Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সফটওয়্যারের কারুকাজ
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কজ
মোট লেখা:১০৪১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৬ - আগস্ট
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
সফটওয়্যার
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সফটওয়্যারের কারুকাজ
সিপিইউর সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স
মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ১০-এর কনফিগারেশন সেটিং কীভাবে অ্যাডজাস্ট করছেন তা বিবেচ্য বিষয় নয়। ভালো পারফরম্যান্সের জন্য সিস্টেম টোয়েকিং করতে হতে পারে অথবা ডেস্কটপকে পার্সোনালাইজড করার জন্য কনফিগারেশন সেটিংকে অ্যাডজাস্ট করতে হতে পারে।
উইন্ডোজ ১০-এ সিপিইউর সর্বোচ্চ পারফরম্যান্স পেতে পারেন নিচে বর্ণিত ধাপ অনুসরণ করে।
যদি আপনি ডেস্কটপ পিসি বা নোটবুক ব্যবহার করে থাকেন, যা সবসময় প্লাগ করতে হয়, তাহলে এর সিপিইউর পারফরম্যান্স সর্বোচ্চ করতে পারবেন পাওয়ার অপশন পরিবর্তন করে। ডেস্কটপের নিচে ডান প্রান্তে Start বাটনে ডান ক্লিক করে বা Windows key + X চেপে এবং পাওয়ার অপশন মেনু আইটেমে নেভিগেট করুন। এবার হাইপারফরম্যান্স রেডিও বাটনে ক্লিক করুন। মনে রাখা দরকার, সেটিং পরিবর্তন করলে ব্যাটারির চার্জ দ্রুত নিঃশেষ হয়ে যেতে পারে, তাই বুদ্ধিমত্তার সাথে ব্যবহার করা উচিত। এবার পছন্দ অনুযায়ী Plan settings-এ পরিবর্তন করে নিতে পারেন।
পিন ফাইল এক্সপ্লোরার সার্চ
উইন্ডোজ ১০-এর অন্যতম এক শক্তিশালী ফিচার হলো ফাইল এক্সপ্লোরার, যা সার্চ সেভ করতে সক্ষম। একটি সেভ সার্চ আইডেন্টিফাই করে যেসব ওয়ার্ড ডকুমেন্ট তা একটি নির্দিষ্ট ফোল্ডারে থাকে। যদি অনেকগুলো .doc ফাইল থাকে, তাহলেও তা খুব সহজে সার্চ করতে পারবেন। শুধু তাই নয়, যদি ওইসব সার্চ আইটেম স্টার্ট মেনুতে পিন করা থাকে, তাহলে সার্চ করার কার্যক্রম আগের চেয়ে অনেক সুবিধাজনক এবং দ্রুততর হবে।
এবার ফাইল এক্সপ্লোরার ওপেন করে ইউজার ফোল্ডার এবং সার্চ সাবফোল্ডারে নেভিগেট করুন। এরপর সেভড সার্চ-এ ডান ক্লিক করুন এবং তা আপনার স্টার্ট মেনুতে পিন করুন, যাতে সহজে অ্যাক্সেস করা যায়।
বিং থেকে সুইচ করা
মাইক্রোসফট চায় পার্সোনাল অ্যাসিসট্যান্ট কর্টনা বিং ব্যবহার করুক তার ডিফল্ট সার্চ ইঞ্জিন হিসেবে। তবে গুগল নয়। আপনি ইচ্ছে করলে কর্টনাকে বাধ্য করতে পারেন একটি ভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করতে। তবে প্রথমে আপনাকে আপনার ডিফল্ট ওয়েব ব্রাউজার পরিবর্তন করতে হবে।
যদি উইন্ডোজ ১০-এ ফায়ারফক্স ডিফল্ট ব্রাউজার হয়, তাহলে কর্টনাকে ব্যবহার করতে হবে গুগল সার্চ। যদি ক্রোম হয় আপনার ডিফল্ট ব্রাউজার, তাহলে আপনাকে ইনস্টল করতে হবে Chrometana এক্সটেনশন এবং ডিফল্টকে পরিবর্তন করতে হবে। অন্যথায় কর্টনা হয়ে উঠবে অনমনীয় এবং বিং ব্যবহার করতে থাকবে।
আবদুস সামাদ
মিরপুর, ঢাকা
অ্যাপস ইনস্টল হওয়ার ডিফল্ট লোকেশন পরিবর্তন করা
এ সময়ের অনেক কমপিউটারই বাজারে ছাড়া হয় এসএসডি এবং বিশাল ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট মেকানিক্যাল ডাটা ড্রাইভ সমন্বয়ে। অবশ্য এর জন্য দরকার কিছু বাড়তি ম্যানেজমেন্টের, বিশেষ করে নতুন নতুন অ্যাপস কোথায় ইনস্টল হবে সেজন্য। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ব্যবহারকারীরা চান তাদের অ্যাপস কম ধারণক্ষমতাসম্পন্ন সলিড স্টেট বুট ড্রাইভে ইনস্টল না হয়ে যেন ডাটা ড্রাইভে ইনস্টল হয়।
অ্যাপের জন্য ডিফল্ট ড্রাইভ পরিবর্তন করার জন্য স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে All Apps→Settings→System→Storage-এ নেভিগেট করুন। এরপর আপনি অ্যাপস, ডকুমেন্টস, মিউজিক, পিকচার এবং ভয়েজ প্রভৃতির জন্য ডিফল্ট সেটিং পরিবর্তন করতে পারবেন।
কাস্টোম শর্টকাট ফোল্ডার তৈরি করা
আপনি ইচ্ছে করলে কাস্টোম স্টার্ট মেনু ফোল্ডার তৈরি করতে পারবেন, যাতে যেকোনো অ্যাপস, ডকুমেন্টস ইত্যাদির শর্টকাট ধারণ করতে এবং তা সম্পৃক্ত করতে পারেন। এরপর ওই ফোল্ডারকে স্টার্ট স্ক্রিনে বা টাস্কবারে পিন করতে পারবেন।
এ কাজ শুরু করার জন্য ফাইল এক্সপ্লোরার ওপেন করে নেভিগেট করুন C:\Users\mark.MRKM11X\AppData\Roaming\Microsoft\Windows\Start Menu\Programs ফোল্ডারে।
লক্ষণীয়, AppData হলো একটি হিডেন ফাইল। সুতরাং আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে রিবনে Show Hidden Files চেক বক্স। Programs ফোল্ডারে আপনি যুক্ত করতে পারবেন নিজের সাবফোল্ডার। ধরুন, আপনার ফোল্ডারের নাম A_Custom_Start_Folder। এটি স্টার্ট মেনুর অ সেকশনে ডিসপ্লে করবে। ওই ফোল্ডারে আপনি অ্যাপে যেকোনো শর্টকাট রাখতে পারবেন।
Windows.old অপসারণ করা
হার্ডড্রাইভ স্টোরেজ তেমন ব্যয়বহুল নয় বা আগের মতো তেমন সীমিতও নয়। অবশ্য এর অর্থ এই নয় আপনি স্পেস নষ্ট করতে চাচ্ছেন। যদি আপনি সিস্টেমকে উইন্ডোজ ৭ বা ৮ থেকে ১০-এ আপগ্রেড করে থাকেন, তাহলে সম্ভবত আপনার হার্ডড্রাইভে একটি ফোল্ডার থাকবে, যা ধারণ করবে উইন্ডোজের পুরনো ভার্সন। স্বাভাবিকভাবে ধারণা করা যায়, আপনি আর কখনই উইন্ডোজ ৭ বা ৮-এ ফিরে যাবেন না। সুতরাং উইন্ডোজের পুরনো ভার্সনের ফোল্ডারকে ডিলিট করে দিতে পারেন হার্ডড্রাইভের স্টোরেজ স্পেস ফিরে পাওয়ার জন্য।
এই ফোল্ডারকে ডিলিট করার জন্য ফাইল এক্সপ্লোরার ওপেন করুন, নেভিগেট করুন যেখানে উইন্ডোজ ১০ অবস্থান করছে (সাধারণত C: ড্রাইভ)। এরপর এতে ডান ক্লিক করুন। এবার Properties মেনু আইটেমে ক্লিক করুন। এবার Disk Cleanup বাটনে ক্লিক করুন স্ক্যান স্টার্ট করার জন্য। এরপর Clean Up System Files বাটনে ক্লিক করুন।
ফয়জুলস্নাহ রহমান
চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ

সেন্ড ফাইলে বেশি প্লেস যুক্ত করা
উইন্ডোজ ১০-এর ফাইল এক্সপ্লোরারে কাজ করার সময় একটি ফাইলে ডান ক্লিক করুন এবং নেভিগেট করুন ঝবহফ ঞড় মেনু আইটেমে। এর ফলে কোথায় ফাইল সেন্ড করতে পারবেন, তার ধারণা দিয়ে একটি ছোট্ট লিস্ট দেখতে পারবেন। যদি আপনি Shift + right-click করে নেভিগেট করেন Send To Menu আইটেমে, তাহলে আরও ব্যাপক-বিসত্মৃত প্লেসের লিস্ট দেখতে পারবেন, যেখানে ফাইল সেন্ড করতে পারবেন।
বাড়তি সণ্যাপ অ্যাসিস্ট অপশন
উইন্ডোজ ১০-এর বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই সণ্যাপ অ্যাসিস্ট ফাংশনের সাথে পরিচিত, যেখানে কোনো উইন্ডো ড্র্যাগ করে যেকোনো সাইটে নিলে ওই উইন্ডো স্ক্রিনের অর্ধাংশ সণ্যাপ করবে। সণ্যাপ অ্যাসিস্ট অপশন কীভাবে উইন্ডোজ ১০-এর ফাংশনকে অ্যানহ্যান্স করেছে, সে ব্যাপারে অনেকেই অবগত নন।
আপনি শুধু ড্র্যাগ এবং স্ক্রিনের অর্ধাংশ সণ্যাপ করতে পারবেন তা নয়, যদি স্ক্রিনের চার প্রান্তের যেকোনো এক প্রান্তে উইন্ডোকে ড্র্যাগ করে নিয়ে আসেন, তাহলে এটি স্ক্রিনের চার ভাগের এক ভাগ সণ্যাপ করে পূর্ণ করবে। এর অর্থ হচ্ছে, খুব সহজে চারটি উইন্ডো এক সাথে ওপেন রাখতে পারবেন।
সব সণ্যাপ অ্যাসিস্ট সেটিং খুঁজে পাবেন সিস্টেম সেটিংয়ের অন্তর্গত। তাই স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে নেভিগেট করুন All Apps→Settings→System→ Multitasking-এ এবং প্রয়োজন অনুযায়ী সস্নাইডিং বাটনকে সেট করুন।
আফজাল হোসেন
স্টেশন রোড, রাজবাড়ী


পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৬ - আগস্ট সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস