াটারমার্ককে উইন্ডো থেকে টেক্সট ওয়াটারমার্ক সিলেক্ট করুন। এখন টেক্সট বক্সে টেক্সট টাইপ করুন এবং ফন্ট, কালার, সাইজ ও লেআউট ইচ্ছেমতো সিলেক্ট করুন। তবে টেক্সট ওয়াটারমার্কসহ কোনো ডকুমেন্ট প্রিন্ট করতে চাইলে Semitransparent সিলেক্ট করুন। তারপর Apply, Ok দিয়ে বেরিয়ে আসুন।

এমএসওয়ার্ড ২০০৭-এর ক্ষেত্রে পেজ লেআউট মেনু থেকে ওয়াটারমার্ক অপশনে যান। এরপর কাস্টম ওয়াটারমার্ক সিলেক্ট করুন। নতুন উইন্ডো আসার পর পিকচার ওয়াটারমার্ক সিলেক্ট করুন এবং সিলেক্ট বাটন চেপে পিকচারের লোকেশন দেখিয়ে দিন। এবার Apply, Ok দিয়ে বেরিয়ে আসুন। কোনো টেক্সটকে ওয়াটারমার্ক করতে চাইলে ওয়াটারমার্ক মেনু থেকে কাস্টম ওয়াটারমার্ক ক্লিক করে টেক্সট ওয়াটারমার্ক সিলেক্ট করুন। টেক্সট বক্সে টেক্সট টাইপ করে কালার, ফন্ট, স্টাইল সিলেক্ট করুন। এরপর Apply, Ok দিয়ে বেরিয়ে আসুন।

এমএসওয়ার্ড ২০০৭-এর কিছু শর্টকাট পদ্ধতি

০১. যেকোনো জায়গায় কার্সর নেয়ার জন্য এন্টার চেপে কিংবা ট্যাব অথবা স্পেস চেপে যেতে হতো। এখন শুধু ডকুমেন্টের যেকোনো জায়গায় ডাবল ক্লিক করে সেখানে কার্সর নিতে পারবেন।

০২. অনেক সময় নতুন কোনো লাইনের শুরুতে স্পেস দিলেও স্পেস হয় না। এজন্য লাইনের শুরুতে কার্সর রেখে Shift+Enter বাটন চাপুন। ০৩. পেজ সেটআপ অপশনে যাওয়ার জন্য বাম পাশের রুলারের উপর ডাবল ক্লিক করুন। ০৪. কোনো শব্দকে সিলেক্ট করতে ওই শব্দের ওপর ডাবল ক্লিক করুন। ০৫. কোনো লাইনকে সিলেক্ট করতে ওই লাইনের ওপর ট্রিপল ক্লিক করুন।

কলেস্নাল

আত্রাই, নওগাঁ

রিস্টোর করুন ক্যুইক লাঞ্চ টুলবার
যদি আপনি নতুন টাস্কবারে সন্তুষ্ট না হন, তাহলে রিস্টোর করতে পারবেন পুরনো ক্যুইক লাঞ্চ টুলবার। এজন্য টাস্কবারে ডান ক্লিক করে বেছে নিন Toolbars>New Toolbar অপশন। %UserProfile%AppData\Roaming\Microsoft\Internel Explorer\Quick Launch টাইপ করুন ফোল্ডার বক্সে এবং সিলেক্ট ফোল্ডারে ক্লিক করুন।

এবার টাস্কবারে ডান ক্লিক করে ‘Lock The taskbar’ পরিষ্কার করুন এবং ‘Quick Launch’-এ খেয়াল করে দেখুন। এর ডিভাইডার ডান ক্লিক করুন এবং Show Text and show Title to minimise the space it takes up ক্লিয়ার করুন। বারে ডান ক্লিক করে View>Small Icons-এ ক্লিক করুন প্রকৃত রেট্রো লুকের কাজ শেষ করার জন্য।

উইন্ডোজ লাইভ মেসেঞ্জার আইকন লুকানো
যদি আপনি উইন্ডোজ লাইভ মেসেঞ্জার আইকন ব্যাপকভাবে ব্যবহার করেন, তাহলে আপনি নোটিস পাবেন যে আইকন টাস্কবারের পাশে অবস্থান করছে যেখান থেকে দ্রুতগতিতে ও সহজেই স্ট্যাটাস পরিবর্তন করতে এবং যেকোনো ব্যক্তির কাছে আইএম পাঠাতে পারবেন। যদি উইন্ডোজ লাইভ মেসেঞ্জারকে সিস্টেম ট্রেতে রাখতে চান, যেখান থেকে আগের ভার্সন অবমুক্ত হয়েছিল, তাহলে উইন্ডোজ লাইভ মেসেঞ্জারকে ক্লোজ করুন, শর্টকাট প্রোপার্টিজকে এডিট করুন এবং অ্যাপ্লিকেশনটি উইন্ডোজ ভিস্তা কম্প্যাটিবল মোডে সেট করুন।

সার্চ কার্যক্রম গোপন রাখা
বাই ডিফল্ট উইন্ডোজ ৭ আপনার পিসি সার্চ কোয়েরি মনে রাখে এবং সবচেয়ে সাম্প্রতিক উদাহরণ মনে রাখে, যখন উইন্ডোজ এক্সপেস্নারারে সার্চ করা হয়। যদি আপনার শেয়ারিং পিসি হয় এবং চাচ্ছেন না যে সবাই আপনার সার্চ কার্যক্রম দেখুক, তাহলে GPEDIT.MSC চালু করুন এবং User Configuration>Administrative Templates>Windows Components> Windows Explores-এ অ্যাক্সেস করুন। এরপর ‘Tern off display of recent search entries...’ ডাবল ক্লিক করুন। এরপর Enabled>Ok-তে ক্লিক করুন।

শাহজাহান মিঞা
স্টেশন রোড, রাজবাড়ী

....................................................................................................................................................................................................................................
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস