Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > এবারের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে যতসব সেরা পণ্য
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: এম. তৌসিফ
মোট লেখা:৩
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৭ - মার্চ
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
আইসিটি
তথ্যসূত্র:
রির্পোট
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
এবারের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে যতসব সেরা পণ্য
জিএসএমএ মেবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস হচ্ছে যোগযোগ শিল্প খাতের সবচেয়ে বড় বার্ষিক প্রদর্শনী। চলতি বছরের এই মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হয় গত ২৭ ফেব্রম্নয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত সময়ে। এই প্রদর্শনী প্রতিবছর নজর কাড়ে মোবাইল, টেকনোলজি, অটোমেটিভ, ফিন্যান্স ও এমনকি হেলথ কেয়ার কোম্পানিগুলোরও। শুধু মোবাইল ফোন নয়, প্রযুক্তির নানা ক্ষেত্রে আকর্ষণীয় সব পণ্য প্রদর্শিত হয় এই সাংবাৎসরিক প্রদর্শনীতে। এবারও এর ব্যতিক্রম ছিল না। দর্শকদের মনকাড়া অসংখ্য নতুন পণ্য তথা গেজেট ও প্রযুক্তিপণ্য নিয়ে আসে বিভিন্ন কোম্পানি। আমরা এই প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত পণ্যগুলোর মধ্য থেকে সেরা কয়েকটি পণ্যের পরিচয় তোলার প্রয়াস পাব।
সেরা স্মার্টফোন : এলজি জি৬
এলজি’র রিফাইন্ড, সুনির্মিত জি৬ ছিল এবারের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগেসের অভিজাত তারকা স্মার্টফোন। এলজি গত বছরের মডুলার ধারণা থেকে সরে এসেছে তেমন স্মার্টফোনটিই গ্রাহকদের উপহার দিতে, যা গ্রাহকদের সত্যিকারের চাহিদা মেটায়। এলজি বলেছে, নতুন এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনটি তৈরির পরিকল্পনার সময় এরা কথা বলেছে গ্রাকদের সাথে। স্পষ্টতই তাদের চাহিদা মাথায় রেখেই এই ফোনটি তৈরি করা হয়েছে। এটি ওয়াটারপ্রম্নফ বা পানিরোধী। উন্নত ব্যাটারি লাইফ। এর রয়েছে ৫.৭ ইঞ্চি এক্সপানসিভ স্ক্রিন। কিন্তু এলজি এটিকে একটি ৫.২ ইঞ্চি ফোনে পুরে দিতে সক্ষম হয়েছে। এর বড় মাপের এই স্ক্রিনটি চাইলে সহজেই এক হাতেও ব্যবহার করতে পারবেন। এর ডিসপ্লের রয়েছে ১৮:৯ আসপেক্ট রেশিও, যা ভিডিও দেখার জন্য আদর্শ মানের।
সেরা কম খরচের ফোন : অ্যালকাটেল এ৫ এলইডি
অ্যালকাটেলের এ৫ এলইডি হচ্ছে এ পর্যন্ত আমাদের দেখা সবচেয়ে সেরা ফান ফোন। একই ধরনের সস্ন্যাবের প্রাধান্যের দুনিয়ায় এ৫-এর পালসিং, কাস্টমাইজড এলইডি ব্যাক হয়ে উঠতে পারে একটি মিউজিক ভিজ্যুয়ালাইজার, যা আপনার ওয়ারড্রোবেই ম্যাচ করতে পারে। এর চেয়ে ভালো হলো, এর ব্যাক রিপ্লেস করা যাবে একটি বড় বোমবক্স স্পিকার অথবা অ্যাড-অন ব্যাটারি দিয়ে। এর মাধ্যমে গত বছরের মডুলার কনসেপ্ট নিয়ে আসা যাবে একটি অ্যাফর্ডেবল ফোনে।
সেরা বাজেটের স্মার্টফোন : মটো জি৫ পস্নাস
আজকের দিনে প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে একটি স্মাটফোন গ্রাহকদের কাছে পৌঁছালেই সবকিছু হয়ে যায় না। আপনাকে এই ফোনে অবশ্যই সংযোজন করতে হবে কিছু প্রিমিয়াম ফিচার, যা সাধারণত আজকাল পাওয়া আরও নামি-দামি মডেলের ফোনে। মটোরলা স্পষ্টতই সে বিষয়টি মাথায় রেখেছে। এর প্রমাণ বহন করছে এর বাজেটবান্ধব মটো জি৪ লাইনআপে। মটো জি৫ পস্নাসে একটি ডুয়াল-অটো ফোকাস সেটআপ অ্যাড করার মাধ্যমে জোর দেয়া হয়েছে এর বিরল ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ওপর, যাতে এমনকি দিনের আলো কম থাকলেও উন্নত মানের ছবি তোলা যায়।
সেরা ট্যাবলেট : স্যামসাং গ্যালাক্সি ট্যাব এস৩
হতে পারে, ট্যাবলেটের বাজার ক্রমে ছোট হয়ে আসছে। কিন্তু এরপরও স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি ট্যাবে ওয়াকম পেন টেকনোলজি নিয়ে এসে এর গ্যালাক্সি ট্যাবলাইনকে বাজারে বাঁচিয়ে রেখেছে। ওয়াকম পেন টেকনোলজির সাহায্যে গ্যালক্সি ট্যাব লাইনআপকে সত্যিকার অর্থে করে তোলা হয়েছে অ্যাপলের ‘আইপড লাইনআপে’র অ্যান্ড্রয়িড-পাওয়ার্ডের বিকল্প। ট্যাব এস৩ এর বিনোদনকে বাড়িয়েছে এর কোয়াড স্পিকার ও বর্তমানের বিদ্যমান সব ঝুঁকি উতরে গিয়ে। তবে এর বেস্ট ফিচার হচ্ছে এর এস পেন। স্যামসাং এর গুণগত মান উন্নয়ন করে এবং ক্রিয়েটিভ ও এন্টারটেইনমেন্ট ফিচারের মধ্যে ভারসাম্য গড়ে তুলে এটিকে করে তুলেছে এ পর্যন্ত আমাদের দেখা সর্বোত্তম অ্যান্ড্রয়িড ট্যাবলেটের মধ্যে সর্বোত্তমটি। আসলে স্যামসাং আমাদেরকে শেস্নট সম্পর্কে নতুন করে ভাবার সুযোগ এনে দিয়েছে। স্যামসাং এর ফ্ল্যাগশিপ ফোন থেকে কিছু সেরা ফিচার নিয়ে এসেছে এর ট্যাব এস৩-এ। এসব ফিচারের মধ্যে আছে এর এস পেনের সমৃদ্ধ একটি সংস্করণ, এসডিআর ভিডিও সাপোর্টের জন্য ব্রিলিয়ান্ট ডিসপ্লে।
সেরা পরিধেয় : হুয়াওয়ি ওয়াচ২
স্মার্টওয়াচগুলো যন্ত্রণাদায়ক। কিন্তু ফিটনেস ট্র্যাকারগুলো ভালোভাবেই কাজ করছে। হুয়াওয়ি এই প্রবণতাতে বুদ্ধিমত্তার সাথে কাজে লাগিয়েছে হুয়াওয়ি ওয়াচ ২-এর সাথে। হুয়াওয়ি ওয়াচ ২-এ রয়েছে অব্যাহতভাবে হার্ট রেট মনিটরিং ফিচার ও বিশেষ কিছু অ্যাপস, যা আপনাকে সহায়তা করবে একটি কাস্টমাইজ ট্রেনিং প্রোগ্রাম ডিজাইন করতে। তা ছাড়া আপনার ফিটনেস মূল্যায়ন করতে ওয়াচ ২ ক্যালকুলেট করবে আপনার VO2 max। এমনকি এটি আপনাকে বলে দেবে আগামী ১০ হাজার কিলোমিটারের ম্যারাথনে জিততে হলে কীভাবে আপনাকে প্রশিক্ষেত করে তুলতে হবে। যখন এর ব্যাটারি অপরিহার্যভাবে ধীরে চলবে, তখন ওয়াচ ২-এর রয়েছে একটি স্পেশাল এনার্জির্র্র্র্র্ সেভিং মোড, যা অব্যাহতভাবে আপনার পদক্ষেপ ট্র্যাক ও সময় প্রদর্শন করবে। এর রয়েছে দুটি মডেল। একটিতে জোর দেয়া হয়েছে কাজের ওপর। অপরটিতে জোর দেয়া হয়েছে ফ্যাশনের ওপর।
সেরা ল্যাপটপ : পরশ্চি ডিজাইনের বুক ওয়ান
এমনটি আশা করা হয়নি, এবারের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে হাই-এন্ড ‘সারফেস বুক’-এর কোনো প্রতিযোগী আমরা দেখতে পাব। কিন্তু এবারের এই কংগ্রেসে এর প্রতিযোগী হিসেবে পরশ্চি ডিজাইনের (Porsche Design) প্রথম ল্যাপটপ ভেঞ্চার দেখে অনেকেই অবাক হয়েছেন। পরশ্চি ডিজাইনের ‘বুক ওয়ান’-এর দাম ২,৪৯৫ ডলার থেকে শুরু। এটি প্রদর্শন করে ইন্টেলের সর্বোত্তম প্রযুক্তি। এর চকমকে বডি হচ্ছে অল-মেটাল পরশ্চি ডিজাইন বডি। এর আছে কাবি লেক কোরআই৭ ও সব রাইট পোর্ট- থান্ডারবোল্ট ৩, ইউএসবি-সি, ইউএসবি-এ ও মাইক্রোএসডি। এর সুইভেলিং, ডিটাচেবল সুপার-হাই-রেস স্ক্রিন অন্য যেকোনো ল্যাপটপের তুলনায় বিভিন্ন মোডে ফ্লেক্সিবিলিটি সরবরাহ করে।
সেরা অ্যাক্সেসরিজ : স্টেডলারের নরিস ডিজিটাল
বেশিরভাগ স্টাইলাসই পস্নাস্টিক বা ধাতুর গোলাকার বা সমতল টুকরা। এগুলোর কোনো সৌল নেই। কিন্তু স্যামসাং ট্যাবলেট লাইনের (এবং এর গ্যালাক্সি নোট ফোনের জন্য, যদি আপনার থাকে) জন্য তৈরি স্টেডলারের নতুন নরিস ডিজিটাল এস পেন মনে হবে সত্যিকারের একটি পেন্সিলের মতো। এর রয়েছে ধ্রম্নপদ হেক্সাগনাল আকার ও ওয়াক্সি আবরণ। এর ফাইন রাবার ডগার রয়েছে পস্নাস্টিকের ডগার চেয়ে উন্নততর কৌশল। প্রচলিত পেন্সিল কাগজে ঘষে আমরা যেমনটি লিখি, অনেকটা এরই মতো।
সেরা হোম টেকনোলজি : স্যামসাংয়ের হোম মডেম
স্যামসাংয়ের ‘হোম মডেম ফর ভেরিজন’ হচ্ছে এবারের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে আসা সেরা হোম টেকনোলজি। মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে (এবং টি-মোবাইল সিটিও) ইউরোপীয়রা বুঝতে পারে না, কেনো আমরা অবাক হয়েছি স্যামসাংয়ের হোম মডেম ফর ভেরিজনের ব্যাপারে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে হোম ব্রডব্যান্ডের জন্য যেকোনো জনের একমাত্র ওভারপ্রাইসড অপশন হচ্ছে, স্যামসাংয়ের এই ননডেসক্রিপ্টিভ বক্স। যুক্তরাষ্ট্রে হোম ব্রডব্যান্ড প্রতিযোগিতা মৃতপ্রায়। আর ক্যাবল কোম্পানিগুলোই সদর্প প্রভাব চলছে। ভেরিজন এবং এটি অ্যান্ড টি’র আসন্ন প্রি-৫জি রোলআউট হচ্ছে সবচেয়ে সেরা বাজি, দাম কমিয়ে ও প্রতিযোগিতা বাড়িয়ে এ শিল্প খাতকে কাঁপিয়ে দেয়ার জন্য।
সেরা ধারণা : মটোরলা মটো মড কনসেপ্টস
মটোরলা এতটুকু দেখাতে পেরেছে, এর ডিটাচেবল মটো মড আইডিয়া শুধু একটি সাময়িক খামখেয়ালিপনা নয়। এটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ চলতি বছরে বেশ কিছু মড রিলিজ করার ব্যাপারে। মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে মটোরলা দেখাতে পেরেছে, মটো মডের ফাঙ্কশনালিটি কতটা সুবিসত্মৃত। একটি মটোরলা মড রয়েছে, যেটি আপনার ফোনে যোগ করতে পারে অ্যামাজন আলেক্সা। এতে রয়েছে এলইডি ব্যাক কভার, একটি গেম প্যাড, একটি প্রিন্টার। একটি মাল্টি-এসআইএম মড এবং এমনকি আপনার ফোন চালানোর মডকে পরিণত করতে পারে একটি রোবটে।
সেরা এআর/ভিআর : স্যামসাং গিয়ার ভিআর কন্ট্রোলার
কিছু গিয়ার ভিআর গেমস খেলার সময় এরই মধ্যে অনেকে ব্যবহার করছেন গেম প্যাড। এসব কোনো কন্ট্রোলারই ভার্চু্যয়াল রিয়েলিটির এক্সপেরিয়েন্সের জন্য সুনির্দিষ্টভাবে ডিজাইন করা হয়নি। তাই স্যামসাংয়ের সিম্পল-বাট-এলিগেন্ট গিয়ার ভিআর কন্ট্রোলার হয়ে উঠতে পেরেছে এ ক্ষেত্রে সত্যিকারের অগ্রদূত। এর সামনের দিকে রয়েছে একটি বড় গোলাকার টাচপ্যাড। সাথে আছে কিছু ভলিউম ও নেভিগেশন কন্ট্রোল এবং পেছনে আছে একটি ট্রিগার, যা শুটারদের জন্য পরিপক্ব। স্যামসাং বলছে, তারচেয়েও ভালো খবর হচ্ছে- গিয়ার ভিআর কন্ট্রোলারের আপডেটেড ভার্সন, সাথে করে নিয়ে আসবে এর রিফ্রেশড ভিআর হেডসেট। তবে স্যামসাং এখনও আমাদের বলেনি সেটা কখন আসবে।
সেরা টু-ইন-ওয়ান : লেনোভো ইয়োগা ৭২০
লেনোভো’র দুটি ইয়োগা ৭২০ এখনও প্রতিযোগিতায় বশ্যতা স্বীকার করেনি। খুবই সহনীয় মূল্য ছাড়াও ৮৬০ ডলার দামের ১৩ ইঞ্চি ইয়োগা ৭২০ লেনোভোর ফ্ল্যাগশিপ ৯১০-এর মতোই পাতলা। এরপরেও এর মধ্যে রয়েছে একটি কোরআই৭ সিপিইউ, ১৬ জিবি র্যাপম ও একটি ১ টিবি সলিড স্টেট ড্রাইভ। তা সত্ত্বেও ১১০০ ডলার দামের ১৫ ইঞ্চির ইয়োগা ৭২০ তার চেয়েও আরও উত্তম। কারণ এর রয়েছে অপশনাল Nvidia GeForce GTX 1050 GPU। এই অপশন ইয়োগা ৭২০-কে অন্তর্ভুক্ত করেছে এমন গুটিকতক টু-ইন-ওয়ানে, যেগুলো ডিসেন্ট সেটিংয়ে এএএ গেম খেলতে সক্ষম। এরপরও এর রয়েছে সলিড ফ্রেম রেট। উভয় মডেলেরই রয়েছে প্রিসিশন টাচপ্যাড। এ ছাড়া রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের অপশন, যা সাপোর্ট করে উইন্ডোজ হেলো ও স্টাইলাস এবং কাজ করে সারফেস পেনের মতো।
সেরা উদ্ভাবন : সনি মোশন আই
এবারে মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে এ ক্ষেত্রে ছিল সনির পালা। এ কোম্পানির Xperia XZ Premium ফোন গর্ব করতে পারে একটি আপগ্রেডেড ক্যামেরা হিসেবে এর নানা ফিচারের জন্য। এর রয়েছে ১৯ মেগাপিক্সেল শুটার, যাতে অন্তর্ভুক্ত আছে সনির মোশন আই ক্যামেরা সিস্টেম। সনির ট্রিপল ইমেজ সেন্সিং টেকনোলজি ব্যবহার করে মোশন আই সিস্টেম ধারণ করে ইমেজ ও ডাটা স্মার্টফোনের চেয়ে ৫ গুণ বেশি দ্রুতগতিতে। এর অর্থ আপনি এর সাহায্যে ভিডিও শুট করতে পারবেন প্রতি সেকেন্ডে ৯৬০ ফ্রেম, অবাক করা সুপার-স্লো মোশনে। আসলে সনি আমাদের হাতে দিয়েছে একটি শক্তিশালী টুল

পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৭ - মার্চ সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস