Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > হুয়াওয়ের নতুন স্মার্টফোন
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: সোহেল রানা
মোট লেখা:৪০
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৮ - জুন
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
নিউজ
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগতের খবর
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
হুয়াওয়ের নতুন স্মার্টফোন
হুয়াওয়ের নতুন স্মার্টফোন

সম্প্রতি নোভা সিরিজে নতুন স্মার্টফোন থ্রিই বাজারে ছেড়েছে হুয়াওয়ে। এতে যুক্ত হয়েছে নচ প্রযুক্তি ও দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন। হুয়াওয়ের আগের ফোনগুলোর তুলনায় এর চারপাশের ফ্রেমের পুরুত্ব অনেক কমিয়ে ফেলা হয়েছে। এতে ফোনটি প্রায় বেজেলহীন, অর্থাৎ চারপাশে প্রায় ফ্রেমহীন। ফোনটিতে দেয়া আছে হালনাগাদ অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ ওরিও অপারেটিং সিস্টেম। এ ছাড়া দ্রুত ও পরিবর্তনশীল দৃষ্টিনন্দন থিম, হাইকেয়ার, ওয়াই-ফাই ব্রিজ, ইউজার মোড, বিল্ট-ইন অ্যান্টিভাইরাস, হুয়াওয়ে আইডি ও ক্লাউড স্টোরেজ, হুয়াওয়ে শেয়ার এবং সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য নাকল সেন্সরের মতো ফিচার যুক্ত হয়েছে এতে। ডিভাইসটিতে ব্যবহার করা হয়েছে হুয়াওয়ে ইএমইউআই ৮।

হুয়াওয়ে থ্রিইর নিরাপত্তাব্যবস্থার জন্য যুক্ত করা হয়েছে ফেস আনলক ফিচার। এর ফলে সেটিংস থেকে ফেস আনলক অপশন চালু করে নিয়ম অনুযায়ী নিরাপত্তাব্যবস্থা নিতে পারবেন।স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অত্যাধুনিক লাইট ফিউশন প্রযুক্তির ১৬ + ২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ব্যাক ক্যামেরা এবং সেলফি তোলার জন্য ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা নিয়ে মোট চারটি ক্যামেরা। মাত্র শূন্য দশমিক ৩ সেকেন্ডে অটো ফোকাস, বিএসআই সেন্সর, উন্নত ফ্ল্যাশ, জিও ট্যাগিং, এইচডিআর, প্যানোরমা, সেলফ টাইমার, লাইট পেইন্টিং ও ফেস ডিটেকশন ফিচার রয়েছে এতে। ফোনটির ১৯: ৯ স্ক্রিন-টু-বডি আনুপাতিক মাপের ৫.৮৪ ইঞ্চি ফুলএইচডি স্ক্রিনে ব্যবহার করা হয়েছে হুয়াওয়ে ফুলভিউ ডিসপ্লে ২.০। ডিভাইসটিতে প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ক্ষমতাসম্পন্ন হাইসিলিকন কিরিন ৬৫৯ মডেলের ৬৪ বিটের অক্টাকোর প্রসেসর। দ্রæতগতিতে মাল্টিটাস্কিং, গেম খেলাসহ অন্যান্য কাজ করতে এতে আছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রম বা অভ্যন্তরীণ মেমোরি। এ ছাড়া মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত মেমোরি বাড়ানো যাবে।নোভা থ্রিইতে আছে ৩০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের নন-রিমুভেবল ব্যাটারি। দাম ২৭ হাজার ৯৯০ টাকা

চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে চন্দ্রযান পাঠিয়েছে চীন

চাঁদের দক্ষিণ মেরু অন্ধকারাচ্ছন্ন একটি অঞ্চল। অঞ্চলটি পর্যবেক্ষণ করার লক্ষ্যে মহাকাশে সম্প্রচারকাজের উপযোগী একটি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠিয়েছে চীন। সম্প্রতি সিচুয়ান রাজ্যের শিচ্যাং উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে দ্য কুয়িকিয়াও নামের ওই সম্প্রচার স্যাটেলাইট পাঠানো হয়। চীনের মহাকাশ গবেষণা কর্তৃপক্ষ (সিএনএসএ) বলছে, এ বছরে অভূতপূর্ব এক মিশনে পাঠানো হয় বিশেষ ওই কৃত্রিম উপগ্রহ।লং মার্চ-৪সি নামের একটি রকেটে করে কৃত্রিম উপগ্রহটি পাঠানোর ২৫ মিনিট পর সেটি পৃথক হয়ে যায় এবং সৌর প্যানেল ও যোগাযোগ অ্যানটেনা চালু করে। এটি গন্তব্যের দিকে যেতে শুরু করেছে।কৃত্রিম উপগ্রহ প্রকল্পের ব্যবস্থাপক ঝ্যাং লিহুয়ার বরাতে বার্তা সংস্থা সিনহুয়া বলেছে, চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ এবং ওই অঞ্চল পর্যবেক্ষণে চীনের এই উপগ্রহ পাঠানোর বিষয়টিকে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। পৃথিবীতে বসানো কন্ট্রোলারের সাথে ওই কৃত্রিম উপগ্রহটি চাঁদের ওই মেরুর বিভিন্ন তথ্য সম্প্রচার করতে পারবে। ওই সম্প্রচার করা তথ্যের ভিত্তিতে এ বছরের শেষ দিকে চেঞ্চ-৪ নামের একটি চন্দ্র রোবট পাঠানো হবে। রোবটটির নাম রাখা হয়েছে চীনের রূপকথার চাঁদের দেবীর নামের সাথে মিল রেখে।চাঁদের অন্ধকার দিক হিসেবে পরিচিত দক্ষিণ মেরু পৃথিবী থেকে সরাসরি দেখা যায় না। ১৯৫৯ সালের প্রথম ছবি পাওয়ার পর থেকেও ওই অঞ্চলে অভিযান চালানো হয়নি। চেঞ্চ-৪ নামের ওই রোবট দক্ষিণ মেরুর আইকন বেসিনে অভিযান চালাবে। এটি হবে চাঁদে অবতরণকারী চীনের দ্বিতীয় চন্দ্রযান। এর আগে ২০১৩ সালে ইয়তু নামের একটি চন্দ্রযান পাঠিয়েছিল দেশটি।ইয়তু যানটি শুরুতে যোগাযোগবিচ্ছিন্ন হলে তা ব্যর্থ বলেই ধরে নিয়েছিলেন চীনা গবেষকেরা। তবে পরে এটি সক্রিয় হয়ে পৃথিবীতে সঙ্কেত পাঠাতে শুরু করে এবং ৩১ মাস পর্যন্ত চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে সঙ্কেত পাঠায়। এরপর থেকে সিএনএসএ চেঞ্চ-৫ নামের আরেকটি চন্দ্রযান পাঠানোর পরিকল্পনা শুরু করেছে চীন। এটি চাঁদ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পৃথিবীতে আনতে সক্ষম হবে।চীন তাদের সেনাবাহিনী পরিচালিত মহাকাশ কর্মসূচিতে কোটি কোটি ডলার খরচ করছে। ২০২২ সাল নাগাদ স্পেস স্টেশন তৈরি করে ভবিষ্যতে চাঁদে মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনা করছে দেশটি
ডিজিটাল বিজ্ঞাপনকে গুরুত্ব দিতে শুরু করেছে অ্যাপল
ডিজিটাল বিজ্ঞাপন ব্যবসাকে গুরুত্ব দেয়ার চেষ্টা করছে মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপল কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে স্ন্যাপ, পিন্টারেস্টসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে অ্যাপল নেটওয়ার্কে টানার চেষ্টা করছে।জনপ্রিয় এ অ্যাপগুলোর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করার পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে অ্যাপল। এতে ওই অ্যাপ নির্মাতাদের সাথে আয় ভাগাভাগি করবে প্রতিষ্ঠানটি।বর্তমানে ডিজিটাল বিজ্ঞাপন ব্যবসায় গুগল আর ফেসবুকের আধিপত্য রয়েছে। অ্যাপল এখন এ খাতটিকে গুরুত্ব দেয়া শুরু করলে যন্ত্র বিক্রির পাশাপাশি ডিজিটাল বিজ্ঞাপনের বাজারেও স্থান দখল করবে।বিশ্লেষকেরা বলছেন, বড় বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান তাদের প্রবৃদ্ধি বাড়াতে নতুন নতুন ক্ষেত্রে ব্যবসায় বাড়াচ্ছে। এতে অবশ্য তাদের জন্য নতুন ঝুঁকিও তৈরি হচ্ছে। ডিজিটাল বিজ্ঞাপনের ব্যবসায় নামতে হলে অ্যাপলকেও ব্যবহারকারীর তথ্য নিয়ে ব্যবসায় করতে হবে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরেই ব্যবহারকারীর তথ্য নিয়ে অ্যাপল কোনো ব্যবসায় করে না বলে গর্ব করে আসছেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা।

সে গর্ব চুরমার হয়ে যাবে

সহজ ডটকমের নতুন লোগো উন্মোচন
অনলাইনে টিকেট কাটা ও রাইড শেয়ার সুবিধা নিয়ে নতুন করে পথচলা শুরু করছে সহজ ডটকম। প্রতিষ্ঠানটির লোগোতেও এসেছে পরিবর্তন। সম্প্রতি রাজধানীর আগারগাঁওয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে নতুন লোগো উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটি। এ সময় ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়।সহজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মালিহা এম কাদির বলেন, ২০১৪ সালে শুরু হয় সহজ। ‘জীবনটাকে সহজ করুন’ এই ধারণাকে সামনে রেখে অনলাইনে টিকেটিং সেবা চালু করে প্রতিষ্ঠানটি। পরে যুক্ত হয় রাইড শেয়ারিং সেবা। বিভিন্ন সেবাকে এক জায়গায় আনতে চলমান চাকার একটি লোগো যুক্ত করা হয়েছে।তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, চার বছর ধরে সহজ অনলাইন টিকেট কাটার সুবিধা দিচ্ছে। রাইড শেয়ারিংয়ে এসেছে ‘সহজ রাইডস’। এ ধরনের উদ্যোগ জীবনযাপন সহজ করার পাশাপাশি কর্মসংস্থানেরও সুযোগ তৈরি হয়

অ্যাপিকটায় বেসিসের প্রতিনিধি পরিবর্তন

অ্যাপিকটার নির্বাহী কমিটিতে নতুন তিন প্রতিনিধি মনোনীত করেছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)। তারা হলেন বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফারহানা এ রহমান এবং সহসভাপতি শোয়েব আহমেদ। অ্যাপিকটার নতুন নির্বাহী কমিটিতে না থাকায় বিপণন উপ-কমিটির পদ হারালেন বেসিসের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি রাসেল টি আহমেদ।
প্রতিনিধি পরিবর্তন এবং মার্কেটিং সাব-কমিটির চেয়ারপারসনের পদ ধরে রাখার জন্য বেসিসের পক্ষ থেকে অ্যাপিকটার চেয়ারম্যান স্ট্যান সিংকে ই-মেইলে অনুরোধ করা হয়। উত্তরে স্ট্যান সিং জানান, অ্যাপিকটায় সদস্য সংগঠনের প্রতিনিধি বদল হলে পদটি ফাঁকা হয়ে যায়। বেসিসের নতুন মনোনীত কারও ওই পদটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে পাওয়ার সুযোগ নেই। যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার আলোকে নতুন একজন ওই পদে নির্বাচিত হবেন।
এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, ‘আমি বা বেসিস এই বিষয়ে অবগত নই।’ অন্যদিকে রাসেল টি আহমেদ বলেন, ‘আমি বেসিসের সভার কার্যবিবরণী ও অ্যাপিকটা থেকে জানতে পেরেছি, বেসিসের বর্তমান কার্যনির্বাহী পরিষদ মনোনীতদের তালিকা থেকে আমাকে বাদ দিয়েছে। তারা সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আমার সাথে কোনো আলোচনা করারও প্রয়োজনবোধ করেননি।’

প্রসঙ্গত, গত ১৭ মার্চ মিয়ানমারে অ্যাপিকটার ৫৭তম কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় ২০১৮-২০ মেয়াদের জন্য নতুন পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে অ্যাপিকটার মার্কেটিং সাব-কমিটির চেয়ারপারসন হিসেবে নির্বাচিত হন বেসিসের তৎকালীন জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি রাসেল টি আহমেদ।
আগামী ৯-১৩ অক্টোবর চীনের গুয়াংঝুয়ে ১৮তম অ্যাপিকটা অ্যাওয়ার্ডসের আয়োজন করা হবে। অন্য সদস্য দেশগুলো যেখানে ইতোমধ্যে মনোনয়ন চূড়ান্ত করেছে, বাংলাদেশ সেখানে এখনো স্থানীয় সম্মেলন আয়োজনের পরিকল্পনা পর্যায়ে আছে

বাংলাদেশে সাইবার নিরাপত্তায় সহযোগিতা করবে রাশিয়া: মোস্তাফা জব্বার
বাংলাদেশের সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাশিয়া সহযোগিতা করবে বলে মন্তব্য করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। সম্প্রতি আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে অনুষ্ঠিত ‘রাশিয়া-বাংলাদেশ আইটি সামিট-২০১৮’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের অবদানের কথা স্মরণ করেন। বাংলাদেশের সাথে রাশিয়ার ঐতিহাসিক সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশের উন্নয়নে রাশিয়ার সাথে যৌথভাবে কাজের আশা করেন তিনি।

বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম বলেন, দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দক্ষ জনবল সৃষ্টিতে রাশিয়া ও বাংলাদেশের একত্রে কাজ করার অনেক সুযোগ রয়েছে।সম্মেলনে রাশিয়ার তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ আনঝিগানোভ ইলিয় বলেন, ই-গভর্নমেন্ট, স্মার্টসিটি, হেলথ সার্ভিস, স্মার্টপাওয়ার, এনার্জিসহ বিভিন্ন খাত দ্রুত ডিজিটালাইজ করতে হবে। রাশিয়া বাংলাদেশের সব উন্নয়ন কার্যক্রমের অংশীদার হতে প্রস্তুত।রুশ সরকার পরিচালিত তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান স্কলকোভো ইনোভেশন সেন্টারের স্কলকোভো ফাউন্ডেশন মূলত এনার্জি, স্ট্র্যাটেজিক কমপিউটার প্রযুক্তি, বায়োমেডিসিন, পারমাণবিক প্রযুক্তি এবং মহাকাশ প্রযুক্তির এই পাঁচটি খাতে কাজ করে। আইটি-সামিটে স্কলকোভো ফাউন্ডেশনের সহায়তায় বাংলাদেশে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করা কয়েকটি আইটি প্রতিষ্ঠানের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। এর মধ্যে রয়েছে সফটলাইন
গ্রুপ, গ্রুপ আইবি, ডিজিটাল ডিজাইন

পৃথিবী পর্যবেক্ষণে নতুন স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ চীনের
চীন পৃথিবী পর্যবেক্ষণে গাওফেন-৬ নামের নতুন একটি স্যাটেলাইট সম্প্রতি উৎক্ষেপণ করেছে। এ স্যাটেলাইট প্রধানত কৃষিজাত সম্পদ গবেষণা এবং দুর্যোগ মোকাবেলায় ব্যবহার করা হবে।খবরে বলা হয়, চীনের উত্তর-পশ্চিমে স্থাপিত জিউকুয়ান স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে বেইজিং সময় দুপুর ১২টা ১৩ মিনিটে লং মার্চ-২ডি’র একটি রকেটের সাহায্যে গাওফেন-৬ উৎক্ষেপণ করা হয়।একই সময়ে লোজিয়া নামের বৈজ্ঞানিক গবেষণামূলক অপর একটি স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়। লং মার্চ রকেট সিরিজের এটি ছিল ২৭৬তম মিশন

শতাধিক সরকারি সেবা এখন অনলাইনে: পলক
আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘২০০৮ সালে মাত্র দুই-তিন ধরনের সেবা অনলাইনে গ্রহণ করা যেত, কিন্তু বিগত সময়ে আমরা শতাধিক সরকারি সেবাকে অনলাইনে সহজলভ্য করেছি। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নির্দেশনা ও তত্ত¡াবধানে আমরা ২০২১ সালের মধ্যেই ৯০ শতাংশ সেবা অনলাইনে সহজলভ্য করতে কাজ করে চলেছি।’ সম্প্রতি এস্তোনিয়ার রাজধানী তাল্লিনে ‘হাউ টু ম্যানেজ ডিজিটাল সিটিজেন সেন্ট্র্রিক ই-গভর্ন্যান্স?’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় এক প্রশ্নের জবাবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা দেশের তিন ধরনের জনগণকে টার্গেট করেই ই-গভ সেবা বিস্তৃত করছি। যেমন ডিজিটাল নেটিভস যারা ইন্টারনেট যুগেই জন্মগ্রহণ করেছে এবং বেড়ে উঠছে; ডিজিটাল অ্যাডাপ্টারস ক্রমাগতভাবে যারা নিজেদেরকে ইন্টারনেট ব্যবহারে সম্পৃক্ত করছে; ডিজিটাল আউটলেয়ার্স যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করে না এবং ব্যবহার করতেও ইচ্ছুক নয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই ডিজিটাল আউটলেয়ার্সদের ইন্টারনেট সেবায় নিয়ে আসাটাই বড় চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা সারাদেশে পাঁচ সহ¯্রাধিক ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করেছি। এখন তাদেরকে এসব ডিজিটাল সেন্টারে এসে ই-গভ সেবা গ্রহণে আমরা উদ্বুদ্ধ করছি। এ ছাড়া আমরা প্রান্তিক পর্যায়ে ব্রডব্যান্ড সংযোগ বিস্তৃত করছি এবং জনগণের প্রয়োজনীয় সেবাগুলোকে অনলাইনে নিয়ে আসতে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে চলেছি।

পলক বলেন, স্বল্প সময়ে, কম খরচে এবং বারবার সরকারি অফিসে জনগণকে যাতে ধরনা দিতে না হয়, সে বিষয়গুলো মাথায় রেখে আমরা ই-গভর্ন্যান্স পরিকল্পনা করেছি। ফলে সরকারের সব মন্ত্রণালয়, বিভাগ, সংস্থা জনগণের জন্য আলাদা আলাদা অনলাইন সেবা চালু করে। প্রাথমিকভাবে সেসব সেবা প্রদানে সমন্বয় ছিল না বললেই চলে।

কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এস্তোনিয়ার প্রেসিডেন্ট কার্সটি কালজুলেইদ বলেন, বর্তমানে বিশ্বের চার বিলিয়নেরও অধিক মানুষ অনলাইনের সাথে সংযুক্ত এবং মানুষ এখন গড়ে ৬ ঘণ্টারও বেশি সময় অনলাইনে ব্যয় করে। সেজন্য জনগণকে আমরা ডিজিটাল সিটিজেন হিসেবে গণ্য করছি এবং অনলাইনেই তাদেরকে সব ধরনের সরকারি সেবা দেয়ার মাধ্যমে কার্যকরভাবে ই-গভর্ন্যান্সে নিশ্চিত করতে বিশ্ববাসীর একযোগে কাজ করতে হবে।

দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী সেশনের প্যানেল আলোচনায় সেন্ট লুসিয়ার প্রধানমন্ত্রী এলেন চ্যাস্টনেট, স্মার্ট কাতালোনিয়া স্পেনের পরিচালক ডেনিয়েল মার্কো অংশ নেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ইজিএ’র (এস্তোনিয়ান গভর্নমেন্ট একাডেমি) প্রোগ্রাম ডিরেক্টর অব স্মার্ট গভর্নমেন্ট লিনার ভিক
বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৮.৬ কোটি
বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন ৮ কোটি ৬০ লাখে পৌঁছেছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) দেয়া তথ্য মতে, গত মার্চে এ সংখ্যা ছিল ৮ কোটি ৪৫ লাখ এবং এগ্রিলে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৮ কোটি ৫৯ লাখে।ব্যবহারকারীদের এ সংখ্যার অধিকাংশই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। গত মার্চে এ সংখ্যা ছিল ৭ কোটি ৮৭ লাখ, যা পরবর্তী মাসে বেড়ে দাঁড়ায় ৮ কোটি ১ লাখে।
বাকিরা ক্যাবল সংযোগের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। গত মার্চে এ সংখ্যা ছিল ৫৬ লাখ ৬০ হাজার এবং এপ্রিল মাসে এ সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৬ লাখ ৬৮ হাজারে। এছাড়া গত এপ্রিল মাসে ওয়াইম্যাক্স সংযোগের মাধ্যমে সারাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী হচ্ছেন প্রায় ৮৭ হাজার
এআইএসবির সভাপতি ইজাজুল, সম্পাদক রাকিবুল
অ্যাসোসিয়েশন ফর ইনফরমেশন সিস্টেমস বাংলাদেশের (এআইএসবি) ২০১৮-১৯ মেয়াদের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন পিএলসির তথ্যপ্রযুক্তি প্রধান ড. ইজাজুল হক এবং সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. রাকিবুল হক।

নতুন নির্বাচিত কমিটির অন্য সদস্যরা হচ্ছেন কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আনিসুর রহমান (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), প্রকাশনা ও মেম্বারশিপ পরিচালক মো. শহীদুল ইসলাম ফকির (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়) এবং ইভেন্টস ও এফিলিয়েশন পরিচালক মো. মোফাজ্জাল হোসেন (ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট)। অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মাহফুজ আশরাফ এআইএসবির সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করছেন।
উল্লেখ্য, অ্যাসোসিয়েশন ফর ইনফরমেশন সিস্টেমস বাংলাদেশ (এআইএসবি) হলো অ্যাসোসিয়েশন ফর ইনফরমেশন সিস্টেমসের (এআইএস) একটি স্থানীয় চ্যাপ্টার। এআইএস ইনফরমেশন সিস্টেমস পেশাদারদের বৃহত্তম অলাভজনক প্রতিষ্ঠান, যা ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এর উদ্দেশ্য হলো প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিজীবনে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে অগ্রগতি অর্জন করা

রবি ক্যাশের মাধ্যমে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট

নিজস্ব ডিজিটাল পেমেন্ট সলিউশন রবি ক্যাশের মাধ্যমে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট কেনার সেবা প্রদান করছে মোবাইল ফোন অপারেটর ও ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানি রবি। এর ফলে ঈদের ছুটিতে স্বাচ্ছন্দ্যে ট্রেনের টিকেট কিনতে পারবেন গ্রাহকেরা। সেবাটি পেতে রবি গ্রাহকদের প্রথমে মোবাইল ফোন থেকে *১৩১# লিখে ডায়াল করে টিকেট বুকিং দিতে হবে। এরপর একটি সহজ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদেরকে যাত্রার তারিখ, যাত্রা শুরুর স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, ট্রেনের নাম, শ্রেণী ও কাক্সিক্ষত সিট সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহ করতে হবে। টিকেট বুকিং প্রক্রিয়া শেষে বুকিং কোডসহ গ্রাহক সাথে সাথে একটি এসএমএস পাবেন, যাতে টিকেটটি কেনার জন্য টাকার পরিমাণও উল্লেখ থাকবে। এসএমএসটি গ্রহণ করার ৩০ মিনিটের মধ্যে দেশজুড়ে রবির ৩০ হাজার ক্যাশ পয়েন্টের যেকোনোটিতে টিকেটের মূল্য পরিশোধ করা যাবে। এছাড়া গ্রাহকেরা পুরো প্রক্রিয়াটি এজেন্ট পয়েন্টগুলোর সহায়তায় করতে পারবেন।

মূল্য পরিশোধ করার পর গ্রাহক এসএমএসে একটি ই-টিকেট নম্বর পাবেন। এই ই-টিকেটটি রেলস্টেশনের কমপিউটার কাউন্টারে দেখিয়ে গ্রাহকদেরকে প্রিন্ট টিকেট সংগ্রহ করতে হবে। ট্রেন ছাড়ার অন্তত এক ঘণ্টা আগে টিকেটটি সংগ্রহ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। দেশের ৫২টি রেলস্টেশনে এই ই-টিকেট পাওয়া যাবে।

প্রতিসিটের টিকেটের জন্য ২০ টাকা সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের নিয়ম অনুযায়ী টিকেটটি হস্তান্তরযোগ্য নয় এবং একটি নম্বর থেকে মাসে সর্বোচ্চ চারবার লেনদেন করা যাবে। মোবাইলভিত্তিক ট্রেন টিকেটিং সলিউশনটির মাধ্যমে সপ্তাহের সাত দিনই সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত টিকেট কেনা যাবে। যাত্রার সর্বোচ্চ ১০দিন আগে থেকে টিকেট কেনার সুযোগ পাবেন গ্রাহকরা

বিনামূল্যে অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ দেবে ইশিখন

অনলাইনের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করছে ইশিখন ডটকম। এবারেও সারাদেশ থেকে ১০০০ জনকে অনলাইনে ফ্রি লাইভ ক্লাসের মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে দক্ষ প্রশিক্ষকদের তত্তাবধানে ১৬টিকোর্সে অংশ নেয়ার সুযোগ থাকছে। নারী ও চাকরিজীবীরা সন্ধ্যার পর ঘরে বসেই এই কোর্সে অংশ নিতে পারবেন। কোর্স শেষে ফ্রিল্যান্সিং করার সুযোগ তৈরি হবে।ইশিখনের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশের যেকোনো জায়গা থেকে ইন্টারনেটযুক্ত কমপিউটার কিংবা স্মার্টফোনের মাধ্যমে কোর্সগুলোতে অংশ নেয়া যাবে। কোর্সগুলোর লাইভ ক্লাসের ডিভিডিও সংগ্রহ করা যাবে। কোর্সগুলোর মেয়াদ তিন থেকে পাঁচ মাসব্যাপী। ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইন, অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্টসহ মোট ১৬টি কোর্স রয়েছে। একজন একাধিক কোর্সে অংশ নেয়ার সুযোগ পাবেন না। কোর্সের জন্য কোনো ফি নেই। নিবন্ধন ফি ১০৮০ টাকা।

ইশিখন ডটকমের প্রধান নির্বাহী ইব্রাহিম আকবর জানান, দীর্ঘদিন ধরেই ইশিখন অনলাইনে বিনা কোর্স ফিতে ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ দেয়। বিনামূল্যের কোর্স হওয়ায় অনেকে আগ্রহ দেখাতে চান না বলে নিবন্ধন ফি রাখা হয়। এবার ১০০০ জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। কোর্সের গুরুত্ব ঠিক রাখতে এবং প্রকৃত শিক্ষার্থীদের সুযোগ করে দিতে নিবন্ধন ফি রাখা হয়েছে

অ্যাপাসার পেনড্রাইভ এনেছে টেকরিপাবলিক

দ্রুতগতির নিরাপদ তথ্য পরিবহন ও সংরক্ষণ সুবিধাযুক্ত পেনড্রাইভ দেশের বাজারে নিয়ে এসেছে টেক রিপাবলিক। অ্যাপাসার এএইচ৩৫৯ মডেলের পেনড্রাইভটি একাধারে ব্যবহারবান্ধব ও দৃষ্টিনন্দন। পেনড্রাইভটির ক্যাপ যেন হারিয়ে না যায় সেজন্য এর পেছন ভাগে রয়েছে এটি আটকে রাখার বিশেষ ব্যবস্থা। একইসাথেসহজে বহন করার জন্য রয়েছে কি-চেইন। অপরদিকে ইউএসবি ৩.১ পোর্টের হওয়ায় এটির তথ্য পরিবহন গতি ৫ জিবি পর্যন্ত বহাল থাকে। ১৬ ও ৩২ জিবি তথ্য ধারণক্ষমতার অ্যাপাসার এএইচ৩৫৯ পেনড্রাইভটির দাম যথাক্রমে ৫৭৫ ও ৯৫০ টাকা
বাংলাদেশে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল নিয়ে সহায়তা করবে আইএফসি
ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স কর্পোরেশনের (আইএফসি) বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ম্যানেজার ওয়েন্ডি জো ওয়ার্নার ইজেনারেশন লিমিটেডের কার্যালয় পরিদর্শন করেছেন। সম্প্রতি রাজধানীর গুলশানে দেশের শীর্ষস্থানীয় সফটওয়্যার ও তথ্যপ্রযুক্তি সেবাদাতা এই প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয় পরিদর্শন করেন তিনি। ইজেনারেশন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, ডাটা অ্যানালাইসিস, বøক চেইন এবং সাইবার সিকিউরিটির মতো সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে দক্ষ বিশেষজ্ঞ তৈরি করেছে। একইসাথে ইজেনারেশন স্টার্টআপে বিনিয়োগ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত রয়েছে এবং ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকটি উদীয়মান প্রযুক্তি স্টার্টআপে বিনিয়োগ করেছে।

পরিদর্শনকালীন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ইজেনারেশন গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ফেনক্স ফেঞ্চার ক্যাপিটালের জেনারেল পার্টনার শামীম আহসান, ইজেনারেশন গ্রæপের নির্বাহী ভাইস চেয়ারম্যান এসএম আশরাফুল ইসলাম, জেমসক্লিপ ডটকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন খান, বাগডুম ডটকমের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মিরাজুল হক প্রমুখ। ইজেনারেশন গ্রæপ ও এর সহযোগী প্রতিষ্ঠানের বোর্ড মেম্বারদের সাথে বৈঠকে প্রথম বাংলাদেশী সফটওয়্যার কোম্পানি হিসেবে আইপিওতে যাওয়ার প্রক্রিয়াধীন হওয়ায় ইজেনারেশনের ভূয়সী প্রশংসা করেন ওয়েন্ডি।
ওয়েন্ডি জো ওয়ার্নার বলেন, আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতার সাথে তাল মিলিয়ে টিকে থাকতে বাংলাদেশে ডিসরাপ্টিভ টেকনোলজি তৈরিতে দক্ষতা ও অবকাঠামো তৈরি ক্রমেই জরুরি হয়ে উঠছে, যা ধারাবাহিকভাবে জাতীয় অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। বাংলাদেশে প্রাইভেট খাতের টেকসই প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যবসায়কে সহজ করতে ইজেনারেশনের সাথে যৌথভাবে কাজ করবে আইএফসি। দেশে স্টার্টআপ কোম্পানি বেড়ে উঠতে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তৈরি ও ব্যবস্থাপনায় আইএফসির সহায়তার কথা নিশ্চিত করেন তিনি
শিশুদের সাইবার নিরাপত্তায় বাজেটে প্রকল্প গ্রহণের প্রস্তাব
প্রাক-বাজেট আলোচনায় সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আগামী অর্থবছরের বাজেটে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে পৃথক প্রকল্প গ্রহণের প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আমন্ত্রণে সারা দেশের নির্বাচিত কয়েকজন শিশু প্রতিনিধি সম্প্রতি অর্থ সচিব মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরীর সাথে সাক্ষাৎ করে জাতীয় বাজেট ২০১৮-১৯ নিয়ে তাদের প্রত্যাশা ও সুপারিশমালায় এ প্রস্তাব দেয়। এছাড়া শিশুরা শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সামাজিক নিরাপত্তা, সব ধরনের শিশু সহিংসতা বন্ধসহ বিভিন্ন খাতে সুপারিশ ও প্রস্তাবনা তুলে ধরে।
বাংলাদেশ সচিবালয়ে শিশু প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। উপস্থিত ছিলেন সেভ দ্য চিলড্রেনের চাইল্ড প্রটেকশন অ্যান্ড চাইল্ড রাইটস গভর্ন্যান্স সেক্টরের ডিরেক্টর লায়লা খন্দকার, চাইল্ড রাইটস গভর্ন্যান্স সেক্টরের ডেপুটি ডিরেক্টর, গভর্ন্যান্স অ্যান্ড পাবলিক ফাইন্যান্স আশিক ইকবাল এবং প্ল্যান বাংলাদেশের সিনিয়র ম্যানেজার অপারেশনস ফারুক আলম খান।

জাতীয় বাজেট ২০১৮-১৯ নিয়ে সারা দেশের ৪ হাজার ৮০০ শিশু তাদের বাজেট ভাবনা প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণের মাধ্যমে তুলে ধরে। সেভ দ্য চিলড্রেন ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশনালের সহায়তায় শিশু সংগঠন ন্যাশনাল চিলড্রেনস টাস্ক ফোর্স (এনসিটিএফ) সেসবের সঙ্কলন ও উপস্থাপনের কাজটি করে। অর্থ সচিব মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী বলেন, ‘শিশুরা বাজেট নিয়ে মতপ্রকাশ করছে, সরকারের কাছে তাদের দাবি তুলে ধরছেন এটি খুবই প্রশংসনীয়। সরকারের পক্ষ থেকেও চেষ্টা থাকবে তাদের আশা-আকাক্সক্ষা ও প্রয়োজনের
প্রতি দৃষ্টি দিয়ে বাজেট প্রণয়ন করার।’

উল্লেখ্য, জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদের (ইউএনসিআরসি) সাধারণ মন্তব্য ১৯ (২০১৬)-এ শিশুদের অধিকার বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় বাজেট বরাদ্দ এবং তার প্রয়োগের জন্য রাষ্ট্রগুলোর প্রতি সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া বাজেট প্রক্রিয়ায় শিশুর অংশগ্রহণ উৎসাহিত করার প্রতিও গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।
গত অর্থবছর ১৩টি মন্ত্রলালয় ও বিভাগের জন্য ৫৬ হাজার কোটি টাকার পৃথক শিশু বাজেট উপস্থাপন করা হয়। ২০১৫-১৬ অর্থবছর থেকে শিশু বাজেট ঘোষণা করা হচ্ছে। এবছরও জাতীয় বাজেটে শিশু অধিকার বাস্তবায়নে সরকারের সদিচ্ছার প্রতিফলন দেখা যাবে বলে শিশুরা আশা প্রকাশ করে

বিডিএইচপিএ’র আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশ ডোমেইন হোস্টিং প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিডিএইচপিএ) আয়োজনে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতিএক সন্ধ্যায় রাজধানীর তেজগাঁওয়ের আরজতপাড়ার একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে এ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন বিডিএইচপিএ’র সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আল আজাদসহ সংগঠনের নেতারা।এ সময় বিডিএইচপিএ’র সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন বলেন, বাংলাদেশে ডেমেইন হোস্টিং প্রোভাইডার্সদের একমাত্র সংগঠন এটি। এই সংগঠনটি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অবদান রেখে চলছে। তিনি সংগঠনটির সব নেতা, সদস্য এবং দেশবাসীর জন্য শুভকামনা জানান।বিডিএইচপিএ’র সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আল আজাদ বলেন, প্রতিবছর রমজানের শুরুতেই বিডিএইচপিএ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হলো। এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সদস্যদের মধ্যে পারস্পরিক সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য বাড়ে।

ইফতারের আগে সংগঠনটির নেতারা ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে তাদের ভূমিকা উল্লেখ করে নিজেদের মতামত তুলে ধরেন
উগান্ডায় ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করলে কর দিতে হবে
ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করতে গেলে সরকারকে কর দিতে হবে। এমনই বিচিত্র আইন জারি করেছে উগান্ডার সরকার। গুজব ছড়ানো ঠেকাতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

১ জুলাই থেকে এই আইন কার্যকর হওয়ার কথা। কিন্তু এই আইনকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যেই এত বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়েছে যে, আদৌ এই আইন কার্যকর করা হবে কি না, সেটা নিয়েই সন্দেহ রয়েছে। এর আগে মোবাইলে অর্থের লেনদেনের ওপরে সরকার ১ শতাংশ কর বসানোয় সেটা নিয়েও ক্ষোভ দেখা দিয়েছিল সে দেশের সরকারের ওপরে।
এদিকে সরকারের দাবি, তাদের ওপরে যে বিপুল পরিমাণ বিদেশি ঋণ রয়েছে, তা কমাতেই এই সিদ্ধান্ত। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞেরা এবং ইন্টারনেট পরিষেবা দানকারী সংস্থাদের সংস্থা ইতোমধ্যেই সন্দেহ প্রকাশ করেছেন এই আইনে কীভাবে ঋণ শোধ করা সম্ভব হবে। কারণ উগান্ডার মতো দেশে ভুয়া নথি দিয়ে হাজার হাজার সিমকার্ড নথিভুক্ত করা রয়েছে।
উগান্ডায় ২ কোটি ৩৬ লাখ মানুষ মোবাইল পরিষেবা ব্যবহার করেন। তার মধ্যে ১ কোটি ৭০ লাখ মানুষ মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট পরিষেবা ব্যবহার করেন।

বিনামূল্যে নাগরিক সমস্যার সমাধান দেবে ডিজিটাল মানুষ
নাগরিক এই কর্মব্যস্ত জীবনে প্রতিনিয়ত মুখোমুখি হতে হচ্ছে নানান সমস্যার। আপনি হয়তো অফিসে ব্যস্ত সময় পার করছেন, এইদিকে আপনার বাসার ফ্রিজটি কাজ করছে না, ওভেনটিতে সমস্যা, বৈদ্যুতিক লাইনে ত্রুটি বা আাপনার টয়লেটের ফ্ল্যাশটি কাজ করছে না, আবার আশপাশেও পরিচিত কেউ নেই।

এসব জটিল সমস্যার সমাধান এখন আপনার হাতের মুঠোয়। শুধু আপনার ফোনে কয়েকটি বাটন চেপে নিমিষে আপনার সমস্যার সমাধান করে দেয়ার মতো মানুষের সাথে যোগাযোগ করে নিতে পারবেন।এসব সমস্যার সমাধান দিতে রয়েছে একঝাঁক ডিজিটাল মানুষ। ডিজিটাল মানুষ বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অ্যাপভিত্তিক সার্ভিস প্ল্যাটফর্ম।ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্র মো. খন্দকার আলিফ ডিজিটাল মানুষ অ্যাপভিত্তিক এই প্লাটফর্মের সিইও এবং প্রতিষ্ঠাতা। তিনি জানান, আমরা সত্যিই আনন্দিত যে, রাজধানী ঢাকা শহরের ৯০ ভাগের বেশি এলাকায় ডিজিটাল মানুষ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে তাদের স্বাচ্ছন্দ্য জীবন উপভোগ করছেন। সার্ভিসটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দিতে কাজ করছেন ৬ হাজারের বেশি দক্ষ ও অভিজ্ঞ মানুষ। আমরা চট্টগ্রাম, সিলেট, নারায়ণগঞ্জ, খুলনা, ময়মনসিংহেও কাজ করছি। আমরা ২০১৯ সালের মধ্যে সারাদেশে ছড়িয়ে যাব আশা করছি। মো. খন্দকার আলিফ আরও জানান, ডিজিটাল মানুষ তার ব্যক্তিগত অর্থায়নে পরিচালিত। সম্প্রতি বাংলাদেশ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল লিমিটেড (বিবিসিএল) এবং ডিজিটাল মানুষ সিড ফান্ড গঠনের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।ডিজিটাল মানুষ হলো এমন একটি অ্যাপভিত্তিক সার্ভিস প্ল্যাটফর্ম, যেখানে সার্ভিস প্রোভাইডার এবং ক্লায়েন্টরা তাদের প্রয়োজনীয় সার্ভিসটি আদান-প্রদানের জন্য যোগাযোগ করে থাকেন। দৈনিক বাসাবাড়ি বা অফিসের প্রয়োজনে ডিজিটাল মানুষ প্লাটফর্মে বিভিন্ন ক্যাটাগরির সার্ভিস রয়েছে। এগুলো হলো ইলেকট্রিশিয়ান, প্লাম্বার, এসি সার্ভিসিং, গ্যাস টেকনিশিয়ান, ওয়াটার ট্যাপ, ট্যাঙ্ক সার্ভিসিং, বাড়ি বা অফিস স্থানান্তর, আইটি সার্ভিস, ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, ইন্টেরিয়র ডিজাইনসহ
৮০টি ক্যাটাগরির সার্ভিস

‘আসন্ন বাজেট হবে তথ্যপ্রযুক্তি খাতবান্ধব’
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সাথে বেসিস কার্যনির্বাহী পরিষদেও বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতি সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটকে সামনে রেখে সফটওয়্যার ও আইটি সেবার সাথে সংশ্লিষ্ট বিদ্যমান কর, মূসক, শুল্ক এবং আইটি কোম্পানিসমূহের জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে কর অব্যাহতি সনদ ইস্যুকরণ, ইইএফ অবিলম্বে চালুকরণসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে। পাশাপাশি স্থানীয় সফটওয়্যার ও আইটি প্রতিষ্ঠানসমূহ যাতে দেশের সব ক্ষেত্রে স্থানীয়ভাবে তৈরি সফটওয়্যার ব্যবহার করে এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ এবং সচেতনতা সৃষ্টির ব্যাপারেও ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অভিভাবক সংস্থা হিসেবে ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নে সরকারের সাথে একযোগে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে বেসিস।এসময় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বেসিসের প্রস্তাবগুলোকে গুরুত্বসহকারে বিবেচনার আশ্বাস দেন। পাশাপাশি অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন যেকোনো দেশের জন্যই অনুসরণীয়। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে বেসিস অনেকদিন ধরেই সরকারের সাথে কাজ করছে। আসন্ন বাজেটে তথ্যপ্রযুক্তি খাতবান্ধব সিদ্ধান্তই নেয়া হবে। বৈঠকে উপস্থিত বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফারহানা এ রহমান বলেন, বেসিস তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে এবং স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের অগ্রাধিকার যাতে আসন্ন বাজেটে প্রতিফলিত হয়, সেই যৌক্তিক দাবিগুলো তুলে ধরেছে। অর্থমন্ত্রী অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে আমাদের প্রস্তাবগুলো শুনেছেন। আশা করি আসন্ন বাজেটে আমরা এর প্রতিফলন দেখতে পাব।

বৈঠকে বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফারহানা এ রহমানের নেতৃত্বে অংশ নেন বেসিস সহসভাপতি (প্রশাসন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ, সহসভাপতি (অর্থ) মুশফিকুর রহমান, পরিচালক মোস্তফা রফিকুল ইসলাম ও পরিচালক দিদারুল আলম সানি

ইজিয়ারে এবার লং ডিসটেন্স রেন্ট-এ-কার সেবা

বড় পরিসরে ঢাকা থেকে আন্তঃজেলাভিত্তিক রেন্ট-এ-কার সেবা চালু করতে যাচ্ছে রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইজিয়ার। লং ডিসটেন্স এমন অ্যাপভিত্তিক সেবা তাদের নতুন সংযোজন। এই সুবিধায় যোগ হলো ঢাকা থেকে দেশের যেকোনো জায়গা এবং বিভিন্ন জেলার যেকোনো জায়গা থেকে ঢাকাতে যাওয়া ও আসার সুযোগ।

যাত্রার শুরুতে শুধু ঢাকাতেই রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদান করছিল ইজিয়ার। এবার প্রতিষ্ঠানটি ২১ মে থেকে আন্তঃজেলাভিত্তিক এই সেবাটি চালু করছে। যেকেউ যাত্রীসেবা দিতে চাইলে গুগল প্লে-স্টোর থেকে ‘ঊততণজ উজওঠঊ’ অ্যাপটি ডাউনলোড করে সম্পন্ন করে ফেলতে পারেন রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি এবং যুক্ত হয়ে যেতে পারেন ইজিয়ারের সাথে। যাত্রীসাধারণ ‘ঊততণজ’ অ্যাপটি গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন রাইড শেয়ারিং সেবা গ্রহণ করার জন্য।উল্লেখ্য, ইজিয়ার হচ্ছে ইনোভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেডের একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। ইনোভেডিয়াস বেসিস এবং ই-ক্যাবের মেম্বার প্রতিষ্ঠান। ইনোভেডিয়াস মূলত সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এবং আইটিইএস পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৮ - জুন সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস