Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > আসছে নানা ব্র্যান্ডের পাতলা ট্যাব
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: সোহেল রানা
মোট লেখা:৪০
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৫ - জুলাই
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ট্যাবলেট পিসি
তথ্যসূত্র:
দশদিগন্ত
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
আসছে নানা ব্র্যান্ডের পাতলা ট্যাব
ক্রেতাদের চাহিদা বিবেচনায় এবং ন্যানো প্রযুক্তির ফলে প্রযুক্তিপণ্য ছোট হচ্ছে দিন দিন। এখন আস্ত একটি কমপিউটারকেই পকেটে পুরে রাখা যায়। বিশ্বসেরা প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে পাতলা ট্যাব তৈরিতে এক ধরনের প্রতিযোগিতায় নেমেছে। ফলে বাজারেও আসছে নতুন নতুন অত্যাধুনিক সব ট্যাবলেট পিসি।
চলতি বছরে বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ৮ ও ৯ দশমিক ৭ ইঞ্চির দুটি মডেলের ট্যাব বাজারে আনছে স্যামসাং। গত বছর বাজারে আসা গ্যালাক্সি ট্যাব এস ৮ দশমিক ৪ ও ট্যাব এস ১০ দশমিক ৫-এর পরবর্তী সংস্করণ হিসেবে এ বছর বাজারে আসবে হালকা-পাতলা দুটি ট্যাব। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট টেকরাডার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চীনের টেলিকমিউনিকেশন ইক্যুপমেন্ট সার্টিফিকেশন স্টোর স্যামসাংয়ের দুটি মডেলের ট্যাবকে ছাড়পত্র দিয়েছে এবং নতুন ট্যাবের কিছু তথ্য প্রকাশ করেছে। নতুন ট্যাব হিসেবে ট্যাব এস ২ এইটের ওজন ২৬০ গ্রাম ও এর আকার ১৯৮ বাই ১৩৪ বাই ৫ দশমিক ৪ মিলিমিটার। অর্থাৎ ৮ ইঞ্চি মাপের ট্যাব এস ২ হবে ৫ দশমিক ৪ মিলিমিটার পুরু। ৮ ইঞ্চি মাপের এস ২-এর পাশাপাশি ৯ দশমিক ৭ ইঞ্চি মাপের একটি ট্যাবও বাজারে আনতে পারে স্যামসাং।
ট্যাব এস ২-এ থাকবে অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার রেজ্যুলেশন ১৫৩৬ বাই ১০৪৮। অ্যান্ড্রয়িড ললিপপচালিত এই ট্যাবে অক্টাকোর প্রসেসর ও ৩ গিগাবাইট র্যা ম সুবিধা থাকবে। পেছনে ৮ ও সামনে ২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা থাকবে এই হালকা-পাতলা ডিভাইসে। ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের পাশাপাশি এতে এক্সটারনাল মেমরি কার্ড ব্যবহারেরও সুযোগ থাকবে।
অন্যদিকে তাইওয়ানের বাজারে জুন মাসে এসেছে স্যামসাংয়ের নতুন ট্যাব গ্যালাক্সি ‘ই’। কিন্তু তাইওয়ান ছাড়া বিশ্বের অন্যান্য বাজারে গ্যালাক্সি সিরিজের নতুন ট্যাবটি ছাড়ার বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু জানানো হয়নি। এটি সম্পূর্ণ নতুন ধরনের গ্যালাক্সি ট্যাব। ট্যাবটির নাম ‘ই’ দেয়ার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, ‘ই’তে স্পষ্টভাবে বাজেট সলিউশন বোঝায়। এছাড়া যারা এখন এমন একটি ট্যাবলেটের খোঁজ করছেন, যাতে গুগলের অ্যান্ড্রয়িড সফটওয়্যার থাকবে, তাদেরকে এটি আকর্ষণ করবে। আরও বলা হচ্ছে, ট্যাবটির হার্ডওয়্যার বিবেচনায় যদিও এটি বাজেটসারির পণ্য, কিন্তু পণ্যটিকে দেখে মনে হয় বর্তমান বাজারের একই দামের সব পণ্যের তুলনায় অনেক উন্নত। তথ্য মতে, ই-এর বহিরাংশ অনুজ্জ্বল মসৃণ প্লাস্টিকে তৈরি, যা গ্রাহকদের মুহূর্তেই মন কাড়তে পারবে।
ট্যাবটির ভেতরের দিক সম্পর্কে বলা হয়েছে, যারা সাধারণত মৌলিক সুবিধাগুলো পেতে আগ্রহী তারা নিশ্চিত এটি পেতে চেষ্টা করবেন। যদিও এতে অ্যান্ড্রয়িড ৫.০ ললিপপ দেয়া নেই, তবে স্যামসাংয়ের প্রচলিত টাচউইজ লেয়ারের গুরুত্ব বুঝে অ্যান্ড্রয়িড ৪.৪ কিটক্যাটকে বেছে নেয়া হয়েছে ই-এর জন্য। এর হার্ডওয়্যার বৈশিষ্ট্য প্রসঙ্গে উল্লেখ করা হয় ৯.৬ ইঞ্চি আকৃতির টাচস্ক্রিন পর্দায় পিক্সেল রেজ্যুলেশন ১২৮০ বাই ৮০০, ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর প্রসেসর সাথে ১.৫ জিবি র্যাতম এবং ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমরি (বর্ধনযোগ্য) এবং পেছনের দিকে ৫এমপি ও সামনের দিকে আছে ২এমপি সেলফি শুটার। আর ওয়াইফাই হলো এর একমাত্র সংযোগ। ব্যাটারি ৫ হাজার এমএএইচ, পুরুত্ব ৮.৫ মিমি, ওজন ৪৯০ গ্রাম। ধারণা করা হয়, এরপর একই ধরনের এর আরেকটি মডেলের ঘোষণা দেবে স্যামসাং। ট্যাব ই-এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ২২৬ ডলার, যা ভারতীয় রুপিতে পড়বে প্রায় ১৫ হাজার। কিন্তু পণ্যটিতে অন্তর্ভুক্ত বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী দাম কিছুটা বেশি বলেও মনে করছেন কেউ কেউ।
সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডেল নিয়ে এসেছে ৬.১ মিলিমিটারের পাতলা ট্যাবলেট। ডেলের দাবি, এটিই পৃথিবীর সবচেয়ে পাতলা ট্যাবলেট। পৃথিবীর সর্বাধিক পাতলা ট্যাবলেট দাবি করা এ ট্যাবে সংযুক্ত করা হয়েছে তিনটি ক্যামেরা। এই তিনটি ক্যামেরাই ইন্টেলের তৈরি। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ইন্টেল রিয়েল সেন্স স্ন্যাপশপ ডেপথ প্রযুক্তি।
ট্যাবটিতে আরও আছে ২.৩ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর ইন্টেল অ্যাটম জেড৩৫০০ প্রসেসর ও ২ জিবি র্যাটম। অভ্যন্তরীণ মেমরি পাওয়া যাবে এতে ১৬ জিবি, যা আবার এক্সট্রা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বাড়িয়ে নেয়া যাবে ৫১২ জিবি পর্যন্ত। আপাতত অ্যান্ড্রয়িডের কিটক্যাট সংস্করণে পরিচালিত হবে এটি। পরবর্তী সময় এই পদ্ধতিকে ললিপপ ৫.০ সংস্করণে আপগ্রেড করে নেয়া যাবে।
এলজি সম্প্রতি তিনটি নতুন ট্যাবলেট আনার ঘোষণা দিয়েছে। এলজি জানিয়েছে, একেক ব্যবহারকারী একেক আকারের ট্যাবলেট পছন্দ করেন। এই চাহিদানুযায়ী ৭ ইঞ্চি, ৮ ইঞ্চি ও ১০.১ ইঞ্চির ট্যাবলেট বাজারে ছাড়া হবে। কোরিয়ান এই কোম্পানিটি আরও জানায়, প্রতিটি ট্যাবলেটের নামেই তার আকার বোঝা যাবে। যেমন- জি প্যাড ৭.০, জি প্যাড ৮.০ ও জি প্যাড ১০.১। তবে কবে নাগাদ এগুলো বাজারে আসবে তা জানায়নি এলজি


পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৫ - জুলাই সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস