Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সফটওয়্যারের কারুকাজ
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: আবুল বাশার
মোট লেখা:৪
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৮ - জুলাই
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সফটওয়্যারের কারুকাজ
সফটওয়্যারের কারুকাজ

উইন্ডোজ ১০-এ স্ক্রিনশুট নেয়া
ভালো কিছু কারণে উইন্ডোজ ১০-এ স্ক্রিনশুট নেয়া দরকার হয়। আপনার ডেস্কটপে কী কী আছে, তা দ্রুতগতিতে কাউকে দেখানোর জন্য অথবা ভিডিও থেকে কোনো বিশেষ মুহূর্তকে দ্রুত গ্র্যাব করার জন্য স্ক্রিনশুট দরকার হতে পারে, যা আপনি অন্যদের সাথে শেয়ার করতে চান। উইন্ডোজ ১০-এর বিল্ট-ইন স্ক্রিনশুট কন্ট্রোল খুব সহজে ব্যবহার করা যায়, তবে সেগুলো ঠিক স্পষ্ট নয়।

উইন্ডোজে তিনটি বিল্ট-ইন স্ক্রিনশুট কিবোর্ড শর্টকাট আছে, যেগুলোর বেশিরভাগই উইন্ডোজের আগে ভার্সনে কাজ করে। যারা শক্তিশালী স্ক্রিনশুট ইউটিলিটি পছন্দ করেন, তারা ইচ্ছে করলে থার্ড-পার্টি ইউটিলিটি ব্যবহার করতে পারেন।

প্রিন্টস্ক্রিন

পুরনো স্ক্রিনশুট স্ট্যান্ডার্ড এখনো উইন্ডোজ ১০-এ বিদ্যমান আছে। কিবোর্র্ডে চৎঃঝপহ বাটন চাপুন। এর ফলে সম্পূর্ণ স্ক্রিন অথবা মাল্টি-মনিটর সেটআপে স্ক্রিন ক্লিপবোর্ডে কপি হবে। এখান থেকে ইচ্ছে করলে এটি পেইন্ট, জিআইএমপি, ফটোশপ অথবা অন্য কোনো ফটো এডিটর প্রোগ্রামে পেস্ট করতে পারবেন, যা আপনাকে একটি ইমেজ পেস্ট করার সুযোগ করে দেবে।

প্রিন্টস্ক্রিন + উইন্ডোজ কী

প্রিন্টস্ক্রিনের (PrtScn) আপগ্রেড ভার্সন ব্যবহার হয় উইন্ডোজ ৮ থেকে, যেমন Windows key + PrtScn। এ দুটি কী যুগপৎভাবে চাপুন। এর ফলে আপনার স্ক্রিন বা স্ক্রিনসমূহ এক সেকেন্ডের জন্য ব্লিং করবে ঠিক ক্যামেরার শাটার ওপেন এবং ক্লোজ করার মতো করে। ফাইল এক্সপ্লোরার ওপেন করে Pictures ® Screenshots-এ নেভিগেট করলে দেখতে পারবেন স্ক্রিনশুট আপনার জন্য অপেক্ষা করছে।

শুধু বর্তমান উইন্ডোকে প্রিন্ট করা

যদি আপনার ব্যবহৃত বর্তমান প্রোগ্রামের স্ক্রিনশুট প্রয়োজন হয়, যেমন ক্রোম, ওয়ার্ড, এক্সেল অথবা পাওয়ার পয়েন্টের, তাহলে Alt + PrtScn-এ ট্যাপ করুন। এর ফলে এটি সিস্টেম ক্লিপবোর্ডে বর্তমানে ফোকাস করা উইন্ডোর একটি ইমেজ কপি করবে। ঠিক PrtScn শর্টকাটের মতো ব্যবহার করে আপনি ইমেজকে ফটো-এডিট অথবা অন্যান্য ইমেজ ফ্রেন্ডলি প্রোগ্রাম যেমন জিমেইল ওয়েব অ্যাপে ইমেজকে পেস্ট করতে পারবেন।
উইন্ডোজ স্লিপিং টুল ব্যবহার করা
উইন্ডোজের বিল্ট-ইন স্লিপিং টুল (Snipping Tool) আপনাকে স্ক্রিন ক্যাপচার করার সুযোগ করে দেবে। এ কাজ করার জন্য স্টার্ট বাটনে ক্লিক করে ঝহরঢ় টাইপ করে ঝহরঢ়ঢ়রহম ঞড়ড়ষ-এ ক্লিক করুন। এরপর ঘবি ড্রপডাউনে ক্লিক করে কাক্সিক্ষত snip যখন স্ক্রিন মলিন হয়ে যাবে তখন প্রোগ্রাম স্নিপ করার জন্য প্রস্তুত হবে। যদি স্নিপ করার জন্য প্রস্তুত না হয় তাহলে ঈধহপবষ-এ ক্লিক করুন। এ ক্ষেত্রে স্নিপপকে আপনার কাক্সিক্ষত ফরম্যাট যেমন GIF, JPEG, PNG, Ges HTML-এ সেভ করতে পারবেন। এটি ক্লিপবোর্ডে কপি করুন, এটি ইমেইল করুন অথবা পেন এবং হাইলাইটার ব্যবহার করে কিছু বেসিক নোটিফিকেশন যুক্ত করুন।

জাহাঙ্গীর হোসেইন

শ্যামলী, ঢাকা
উইন্ডোজ ১০-এ
ডার্ক মোডএনাবল করা
উইন্ডোজ ডার্ক মোড নামের এক সেটিং অফার করে, যা উইন্ডোজ স্টোর থেকে পাওয়া অ্যাপসে ডার্ক থিম অ্যাপ্লাই করে। এটি বেশিরভাগ ডেস্কটপ অ্যাপস অথবা টুলস যেমন ফাইল এক্সপ্লোরারকে প্রভাবিত করে। এগুলোর জন্য অন্যান্য সমাধানও আছে।

এই বিল্ট-ইন ডার্ক মোড আপনার উইন্ডোকে ব্যাক করে, টেক্সট এবং আইকন উজ্জ্বলতর কালারে পরিবর্তন করে এবং সবকিছু ঝাপসা বা অস্পষ্টভাবে আবির্ভূত হয়। যদি আপনি অধিকতর গাঢ় টোনে অথবা ডার্ক মোড সমর্থিত কন্ট্রাস্ট অবয়বে কাজ করতে পছন্দ করেন, তাহলে এ ফিচারকে অ্যাক্টিভেট করার জন্য নিচে বর্ণিত ধাপগুলো অনুসরণ করুন

* Settings-এ অ্যাক্সেস করুন। এ কাজটি করতে পারেন হয় উইন্ডোজ সার্চ
বারে টাইপ করে অথবা স্টার্ট মেনুর গিয়ার আইকনে ক্লিক করে।
* এবার Personali“ation-এ মনোনিবেশ করুন। এটি একটি কমপিউটার
মনিটরে পেইন্ট ব্রাশের আইকন।
* উইন্ডো ওপেন হওয়ার পর বাম দিকের সাইড বারে Colors-এ ক্লিক করুন।
* এবার প্রথম সেকশনের নিচের দিকে স্ক্রল করুন এবং Choose your app
mode অপশনের খোঁজ করুন। এখানে আপনি Light এবং Dark এই
দুটি
অপশন পাবেন। এবার বাবলের পাশে উধৎশ চেক করুন।
* এবার কালার প্যালেটে Colors উইন্ডোতে স্ক্রল করুন সক্রিয় ডার্ক
মোডে অ্যাকসেন্ট কালার অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ উইন্ডোজের বাউন্ডারি খুঁজে পেতে এবং সবকিছু কোথায় আছে তা এক নজরে দেখতে।

উইন্ডোজ ১০-এ ট্রাবলশুটার চালু করা
উইন্ডোজ ১০-এ সমন্বিত আছে খুব সহায়ক এবং অল্প পরিচিত এক টুল, যা পারফরম্যান্স সমস্যা খুঁজে বের করে সেগুলো সমাধান করে। এটি চালু করার জন্য কন্ট্রোল প্যানেল (Control Panel) রান করুন এবং System and Security ® Security and Maintenance ® Troubleshooting ® Run maintenance tasks সিলেক্ট করুন। এর ফলে Troubleshoot and help prevent computer problems শিরোনামে এক স্ক্রিন আবির্ভূত হবে। এবার Next-এ ক্লিক করুন।

আপনি যেসব ফাইল এবং শর্টকাট ব্যবহার করেন না, ট্রাবলশুটার সেগুলো খুঁজে বের করে। পারফরম্যান্স এবং পিসির অন্য যেকোনো ইস্যু আইডেন্টিফাই করে আপনার কাছে রিপোর্ট করে সেগুলো ফিক্স করুন। লক্ষণীয়, আপনি Try troubleshooting as an administrator শিরোনামে এক মেসেজ পেতে পারেন। যদি আপনার কাছে পিসির অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ক্ষমতা থাকে, তাহলে এতে ক্লিক করলে ট্রাবলশুটার টুল চালু হবে এবং কাজ করা শুরু করবে।

মাইক্রোসফট ওয়ার্ডের কিছু টিপ
পূর্ববর্তী লোকেশন খুঁজে বের করা
যারা অনেক বড় ডকুমেন্ট নিয়ে কাজ করেন তাদের জন্য মাঝেমধ্যে কার্সরের আগের অবস্থানে যাওয়া দরকার হতে পারে, বিশেষ করে কোনো কিছু বন্ধ করা এবং আবার ওপেন করার ক্ষেত্রে। আপনার সেভ করা ডকুমেন্টে সর্র্বশেষ সময়ে কার্সর অবস্থানে সুইচ করার জন্য ঝযরভঃ + ঋ৫ শর্টকাট কী ব্যবহার করুন।

হোয়াইট স্পেস হাইড করা

যদি প্রিন্ট লেআউটে ডকুমেন্ট ভিউ করেন, তাহলে খুব সহজেই আপনি প্রয়োজনাতিরিক্ত হোয়াইট স্পেস হাইড করতে পারবেন পেজ এবং টুলবারের মাঝে খালি জায়গায় মাউস কার্সর নড়াচড়া করার মাধ্যমে। এরপর ডাবল ক্লিক করুন। আবার ডাবল ক্লিক করুন আগের অবস্থানে ফিরে যাওয়ার জন্য।
রীতা
দক্ষিণ মুগদা, ঢাকা
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৮ - জুলাই সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস