Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > ই-কমার্সে অনলাইন মার্কেটিং
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: আনোয়ার হোসেন
মোট লেখা:৫৩
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৭ - জুলাই
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
ই-কমার্স
তথ্যসূত্র:
ই-কমার্স
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
ই-কমার্সে অনলাইন মার্কেটিং
ই-কমার্সে অনলাইন মার্কেটিং
আনোয়ার হোসেন
ইউনিভার্সাল অ্যাপ ক্যাম্পেইন
আপনি যদি একজন অ্যাপ ডেভেলপার হন,তবে অ্যাপ ডেভেলপ করার পর প্রমোশন করতে হবে যেন সেগুলোকে ব্যবহারকারীদের হাতে পৌঁছে দেয়া যায়। অন্যথায় কষ্ট ও সময় ব্যয় করে বানানো অ্যাপ কারও কোনো কাজে আসবে না। আর প্রমোশনের বেলায় এমন সব লোকদের কাছে যেতে হবে, যাদের কাছে অ্যাপগুলোর প্রয়োজনীয়তা সবচেয়ে বেশি। ইউনিভার্সাল অ্যাপ ক্যাম্পেইন এই বিজনেসে জাদুর মতো কাজ করে। এর মাধ্যমে একজন অ্যাপ ডেভেলপারের জন্য তার বানানো অ্যান্ড্রয়িড বা আইওএস অ্যাপটি প্রমোট করা অনেক সহজ হয়ে যায়। প্রচারণাটা চালানো হয় গুগলের টপ প্রোপার্টি যেমন- সার্চ, ইউটিউব, গুগল ডিসপ্লে নেটওয়ার্ক প্লে ইত্যাদিতে। এখানে যা করতে হবে, সেগুলো হচ্ছে কয়েক লাইনের কিছু টেক্সট যোগ করা, বিড করা এবং কিছু অপশনাল ক্রিয়েটিভস আর কাঙ্ক্ষিত ইউজারদের খুঁজে পাওয়ার জন্য অপটিমাইজেশন করা। এ লেখায় আমরা ইউনিভার্সাল অ্যাপ ক্যাম্পেইন কীভাবে কাজ করে তার বেসিকটা জানতে পারব।
কীভাবে কাজ করে
বেশিরভাগ অ্যাডওয়ার্ড ক্যাম্পেইনের মতো ইউনিভার্সাল অ্যাপ ক্যাম্পেইনে প্রতিটি অ্যাড আলাদা করে ডিজাইন করতে হবে না। বরং ডেভেলপারের অ্যাড টেক্সট ও অ্যাপ স্টোর লিস্টিং থেকে বিভিন্ন ধরনের অ্যাড ডিজাইন, ফরম্যাট এবং নেটওয়ার্ক বেছে নিয়ে ব্যবহার করা হবে। আপনাকে যা করতে হবে, তা হচ্ছে কিছু টেক্সট দেয়া, শুরু করার জন্য বিড ও বাজেট, ভাষা ও অ্যাডের লোকেশন ঠিক করে দেয়া। গুগলের সিস্টেম বিভিন্ন ধরনের কম্বিনেশন চেক করবে এবং সে অ্যাডটাই দেখাবে যেটা সবচেয়ে ভালো কাজ করবে। অতিরিক্ত কোনো কাজ করার দরকার হবে না। প্রতিটি ডাউনলোড থেকে সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়ার জন্য অ্যাডওয়ার্ড টার্গেটিং ও বিডিং সিস্টেমকে অটোমেটেড করেছে।
ইনস্টল বা ইন-অ্যাপ কনভার্সনের জন্য অ্যাড অপ্টিমাইজড
গুগলের সিস্টেম ইউনিভার্সাল অ্যাপ অ্যাডস বানিয়ে দেবে মুহূর্তের মধ্যেই। একই সাথে সবচেয়ে রিলিভেন্ট অ্যাড ইনভেন্ট্রি ও প্লেসমেন্ট খুঁজে বের করবে। অ্যাড বানাতে অ্যাডওয়ার্ড রিলিভেন্ট অ্যাপ্লিকেশন স্টোরে অ্যাপের লিস্টিং ও আপনার দেয়া যেকোনো ধরনের টেক্সট আইডিয়া, অ্যাপ স্টোরের বিভিন্ন অপশনাল ইমেজ ও ইউটিউব ভিডিও ব্যবহার করে থাকে। গুগল সিস্টেম স্বয়ংক্রিয়ভাবে অ্যাড রোটেড ও বিড অ্যাডজাস্ট করে, যাতে অ্যাপের অপ্টিমাইজেশনের সাথে মিল রেখে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড পাওয়া যায়। উদাহরণস্ব^রূপ, যদি দেখা যায় এক লাইন টেক্সট অন্য এক লাইনের চেয়ে ভালো ফল দেয়, তবে ভালো ফল নিয়ে আসা টেক্সটকে গুগলবেশি করে দেখাবে।
আপনার অ্যাড কোথায় কোথায় প্রদর্শিত হতে পারে
সাধারণত আপনার অ্যাড গুগলের সব প্রোপার্টিতে দেখানোর উপযোগী। এদের তালিকায় আছে গুগল সার্চ ও গুগল প্লে এবং গুগলের সব সার্চ পার্টনার, ইউটিউব, গুগল ডিসপ্লে নেটওয়ার্কসহ আরও অনেক পাবলিশার- যারা অ্যাপ অ্যাড হোস্ট করে। আপনার অ্যাড কোথায় আসতে পারে নিচে তার একটি তালিকা দেয়া হলো।
গুগল সার্চ নেটওয়ার্ক
গুগল প্লে।
গুগল সার্চ।
গুগল সার্চ পার্টনার।
আপনার অ্যাপ অথবা তার ক্যাটাগরির সাথে সার্চ টার্মের ও অ্যাড ম্যাচের কাজটি গুগল সতর্কতার সাথে করে থাকে। বেশ কিছু ম্যাথোডের সাহায্যে গুগল কিওয়ার্ড জেনারেট করে থাকে, যার অন্যতম হচ্ছে গুগল প্লে ও সার্চ টার্মগুলো, যেগুলোই মূলত লোকেদের আপনার অ্যাপের কাছে নিয়ে আসে।
ইউটিউব
ইউটিউবের রিলিভেন্ট পেজ ও কনটেন্ট।
ইউটিউবের যেখানে অ্যাড দেখালে সবচেয়ে বেশি লাইক পাওয়া যাবে ও সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়ার সম্ভবনা থাকবে, অ্যাডওয়ার্ড ঠিক সেখানে আপনার অ্যাড দেখাবে।
গুগল ডিসপ্লে নেটওয়ার্ক
অন্যান্য অ্যাপ।
নতুন ওয়েবসাইটের মোবাইল ওয়েবসাইট, ব্লগ ও অন্যান্য।
অন্যান্য অ্যাপ ও গুগল ডিসপ্লে নেটওয়ার্কের যেখানে সামঞ্জস্যপূর্ণ যেসব জায়গার সবকটিতে আপনার অ্যাড দেখানোর উপযোগী। আপনার সেট করা টার্গেট সিপিএ (কস্ট পার ইনস্টল) অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি কনর্ভাসন পাওয়ার জন্য অ্যাডওয়ার্ড আপনার অ্যাডকে অপটিমাইজ করে দেবে।
বিডিং ও বাজেট
ইউনিভার্সাল অ্যাপ ক্যাম্পেইন দুই ধরনের কাস্টমার অবজেকটিভসহ ভিন্ন ভিন্ন অপটিমাইজেশন অপশন অফার করে।
০১. বেশি বেশি ইনস্টলেশনের ওপর ফোকাস করা
এ ক্ষেত্রে প্রথম অপশন ‘Get new users for your app’ ব্যবহার করতে হবে। পরের কাজ গুগল অ্যাডওয়ার্ডের। অ্যাডওয়ার্ড আপনার অ্যাপের জন্য বেশি বেশি নতুন ইউজার পাওয়ার জন্য আপনার বিডস ও টার্গেটিং অপটিমাইজেশন করবে।
০২. সিলেক্টেড ইন-অ্যাপ অ্যাকশনের ওপর ফোকাস করা
যারা অ্যাপ নিয়ে কাজ করবেন, তারা দ্বিতীয় অপশনটি ‘Get new users who are likely to complete in-app actions that you select’ নির্বাচন করবেন। তাহলে গুগল অ্যাডওয়ার্ড আপনার সেট করা অ্যাপ ক্যাটাগরি অনুযায়ী লোকেদেরকে খুঁজে বের করবে। মার্কেটিং সফল হওয়ার জন্য টার্গেটে কাস্টমারদের খুঁজে পাওয়া খুবই দরকারি একটি বিষয়। না হলে অযথা সময় ও টাকার অপচয় হবে।
কস্ট পার ইনস্টল বিডস
বিড সেট করার মাধ্যমে অ্যাডওয়ার্ডকে জানানো হয়, প্রতিবার কেউ যখন আপনার অ্যাপটি ইনস্টল করবে, তখন আপনি গড়ে কত টাকা খরচ করতে চান। মনে রাখতে হবে, অ্যাডওয়ার্ডে ঠিক করা বাজেট যত বেশি সম্ভব অ্যাপ ইনস্টলের জন্য ব্যবহার করা হবে। তাই আপনি যদি প্রতিদিনের বাজেট ৩০ ডলার ঠিক করে দেন এবং প্রতি ইনস্টলের জন্য ৩ ডলার কস্ট ঠিক করেন, তবে আপনি আপনার অ্যাড থেকে প্রতিদিন ১০টি ইনস্টল পাওয়ার আশা করতে পারেন। এখানে পুরো ৩০ ডলার খরচ করা হবে অ্যাপ ইনস্টলের জন্য
ফিডব্যাক : hossain.anower009@gmail.com

পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৭ - জুলাই সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস