Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > থ্রিজির দাম : প্রেক্ষিত বাংলাদেশ ভারত শ্রীলঙ্কা
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: এম. মিজানুর রহমান সোহেল
মোট লেখা:১০
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৩ - ডিসেম্বর
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
থ্রি জি
তথ্যসূত্র:
রির্পোট
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
থ্রিজির দাম : প্রেক্ষিত বাংলাদেশ ভারত শ্রীলঙ্কা
বহু প্রতীক্ষার পর গত ৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হয় থ্রিজি নিলাম। দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর এ থ্রিজি নিলাম মানুষের মনে কিছুটা হলেও আশা সৃষ্টি করে। কিন্তু অপারেটরগুলো যখন থ্রিজি প্যাকেজ অনুমোদন পেল, তখন থেকেই সাধারণ মানুষ দাম নিয়ে অসন্তুষ্ট। সোশ্যাল মিডিয়ার স্ট্যাটাস বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এক সময় টেলিটকের থ্রিজি প্যাকেজের দাম নিয়ে ক্ষোভ থাকলেও অনেকেই ওই টেলিটকেই ফিরে যেতে চান। আবার অনেকে বিটিআরসির অনুমোদিত থ্রিজির দাম ও অপারেটরদের থ্রিজির দাম নিয়েও সন্দিহান। কেউবা ভারত বা শ্রীলঙ্কার থ্রিজি প্যাকেজের দামের সাথে বাংলাদেশের থ্রিজির দামের তুলনা করে দেখিয়েছেন। নিচে বিটিআরসির অনুমোদিত থ্রিজি প্যাকেজের দামের তালিকা, ভারতের রিলায়েন্স ও এয়ারটেল এবং শ্রীলঙ্কার এটিসালাত ও হাচের থ্রিজির দামের তালিকা দেয়া হয়েছে। এছাড়া বিটিআরসি ও অপারেটরদের থ্রিজি প্যাকেজের শর্তাবলীও সংযুক্ত করা হয়েছে।

গ্রামীণফোনের থ্রিজি প্যাকেজ ট্যারিফ : গ্রামীণফোন থ্রিজি ডাটা প্যাকেজের মধ্যে রয়েছে হেভি ইউসেজ প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ৯৫০ টাকা। ১ এমবিপিএস স্পিডের দাম ১২৫০ টাকা। স্মার্ট প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ৮০০ টাকা। ১ এমবিপিএস স্পিডের দাম ১১০০ টাকা। স্ট্যান্ডার্ড প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ২ জিবি ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ৪০০ টাকা। ২ জিবি ১ কেবিপিএস স্পিডের দাম ৭০০ টাকা। এ প্যাকেজগুলোতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও অটোরিনিউয়াল প্রযোজ্য। এছাড়া ফ্ল্যাট ভিডিও কলরেট ১.২ টাকা/মিনিট (১০ সেকেন্ড পালস)।

গ্রামীণফোন থ্রিজি প্যাকেজের শর্তগুলো : পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যমত্ম উপরে উল্লিখিত দাম প্রযোজ্য হবে। প্যাকেজে উপরে উলিস্নখিত স্পিড দিয়ে প্যাকেজটির সর্বোচ্চ স্পিড বোঝানো হয়েছে। প্রাপ্ত স্পিড নির্ভর করবে আপনার ডিভাইসের ক্যাপাসিটি ও অবস্থান ইত্যাদির ওপর। ওয়্যারলেস টেকনোলজির জন্য থ্রিজিতে ডেডিকেটেড স্পিড দেয়া সম্ভব নয়। ভলিউমভিত্তিক প্যাকে বেশি ব্যবহারে ০.০১ টাকা/১০ কিলোবাইট চার্জ প্রযোজ্য হবে। হেভি ইউসেজ প্যাকে (৮ জিবির পর) এবং স্মার্ট প্যাকে (১.৫ জিবির পর) ফেয়ার ইউসেজ পলিসি প্রযোজ্য হবে। অবশিষ্ট ভলিউম জানতে *৫০০*৬০# ও ব্যবহৃত ভলিউম জানতে *৫০০*৬১# ডায়াল করুন। থ্রিজি ভিডিও কল করতে হলে হ্যান্ডসেটের সামনে ক্যামেরা এবং সেটে ভিডিও কল করার সুবিধা থাকতে হবে। ভিডিও কলে থ্রিজি নেটওয়ার্কের ডাটা চ্যানেল ব্যবহার হয় না। অটোরিনিউয়াল বন্ধ করতে অফ লিখে পাঠিয়ে দিন ৫০০০ নম্বরে। ভিডিও কলের জন্য শুধু ভিডিও কল রেট ও ভ্যাট প্রযোজ্য। শুধু থ্রিজি কাভারেজভুক্ত এলাকার জন্য প্রযোজ্য। ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও অটোরিনিউয়াল প্রযোজ্য।

এছাড়া নিচের ট্যারিফগুলো প্রমোশন শেষ হলে প্রযোজ্য হবে। হেভি ইউসেজ প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ১০৫০ টাকা। ১ কেবিপিএস স্পিডের দাম ১৪০০ টাকা। স্মার্ট প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ৮৫০ টাকা। ১ এমবিপিএস স্পিডের দাম ১১০০ টাকা। স্ট্যান্ডার্ড প্যাক, মেয়াদ ৩০ দিন। ৫১২ কেবিপিএস স্পিড প্যাকেজের দাম ৪৫০ টাকা। ১ এমবিপিএস স্পিডের দাম ৮০০ টাকা। সাথে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও অটোরিনিউয়াল প্রযোজ্য।
আরও জানতে ভিজিট করম্নন grameenphone. com/bn/whats-new/introducing-3g-packages I grameenphone. com/bn/products-and-services/gp-3g/3g-packages ঠিকানায়।

বাংলালিংকের থ্রিজি প্যাকেজ ট্যারিফ : বাংলালিংক থ্রিজি প্রমোশনাল অফার। সুপার ব্রাউজার প্যাকেজে ৩৫০এমবি ডাটার দাম ২০০ টাকা, মেয়াদ ১০ দিন। স্মার্ট সারফার প্যাকেজে ১ জিবি ডাটার দাম ৩৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। ডাউনলোডার প্যাকেজে ৩ জিবি ডাটার দাম ৭৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। পেস্নয়ার প্যাকেজে ৫০ এমবি ডাটার দাম ৩০ টাকা, মেয়াদ ৫ দিন। ব্রাউজার প্যাকেজে ২০০ এমবি ডাটার দাম ১০০ টাকা, মেয়াদ ৭ দিন। সুপার ব্রাউজার প্যাকেজে ৩৫০ এমবি ডাটার দাম ২০০ টাকা, মেয়াদ ১০ দিন। সারফার প্যাকেজে ৫০০ এমবি ডাটার দাম ২৫০ টাকা, মেয়াদ ১৫ দিন। স্মার্ট সারফার প্যাকেজে ১ জিবি ডাটার দাম ৩৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। এক্সট্রিম সারফার প্যাকেজে ২ জিবি ডাটার দাম ৫৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। ডাউনলোডার প্যাকেজে ৩ জিবি ডাটার দাম ৭৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। ক্রেজি ডাউনলোডার প্যাকেজে ৫ জিবি ডাটার দাম ৯৫০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন। মেগা ডাউনলোডার প্যাকেজে ১০ জিবি ডাটার দাম ১৬০০ টাকা, মেয়াদ ৩০ দিন।

বাংলালিংক থ্রিজি প্যাকেজের শর্তগুলো : সব ট্যারিফ প্রমোশনাল অফার হিসেবে প্রযোজ্য হবে। থ্রিজি প্যাকেজের ব্যাল্যান্স চেক করতে *২২২*৩# ডায়াল করতে হবে। পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যমত্ম এ অফার চলবে। গ্রাহকেরা ১ এমবি পর্যন্ত স্পিড পাবে উল্লিখিত প্যাকেজগুলোর। প্রাপ্ত স্পিড নির্ভর করবে আপনার ডিভাইসের ক্যাপাসিটি ও অবস্থান ইত্যাদির ওপর। গ্রাহকের ডাটা শেষ হয়ে গেলে প্যাকেজ মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে পর্যন্ত ০.০১/১০ কেবি দামে থ্রিজি সেবা নিতে পারবে। ডাটা প্যাক স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিচার্জ হবে। স্বয়ংক্রিয়তা বন্ধ করতে হলে *৫০০০*৬# ডায়াল করতে হবে। থ্রিজি স্পিড পেতে হলে গ্রাহককে থ্রিজি কাভারেজ এলাকাতে থাকতে হবে। সব প্যাকেজে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রযোজ্য। বিস্তারিত জানতে ৭৭৬৬৬ (ফ্রি) ডায়াল করতে হবে। আরও জানতে ভিজিট করুন http://banglalink.com.bd/en/3g/package_&_devices/package_details I http://banglalink.com.bd/bn/3g/package_&_devices/package_details ঠিকানায়।

রবির থ্রিজি প্যাকেজ ট্যারিফ : বাণিজ্যিকভাবে থ্রিজি সেবা চালুর পর আগের টুজি প্যাকেজকেই নতুন করে সাজিয়েছে রবি আজিয়েটা। তিনটি আলাদা প্যাকেজে বিভক্ত সর্বনিম্ন ১ জিবি ডাটা প্যাকের দাম ২৭৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ ছাড়া ৩ জিবির দাম ৪৫০ ও ৫ জিবির দাম ৬৫০ টাকা। অপারেটরটি নিজেদের থ্রিজি সেবার গতি ৩.৫জি। রবির ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, যদি ৩.৫জি সেবায় নিবন্ধিত গ্রাহক টুজি প্যাক কেনে থ্রিজি নেটওয়ার্কে কানেক্ট করে সংশ্লিষ্ট টুজি ডাটা প্যাক ব্যবহার করতে পারবে। কিন্তু তার কানেকশনের গতি হবে টুজির সমান। আরও জানতে ভিজিট করম্নন http://www.robi.com.bd/en/3.5G/ 3.5G-packages ঠিকানায়।

এয়ারটেলের থ্রিজি প্যাকেজ : টুজির দামে থ্রিজি প্যাকেজের ঘোষণা দেয়া এয়ারটেলের রয়েছে সেকেন্ডে ১ মেগাবাইট গতির সাতটি আলাদা প্যাকেজ। সময়ভিত্তিক প্যাকেজের মধ্যে তিন দিনের মধ্যে ১৫ এমবি ডাটা ব্যবহারে গ্রাহককে গুনতে হচ্ছে ১৫ টাকা। সাত দিনের প্যাকেজে ৩০ এমবির জন্য ৩০ টাকা, ৫০ এমবির জন্য ৫০ ও ২৫০ এমবির দাম ১০০ টাকা। এ ছাড়া ১৫ দিনের প্যাকেজে ৫০০ এমবি ডাটা ব্যবহারের দাম ২০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর ৩০ দিন মেয়াদি প্যাকে ১ জিবির দাম ৩৫০ ও সর্বোচ্চ ৫ জিবি ডাটা প্যাকেজ ব্যবহারের জন্য গ্রাহককে ভ্যাট ছাড়াই পরিশোধ করতে হচ্ছে ৯৫০ টাকা। আরও জানতে ভিজিট করম্নন http://www.bd.airtel.com/commonpage.php?cat_id=১৬২ ঠিকানায়।

টেলিটকের থ্রিজি প্যাকেজ : বেসরকারি সেলফোন অপারেটরদের থ্রিজি সেবা চালুর সাথে সাথে নিজেদের থ্রিজি প্যাকেজে ব্যাপক রদবদল ঘটিয়ে বৈচিত্র্য এনেছে রাষ্ট্রীয় সেলফোন অপারেটর টেলিটক। রেকর্ড পরিমাণ ২৩টি প্যাকেজে বিভক্ত করা হয়েছে টেলিটক থ্রিজি সেবা। পাঁচটি ভিন্ন গতির ভিত্তিতে প্রণীত টেলিটক থ্রিজি প্যাকেজের মধ্যে সেকেন্ডে সর্বোচ্চ ডাটা স্থানান্তর গতি ৪ মেগাবাইট। ৬৫০ টাকা দামের এ প্যাকেজের ডাটা ব্যবহারসীমা ২০ জিবি। সর্বনিম্ন সেকেন্ড ২৫৬ কিলোবাইট গতির তিনদিন মেয়াদি প্যাকেজে ৪০ এমবি ডাটা ব্যবহারের দাম ধরা হয়েছে ২৫ টাকা। একই গতির ৫০০ এমবি ব্যবহারে ৩০ দিনে গুনতে হচ্ছে ২০০ টাকা। আরও জানতে ভিজিট করুন teletalk.com.bd/services/3g_service.php wVKvbvq|

সবার শীর্ষে দেশীয় থ্রিজি প্যাক : থ্রিজি নেটওয়ার্কের মতোই প্যাকেজমূল্যে এগিয়ে রয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান টেলিটক। অনুসন্ধানে দেখা গেছে। টেলিটক তার প্রচারে থ্রিজি প্যাকেজে যে গতির উলেস্নখ করা হয়েছে, তা সর্বনিম্ন গতি। আর বেসরকারি অপারেটরেরা এ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গতির কথা উল্লেখ করে প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। অন্যদিকে সাত বিভাগীয় শহরসহ দেশের ১৮টি জেলায় থ্রিজি সেবা চালু করেছে টেলিটক। থ্রিজি নেটওয়ার্ক বিসত্মৃতিতে বেসরকারি অপারেটরদের সাথে কাজ করছে হুয়াওয়ে ও এরিকসন। এ ক্ষেত্রে সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, থ্রিজি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে সমানতালে এগিয়ে গেছে গ্রামীণফোন ও রবি। বেসরকারি অপারেটরদের মধ্যে সবচেয়ে কম দামে থ্রিজি নেটওয়ার্ক সেবা দিচ্ছে রবি আজিয়াটা। ৩.৫জি প্রযুক্তিসেবা নিয়ে ভ্যাটসহ ৭৪৮ টাকার বিনিময়ে ৬ জিবি ডাটা ব্যবহার করতে পারছেন রবির থ্রিজি গ্রাহকেরা।

প্রতিবেশী দেশে থ্রিজির দাম

সার্কভুক্ত দেশের মধ্যে পাকিস্তান ছাড়া বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, নেপাল ও ভুটানে তৃতীয় প্রজন্মের সেলফোন নেটওয়ার্ক চালু আছে। এ সেবা পাচ্ছেন পর্যবেক্ষক আফগানিস্তান ও চীনের সেলফোন ব্যবহারকারীরাও। এশিয়ার মধ্যে সার্কভুক্ত দেশ হিসেবে নেপালে প্রথম থ্রিজি নেটওয়ার্ক সেবা চালু হয় ২০০৭ সালে। এর পরের বছর ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে ভারতে শুরু হয় থ্রিজি নেটওয়ার্কের যাত্রা। গিরিকন্যা নেপালের থ্রিজি সেবার গতি ১৪.৪ এমবিপিএস। সেখানে ৩০ দিন মেয়াদে সর্বোচ্চ ১০ জিবি প্যাকেজের দাম ২ হাজার ৫০০ টাকা। আর একই গতিতে একদিন মেয়াদি সর্বনিম্ন ৩ এমবির দাম বাংলাদেশি টাকায় ৫ টাকা। অন্যদিকে ভারতে থ্রিজি সেবার গতি ৩.৬ এমবিপিএস। এখানে ৩০ দিন মেয়াদে সর্বোচ্চ ১ হাজার ২৫৯ টাকায় দেয়া হয় ১০ জিবি প্যাকেজ সুবিধা। আর সর্বনিম্ন তিন দিন মেয়াদে ২০ টাকায় দেয়া হচ্ছে ১০ মেগাবাইট ডাটা সুবিধা। একইভাবে শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশী ৮৮৮ টাকায় ১২ জিবি ও সর্বনিম্ন একদিনে ৫৫ এমবি ১৪ টাকায়। আর গতি ১৪.৪ এমবিপিএস। অপরদিকে ভুটানে থ্রিজির গতি ২১.১ এমবিপিএস। এখানে ৩০ দিন মেয়াদে সর্বোচ্চ ৫ জিবি ডাটার দাম ১ হাজার ২৩৬ ও ৩৩৩ মেগার দাম ৪১২ টাকা।

ভারত ও শ্রীলঙ্কায় থ্রিজির দাম : বাংলাদেশের প্রতিবেশী ভারতে ২০১০ সালে প্রাইভেট প্রতিষ্ঠান টাটা ডোকোমো থ্রিজি সেবা চালু করে। অবশ্য তার আগেই সরকারি প্রতিষ্ঠান বিএসএনএল থ্রিজির যাত্রা শুরু করে ভারতে। প্রথমদিকে উচ্চমূল্যে থ্রিজি সেবা দেয়া হলেও সম্প্রতি তা কমে আসছে। উচ্চমূল্য আর সেবার মান খারাপ হওয়ায় ভোক্তাদের মধ্যে তেমন সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়নি মোবাইল অপারেটরেরা। দেশটির ৮৫০ মিলিয়ন মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর মধ্যে মাত্র ৫ শতাংশ থ্রিজি ব্যবহার করছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্তমানে ভারত ও শ্রীলঙ্কায় এয়ারটেল, এয়ারসেল, রিলায়েন্স, টাটা ডোকোমো, বিএসএনএল, আইডিয়া, এটিসালাত, হাচসহ বেশ কয়েকটি মোবাইল অপারেটর গ্রাহকদের বিভিন্ন ধরনের প্যাকেজে থ্রিজি প্রযুক্তির ইন্টারনেট সেবা দিয়ে থাকে। তবে সম্প্রতি রিলায়েন্স, এয়ারটেল, ভোডাফোন ও আইডিয়া থ্রিজির দাম ৭০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়েছে। ফলে আগের থেকে থ্রিজি সেবার গ্রাহক বাড়ছে। নিচে ভারতের কয়েকটি থ্রিজি প্যাকেজের দামের তথ্য জানানো হলো :

রিলায়েন্স থ্রিজি ডাটার দাম টুজির চেয়ে কম : থ্রিজি সেবার দাম টুজি অপেক্ষা কম রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের মোবাইল পরিষ্ঠান রিলায়েন্স কমিউনিকেশন্স। গত জুলাই মাসে প্রতিষ্ঠানটি প্রতিন্দ্বী ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোন ও আইডিয়া সেলুলার অপেক্ষা থ্রিজি ডাটার দাম প্রায় ৫০ শতাংশ কমিয়েছে। গত জুলাই মাস থেকে ব্যবহারকারীদের জন্য ১ গিগাবাইট ডাটার দাম ১২৩ রুপি, ২ গিগার দাম ২৪৬ রুপি ও ৩ গিগার দাম হয়েছে ৪৯২ রম্নপি। বর্তমানে টুজি ১ গিগাবাইটের দাম ১২৫ রম্নপি। কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, মুম্বাই, পাঞ্জাব, মধ্যপ্রদেশসহ ১৩টি সার্কেলে থ্রিজি পরিসেবা দেয় রিলায়েন্স। নতুন ট্যারিফটি সব ধরনের গ্রাহকের জন্য কার্যকর বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী গুরদ্বীপ সিং বলেন, আমরা ডাটা ব্যবহারের সুনামি চাই। আমরা ব্যবহারকারীকে ধীরগতি আর উচ্চমূল্য থেকে মুক্তি দিতে চাই।

ভারতে রিলায়েন্স থ্রিজির দাম : ভারতের আরেকটি জনপ্রিয় মোবাইল অপারেটর রিলায়েন্স ১২ টাকায় ১ দিন মেয়াদে ৩০ এমবি, ৫৬ টাকায় ৭ দিন মেয়াদে ১৫০ এমবি, ৩০৮ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ১ জিবি (সাথে ১৫০ টাকার টকটাইম), ৫৬০ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ২ জিবি (সাথে ৩০০ টাকার টকটাইম), ৮১২ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ৩ জিবি, ১৮৭৫ টাকায় ৯০ দিন মেয়াদে ১২ জিবি ও ৩৭৫০ টাকায় ১৮০ দিন মেয়াদে ৩০ জিবি পর্যন্ত ইন্টারনেট সেবা দিয়ে থাকে।

ভারতে এয়ারটেল থ্রিজির দাম : ভারতের বাজারে জনপ্রিয় মোবাইল অপারেটর এয়ারটেল ৬১ টাকায় ৫ দিন মেয়াদে ১৫০ এমবি, ১২৩ টাকায় ২৮ দিন মেয়াদে ৩০০ এমবি, ৩১৯ টাকায় ২৮ দিন মেয়াদে ১ জিবি, ৫৬৮ টাকায় ২৮ দিন মেয়াদে ২ জিবি, ৯৪৩ টাকায় ২৮ দিন মেয়াদে ৪ জিবি ও ১৯৪৩ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ২৪ জিবি পর্যন্ত থ্রিজি প্রযুক্তির ইন্টারনেট সেবা দিয়ে থাকে।

এছাড়া বিভিন্ন অনুষ্ঠান কিংবা উৎসবের সময় গ্রাহকদের জন্য নানা ধরনের প্যাকেজ দিয়ে থাকে কোম্পানিটি।

অন্যরাও থ্রিজির দাম কমিয়েছে : ভোডাফোন, এয়ারটেল ও আইডিয়া গত জুন মাসে ইন্টারনেট ডাটা প্ল্যানের দাম কমালেও সেটি ছিল প্যাকেজ শেষে অতিরিক্ত ব্যবহারের ট্যারিফ। এ সময় ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর রিলায়েন্স কোনো ঘোষণা দেয়নি। বর্তমানে ভোডাফোন ১ গিগাবাইট প্যাকেজের জন্য ২৫০ রুপি চার্জ করে। আইডিয়া ও ভারতীর প্যাকেজ দাম একই ধরনের। সেখানে রিলায়েন্স দিচ্ছে ১২৫ রুপিতে।

শ্রীলঙ্কায় এটিসালাতের থ্রিজির দাম : শ্রীলঙ্কার মোবাইল অপারেটর এটিসালাত ২৮ টাকায় ৭ দিন মেয়াদে ১৬০ এমবি, ৫৮ টাকায় ১৪ দিন মেয়াদে ৩৮০ এমবি, ১৭৬ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ১১শ’ এমবি, ২৬৫ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ২ জিবি, ৩২৪ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ৩ জিবি, ৮৮৫ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ১২ জিবি পর্যন্ত সেবা দিয়ে থাকে।

শ্রীলঙ্কায় হাচের থ্রিজির দাম : শ্রীলঙ্কার অপর মোবাইল অপারেটর হাচ ১.৭৭ টাকায় ১ দিন মেয়াদে ১২ এমবি, ৮ টাকায় ১ দিন মেয়াদে ৫৫ এমবি, ২৩ টাকায় ৭ দিন মেয়াদে ২২০ এমবি, ৫২ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ৩৩০ এমবি, ১১৬ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ১ জিবি, ৪৬৬ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ২ জিবি, ৭০০ টাকায় ৩০ দিন মেয়াদে ৫ জিবি পর্যন্ত সেবা দিয়ে থাকে।

সূত্র : দৈনিক যুগান্তর, দৈনিক সমকাল, দৈনিক অর্থনীতি প্রতিদিন, প্রিয় ডটকম।

ফিডব্যাক : mmrsohelbd@gmail.com
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস
অনুরূপ লেখা