Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > ওয়েবসাইটের কিছু সমস্যা ও প্রতিকার
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: মোহাম্মদ জাবেদ মোর্শেদ চৌধুরী
মোট লেখা:৫১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৩ - অক্টোবর
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ওয়েবসাইট
তথ্যসূত্র:
সিকিউরিটি
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
ওয়েবসাইটের কিছু সমস্যা ও প্রতিকার
ওয়েবসাইট এখন আমাদের জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আমরা ইন্টারনেটে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নিজেদের যোগাযোগ, শিক্ষা থেকে শুরু করে আর্থিকসহ সব ধরনের দৈনন্দিন কাজ করে থাকি। ব্যাপক আকারে আর্থিক লেনদেনের কারণে তা এখন ক্রিমিনালদের জন্য এক চমৎকার টার্গেট। ওয়েবসাইটের ব্যবহার যেহেতু সবার মাঝে ছড়িয়ে গেছে, তাই সবাইকে সতর্ক হতে হবে। তবে সাধারণ জনগণ যেহেতু শুধু ব্যবহারকারী ও তাদের পর্যাপ্ত কারিগরি দক্ষতা নেই। তাই ওয়েবসাইট ডেভেলপারদেরকে এমনভাবে ওয়েবসাইটগুলো ডেভেলপ করতে হবে, যাতে হ্যাকারদের পক্ষে সহজে হ্যাকিং করা বা ওয়েবসাইট ও এর ব্যবহারকারীদের কোনো ক্ষতি করা সম্ভব না হয়। এ লেখায় যারা ওয়েব ডিজাইন করেন বা অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করেন, তাদের জন্য এবং যারা তাদের নিজেদের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করবেন, তাদের জন্য সিকিউরিটির কিছু সাধারণ তথ্য দেয়া হলো।

নিরাপত্তা সমস্যা-১ : আপনার হোস্টিংয়ে পিএইচপিতে কি ইস্টার এগ এনাবল্ড? তাহলে দ্রুত বন্ধ করুন।
সমাধান : ইস্টার এগ হলো, যে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের মাধ্যমে ওয়েবসাইটটি ডেভেলপ করা হয়েছে, তা লিঙ্কের মধ্যে এক্সটেনশন আকারে দেখা। পিএইচপিতে বাই ডিফল্ট ইস্টার এগ এনাবল্ড করা থাকে। ফলে হ্যাকরেরা জানতে পারে কোন ওয়েবসাইট কী ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে ডেভেলপ করা হয়েছে। সুতরাং এটিকে ডিজ্যাবল করতে হবে।

নিরাপত্তা সমস্যা-২ : পিএইচপি সেটিংসে ‘গ্লোবাল রেজিস্টার’ অন না থাকলে স্ক্রিপ্ট কাজ করে না, স্ক্রিপ্ট ফেলে দেন।
সমাধান : রিকোড করুন, গ্লোবাল রেজিস্টার সাইটকে হ্যাকারের হাতে তুলে দেয়ার জন্য একটি যথেষ্ট শক্তিশালী প্রক্রিয়া।

নিরাপত্তা সমস্যা-৩ : অ্যানোনিমাস এফটিপি ইউজার অ্যাকাউন্ট প্রয়োজন ছাড়াই খুলে রেখেছেন?
সমাধান : প্রয়োজন না থাকলে অ্যানোনিমাস এফটিপি ইউজার অ্যাকাউন্ট এখনই বন্ধ করুন। আর প্রয়োজন থাকলে মেইন সাইট ছাড়া আরেকটি অ্যাকাউন্টে হোস্ট করুন।

নিরাপত্তা সমস্যা-৪ : পিএইচপি ইনফো ফাইল (phpinfo()) সার্ভারে আপ করে রেখেছেন?
সমাধান : তবে এখনই ফাইলটি মুছে দিন, নয়ত হ্যাকার আপনার হোস্টিং সার্ভারের ডিটেইলস জেনে যাবে।

নিরাপত্তা সমস্যা-৫ : অ্যাপাচি ভার্সন কী লেটেস্ট?
সমাধান : লেটেস্ট অ্যাপাচি ভার্সন ইনস্টল করুন। নয়তো ড্যানিয়েল অ্যাটাকসহ অনেক ধরনের অ্যাপ্যাচি বেজ অ্যাটাক হতে পারে।

নিরাপত্তা সমস্যা-৬ : আপনার সাইটে এসএসএল সার্টিফিকেট ব্যবহার করেছেন? তবে ওপেন এসএসএলের ভার্সন কত?
সমাধান : লেটেস্ট ওপেন এসএসএল ইনস্টল করুন। কমপক্ষে ভার্সন ১। নয়ত ড্যানিয়েল অ্যাটাকের শিকার হতে পারেন।

নিরাপত্তা সমস্যা-৭ : ডিরেক্টরি (ইউনিক্স) বা ফোল্ডারের (উইন্ডোজ) বা ফাইলের পাবলিক অ্যাক্সেস পারমিশন কি ‘রাইটেবল’ দেয়া আছে?
সমাধান : সবার আগে যদি কোনো রাইট পারমিশন থাকে, তবে তা বন্ধ করম্নন। ইউনিক্সে ০৭৭৭ থাকলে ডিরেক্টরির জন্য ০৭৫৫ করে দিন। ফাইলের জন্য ০৬৪৪ করে দিন, যদি সিজিআই স্ক্রিপ্ট হয়ে থাকে এবং এক্সেকিউটেবল হয়ে থাকে তবে প্রয়োজনে ০৬৬৬ করে দিন। তবে সচরাচর CGI-BIN/CGI-SYS/SCGI-BIN etc ডিরেক্টরিতে এক্সেকিউটেবল স্ক্রিপ্ট (পার্ল, পাইথন) রান করে থাকে। আর উইন্ডোজের জন্য ইউজার গ্রুপ সেটিং থেকে পারমিশন চেক করুন এবং প্রয়োজনে রিসেট করুন। আপনার সাইটের ফাইল ফোল্ডারের ব্যাপারে নিশ্চিত না হলে একটার পর একটা ফাইল/ফোল্ডার চেক করে দেখুন। এফটিপি ক্লায়েন্ট দিয়ে লগইন করলে ফাইল পারমিশন দেখাবে।

নিরাপত্তা সমস্যা-৮ : ফাইল ব্রাউজিং সমস্যা? আপনার ওয়েবসাইটের ইমেজ, সিএসএস (এসেট, রিসোর্স ফোল্ডার) ভিজিট করলে সব ফাইল লিস্ট আকারে দেখা যায়?
সমাধান : ব্ল্যাংক ইনডেক্স ফাইল আপলোড করুন, যাতে করে example.com/images/ ভিজিট করলে ফাইল লিস্ট দেখা না যায়। আপনি . .htaccess দিয়েও ফোল্ডার অ্যাক্সেস রেস্ট্রিক্ট করতে পারেন।

নিরাপত্তা সমস্যা-৯ : আপনার স্ক্রিপ্টের কুকি সেটিং কী নিরাপদ?
সমাধান : সাইটওয়াইজ/অ্যাপ্লিকেশন ওয়াইজ কুকি সেট করুন। আনডিফাইন্ড কুকি মানে আপনার গোপন তথ্যে অন্যের অনুপ্রবেশ।

নিরাপত্তা সমস্যা-১০ : এফটিপি/কন্ট্রোল প্যানেলের পাসওয়ার্ড কি ডিকশনারি ওয়ার্ড/আপনার সাথে সংশ্লিষ্ট?
সমাধান : আপনি পাসওয়ার্ড দ্রুত পরিবর্তন করুন এবং সিস্টেমের অটোজেনারেটেড পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।
নিরাপত্তা সমস্যা-১১ : আপনার হোস্টিং সার্ভারের ডিএনএসের কোথাও দুর্বলতা নেই তো?
সমাধান : না জেনে থাকলে হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছ থেকে বিস্তারিত জেনে নিন। ডিএনএস জোন ফাইল নেটওয়ার্ক হ্যাকারদের একটি অন্যতম প্রধান অস্ত্র।
নিরাপত্তা সমস্যা-১২ : আপনার হোস্টিং সার্ভারে কোনো টেস্ট অ্যাকাউন্ট এনাবল্ড করা নেই তো?
সমাধান : না জেনে থাকলে হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছ থেকে বিসত্মারিত জেনে নিন। ব্রুট ফোর্স ডিফেন্সের সফটওয়্যার থাকলে এনাবল্ড করে নিন।
ওপরে উল্লিখিত সাধারণ সমস্যা ছাড়াও সবসময় নিচে বর্ণিত নিরাপত্তা টিপগুলো অনুসরণ করলে ওয়েবসাইটকে আরও বেশি নিরাপদ রাখা সম্ভব।

ওয়েবের সিকিউরিটি বাড়ানোর ১০ টিপ
০১. প্রথমেই ওয়েবসাইটটি যে ওয়েব সার্ভারে আছে, তাতে কোনো ভালনারেবিলিটি আছে কি না, তা পরীক্ষা করতে হবে। কোনো ত্রুটি পাওয়া গেলে তা ফিক্স করতে হবে। যত দ্রুত সম্ভব লেটেস্ট ওয়েব সার্ভারে আপগ্রেড করা। সম্ভব হলে আপারেটিং সিস্টেমেরও লেটেস্ট ভার্সনে আপগ্রেড করা। লিনআক্স সার্ভারে হলে এর কার্নেল নিয়মিত আপগ্রেড করতে হবে এবং সিস্টেমের জন্য কোনো সিকিউরিটি প্যাচ থাকলে তা ইনস্টল করতে হবে।
০২. সার্ভারের ফায়ারওয়ালটি চেক ও শক্তিশালী করা। নেটওয়ার্ক এবং আ্যপ্লিকেশন ২ লেভেলে এ ফায়ারওয়াল ব্যবহার করা। সার্ভারে DDoS Protection ব্যবহার করা।
০৩. সার্ভারের অব্যবহৃত পোর্টগুলো এবং সার্ভিসগুলো বন্ধ করে রাখা এবং নিয়মিত সার্ভিসের সফটওয়্যার আপগ্রেড করা। ভালো IDS/IPS আর Webproxy সেটআপ দেয়া

ফিডব্যাক : jabedmorshed@yahoo.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস