Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > ওয়ার্ড এক্সেল পাওয়ারপয়েন্টসহ অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনে যেভাবে ফন্ট ব্যবহার করবেন
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: তাসনীম মাহ্‌মুদ
মোট লেখা:১২১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০১৮ - আগস্ট
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
সফটওয়্যার
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যার
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
ওয়ার্ড এক্সেল পাওয়ারপয়েন্টসহ অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনে যেভাবে ফন্ট ব্যবহার করবেন
ওয়ার্ড এক্সেল পাওয়ারপয়েন্টসহ অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনে যেভাবে ফন্ট ব্যবহার করবেন
সহজে আপনার ফন্ট ডাউনলোড, ইনস্টল এবং ম্যানেজ করা
তাসনীম মাহমুদ

ফন্ট হলো টেক্সটের গ্রাফিক্যাল রিপ্রেজেন্টেশন যা সম্পৃক্ত করতে পারে বিভিন্ন টাইপফেস, পয়েন্ট সাইজ, কালরার অথববা ডিজ্ইান। ছবি প্রদর্শন করে বিভিন্ন কমপিউটার ফন্টের উদাহরণ। সহজ কথায় বলা যায়, ফন্ট হলো একটি টাইপ ফেসের মধ্যে ক্যারেক্টারের পরিপূর্ণ সেট যেমন লেটার, নাম্বার এবং সিম্বল/আইকন যা হলো
ক্যারেক্টারের ডিজাইন। উদাহরণস্বরূপ, এরিয়েল হলো টাইপ ফেস, এরিয়েল বোল্ড, ইটালিক, ন্যারো, এক্সটেনডেট (ওয়াইড) ব্ল্যাক ইত্যাদী হলো ফন্ট বা ফন্ট ফ্যামিলি।

সফটওয়্যার প্রোগ্রাম যেমন মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, মাইক্রোসফট এক্সেল এবং ওয়ার্ড প্যাড ব্যবহারকারীদেরকে ডকুমেন্টে অথবা স্প্রেডশিটে টেক্সট টাইপ করার সময় দেয় তাদের ব্যবহার করা ফন্ট পরিবর্তন করার সুযোগ করে দেয়। ব্যবহারকারীরা টাইপফেস, সাইজ এবং ফন্টের কালার পরিবর্তন করতে পারেন, তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ডকুমেন্টে বিভিন্ন কম্বিনেশনের ফন্টের স্টাইল ব্যবহার করতে পারেন।
মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ব্যবহারকারীরা তাদের কমপিউটারে ইনস্টল করা সব ফন্ট খুঁজে পেতে পারেন C:\Windows\Fonts বা C:\Winnt\Fonts এ ডিরেক্টরিতে ব্রাউজ করে।

ওয়েব পেজ ও ফন্ট ব্যবহার করে এবং ওয়েব পেজ ডিজাইনারের সফটওয়্যার প্রোগ্রামের মতো টাইপ, সাইজ, ফন্ট কালার প্রয়োজন অনুযায়ী পরিবর্তন করা যায় ওয়েব পেজ ডিজাইনারের চাহিদা অনুযায়ী।
এখন আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি ফন্টে এক্সেসের সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে এবং প্রচুর পরিমাণে ফ্রি ফন্টও পাওয়া যাচ্ছে। গ্রাফিক্সের মতো ফন্ট প্রেজেন্টেশন (যেমন, পাওয়ারপয়েন্ট স্লাইড শো) তৈরি বা ভাঙতে, একটি বই বিক্রি, ম্যাগাজিন, নিউজপেপার, একটি বিজ্ঞাপন সফল বা ব্যর্থ করতে ফন্ট ব্যবহার হয়। এ লেখায় ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্যে ফন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা হয়েছে যাতে আপনি নিজের প্রোজেক্টের জন্য কাক্সিক্ষত ফন্ট ডাউনলোড করে প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবহার করতে পারেন।

প্রতিটি টাইপফেস বা ফন্ট নিচে বর্ণিত পাঁচ ধরনের মধ্যে এক ধরনের হবে :

* শেরিফ (Serif) টাইমস রোমান, বুকম্যান ওল্ড স্টাইল, ক্যামব্রিয়া, গ্যারামন্ড ইত্যাদি।

* স্যানস শেরিফ যার অর্থ হচ্ছে ক্যারেক্টারের শুরুতে এবং শেষে সংক্ষিপ্ত শেরিফ লাইন ছাড়া (এরিয়েল, হ্যালভাটিকা, হিউম্যানিস্টিক, ক্যালিব্রি ইত্যাদি)।

* স্ক্রিপ্ট (ক্যালিগ্রাফি স্টাইলস, ব্ল্যাক লেটার স্টাইলস, জাপফ চ্যান্সেরি, ইংলিশ অ্যাডেজিও ইত্যাদি)।

* ডেকোরেটিভ টাইপফেস (কসমিক, কিডস, কিবোর্ডস, প্লেট) ইত্যাদি।

* সিম্বল/আইকন যেগুলোর ইমেজ সাইজ উল্লেখ করা হয় পয়েন্টে (এক ইঞ্চির ১/৭২ ভাগ), পিক্সেল অথবা মিলিমিটার (যেমন- উইং ডিংস, বুলেট, অর্নামেন্টস, হলিডে-ফন্টস ইত্যাদি)।

* ইন্ডাস্ট্রি যখন থেকে ফন্ট ডিজাইন সফটওয়্যার তৈরি করা শুরু করে তখন থেকে আবির্ভূত হতে থাকে একটি ষষ্ঠ শ্রেণিবিভাগ (হ্যান্ডরাইটিং)। এ ধরনের টাইপফেস ইতোপূর্বে উল্লেখ করা যেকোনো এক ধরনের টাইপফেসের মধ্যে পরতে পারে।

ফন্ট সম্পর্কিত আরো কিছু তথ্য :

* বর্তমানে তিন ধরনের ফন্ট ফরম্যাট পার্সোনাল কমপিউটারের সাথে কম্প্যাটিবল; ম্যাকস এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ডিভাইস যেমন- ওপেনটাইপ (OTF), পোস্টস্ক্রিপ্ট (PS) এবং ট্রুটাইপ (TTF)।

* স্ক্রিপ্ট, ডেকোরেটিভ এবং হ্যান্ডরাইটিং টাইপফেস সচরাচর নাম্বার এবং স্পেশাল কিবোর্ড ক্যারেক্টার যেমন পাউন্ড বা হ্যাশ চিহ্ন প্রদানে ব্যার্থ হয়। এজন্য নাম্বার রিপ্রেজেন্ট করতে ব্যবহারকারীকে অন্য টাইপফেস সিলেক্ট করতে হয়। এ ধরনের বৈশিষ্ট্যসূচক কিছু ফন্ট শুধু আপার কেশ লেটার কাভার করে।

পিসির কোন জায়গায় ফন্ট অবস্থান করে?

উইন্ডোজ পিসিতে ফন্ট ইনস্টল হয় C:\Windows\Fonts ফোল্ডারে। মাইক্রোসফট অফিস প্রোগ্রাম, ফটোশপ, কোরেল ড্র, ইলাস্ট্রেটর সহ বর্তমানে জনপ্রিয় প্রায় সব সফটওয়্যার প্রোগ্রামে এ ফন্টগুলো পাওয়া যায়।
লক্ষণীয়, মাইক্রোসফট অফিসের সাথে প্রি-ইনস্টলভাবে আসা বিপুল সংখ্যক ফন্ট নিয়ে প্রচুর বিতর্ক আছে। উদাহরণস্বরূপ, মাইক্রোসফট অফিস প্রফেশনাল এবং প্রফেশনাল প্লাস এর রয়েছে প্রায় ২১৬টি ফন্ট এবং মাইক্রোসফট হোম অ্যান্ড স্টুডেন্ট এবং হোম অ্যান্ড বিজনেসের রয়েছে প্রায় ৬৮টি ফন্ট।

যেভাবে ফন্ট ডাউনলোড এবং ইনস্টল করবেন

ফন্ট ডাউনলোড প্রসেসটি খুব সহজ। তবে ফন্ট খুঁজে বের করাটা বেশ চ্যালেঞ্জিং কাজ কেননা ইন্টারনেটে প্রচুর পরিমাণে টাইপফেস থাকায় সম্পূর্ণ ফন্টের সংখ্যা নিরূপণ করা কঠিন। যদি ব্রাউজ করেন, তাহলে ফন্ট খোজার জার্নিটি উপভোগ করতে পারবেন। তবে যদি সেরা টাইপফেস খোঁজ করেন, নিচে বর্ণিত উপায় অনুসরণ করে আপনার কাক্সিক্ষত ফন্টটি খুঁজে পেতে পারেন :

* ফ্রি ফন্টের খোঁজ করুন এবং ফলাফল থেকে অন্যতম একটি ওয়েবসাইট সিলেক্ট করুন। যদি খুব তাড়া থাকে, তাহলে এমন এক সাইট বেছে নিন, যা প্রদান করে “Categories/Styles” লিস্ট যাতে ওইসব ক্যাটাগরি পরিহার করতে পারেন যা আপনি চান না।

* উদাহরণস্বরূপ, ১০০১ ফ্রি ফন্টস (1001 Free Fonts) সাইট ঠিক সাইট হেডারের নিচে প্রদান করে এক দীর্ঘ Categories/Styles স্টাইল লিস্ট। যদি এটি শিশুদের বই হয়, তাহলে Disney বা Fantasy গ্রুপ এর কথা বিবেচনা করতে পারেন, সায়েন্স ফিকশনের জন্য ঝপর ঋর গ্রুপের জন্য চেষ্টা করতে পারেন, অথবা নাইটস অব কিং আর্থার সম্পর্কিত বই এর জন্য টাইপফেস ব্যবহার করা হয় গবফরবাধষ গ্রুপ থেকে।

* টার্গেট ক্যাটাগরি জুড়ে ব্রাউজ করুন। একটি টাইপফেস সিলেক্ট করুন যেটি আপনার প্রোজেক্টের জন্য সবচেয়ে ভালো কাজ করবে। এবার Download বাটনে ক্লিক করুন।

* ফন্ট ফাাইলসমূহ সাধারণত কম্প্রেড জিপ ফরম্যাটে ডাউনলোড হয়। ধরুন, জিপ ফাইল ডিকম্প্রেস করার জন্য আপনার কাছে একটি প্রোগ্রাম আছে। এই প্রোগ্রাম সম্পূর্ণ প্রসেস জুড়ে আপনাকে গাইড করবে।

* পরবর্তী ডায়ালগ বক্সে ফন্ট ফাইল আবির্ভূত হওয়ার পর ফাইলে ডাবল ক্লিক করুন। এরফলে উইন্ডোজ ডিসপ্লে করবে একটি স্ক্রিন যা মাল্টিপল সাইজে টাইপফেস প্রদর্শন করবে। যদি এটি ভালো দেখায়, তাহলে Install বাটনে ক্লিক করুন।

* একটি ডায়ালগ Do you want the following program to make changes to this computer? পপ আপ করবে। যদি তাই হয়, তাহলে এবং এ ক্লিক করুন। এরফলে ফন্ট সরাসরি আপনার কমপিউটারের C:\Windows\Fonts ফোল্ডারে সরাসরি ইনস্টল হবে।

* আপনি ইচ্ছে করলে ডেস্কটপে আপনার জিপ ফাইল অথবা অন্য কোনো ফোল্ডারে কপি করতে পারেন। এজন্য জিপ ফাইল লোকেট করে ঈড়ঢ়ু বাটনে ক্লিক করুন।

* এরপর কার্সারকে তওচ ফাইলে রেখে ডান ক্লিক করুন।

* এবার ঙঢ়বহ ডরঃয সিলেক্ট করুন অথবা জিপ প্রোগ্রামের ওপর ভিত্তি করে ঊীঃৎধপঃ করুন এবং ড্রপ- ডাউন লিস্ট থেকে একটি জিপ প্রোগ্রাম সিলেক্ট করুন। এরপর ফাইল আনজিপ হবে এবং উইন্ডোজ আপনার নির্দিষ্ট করা ডেস্টিনেশন লোকেশনে এটি কপি করবে যেমন ডিস্কটপে।

* ডেস্কটপ থেকে অথবা অন্য কোনো ফোল্ডার থেকে আনজিপ করা ফাইল ইনস্টল করার জন্য (hv C:\Windows\Fonts ফোল্ডারের না) শুধু ফাইলে ডাবল ক্লিক করলে Install Fonts স্ক্রিন আবির্ভূত হবে। এরপর Install বাটনে ক্লিক করলে আপনার এ মিশন সম্পন্ন হবে।

যেভাবে ফন্ট ম্যানেজ করবেন

ফন্ট ম্যানেজ করার প্রসঙ্গে প্রথম যে প্রশ্নগুলো আসে তা হলো Ñ প্রতিটি সফটওয়্যার প্রোগ্রাম কতগুলো ফন্ট সাপোর্ট করতে পারে, কেন কিছু ফন্ট নির্দিষ্ট কিছু প্রোগ্রামে পাওয়া যায় এবং অন্যান্য প্রোগ্রামে পাওয়াা যায় না।
এ ধরনের প্রশ্নের উত্তর মাইক্রোসফটের কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। বিশেষজ্ঞেরা বিভিন্ন দিক পর্যালোচনা করে একমত হন যে, এ বিষয়টি নির্ভর করে সফটওয়্যার এবং সিস্টেমের মেমরির ওপর।

* অপারেটিং সিস্টেম এবং অ্যাপ্লিকেশনসমূহ কিছু র‌্যাম ব্যবহার করে তাদের স্বাভাবিক কাজ সম্পাদন করার জন্য। ফটোশপে ব্যবহার হওয়া সব প্লাগ-ইন অথবা ওয়ার্ডে ব্যবহার হওয়া সব অ্যাড-ইন সহ প্রায় ৪০০০ ফন্টসহ একটি ফন্ট ফোল্ডার এবং ডাটা বা ইমেজ ফাইল যেগুলো আপনি ব্যবহার করছেন এতে যুক্ত এবং এগুলো আপনার মেমরির সীমা ছাড়িয়ে যেতে পারে।

* যদি আপনার সিস্টেম মেমরি-ডেফিসিয়েন্ট অর্থাৎ অপ্রতুল মেমরি সম্পন্ন হয়, তাহলে আপনার হার্ড ডিস্কের অন্য কোথাও একটি সেকেন্ডারি ফন্ট ফোল্ডার তৈরি করার কথা বিবেচনা করতে পারেন। সব ধরনের বিভ্রান্ত এড়ানোর জন্য একে অন্য কিছু নামে অবিহিত করুন যেমন Fonts2 বা Uninstalled Fonts।

* এরপর ক্যাটাগরির জন্য এই ফোল্ডারের ভেতরে একটি সাব ফোল্ডার তৈরি করুন। এ ক্ষেত্রে প্রতিটি ক্যাটাগরি ফোল্ডারের ভেতবে থাকবে একটি স্টাইল সাব ফোল্ডার। এবার আপনার ব্যবহার করা সব সময়ের ফন্ট C:\Windows\Fonts ত্যাগ করতে পারেন। এবং আপনার বর্তমান প্রোজেক্টের জন্য প্রয়োজনীয় ফন্ট রি-ইনস্টল করে নিন। এরপর প্রোজেক্টের কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর সম্প্রতি ইনস্টল করা ফন্টগুলো আবার আন-ইনস্টল করে নিন।

* আপনি ইচ্ছে করলে প্রতিটি প্রোজেক্টে ব্যবহৃত সব ফন্ট ওই প্রোজেক্ট ফোল্ডারে কপি করার কথা বিবেচনা করতে পারেন (তবে আপনার ঋড়হঃং২ ফোল্ডার থেকে সেগুলো মুভ বা ডিলিট করবেন না অথবা সেগুলো ভবিষ্যৎ প্রোজেক্টে দৃশ্যমান হবে না)।

* আর্টিস্ট, গ্রাফিক্স ডিজাইনার, পেজ এবং লেআউট প্রোডাকশন কর্মচারী এবং টাইপসেটারেরা মাসে শত শত টাইপফেস ব্যবহাার করে। আর এ কারণে ফন্ট ম্যানেজার প্রোগ্রাম ব্যবহার হয়। বেশিরভাগই ফন্ট হলো ইউজার ফ্রেন্ডলি। কিছু কিছু ফ্রি ফন্টে বাড়তি কিছু ফিচার আপনি খুঁজে পাবেন না যেগুলো ফি ভিত্তিক ফন্টে দেখা যায়। এবার এমন প্রোগ্রাম বেছে নিন যা আপনার চাহিদা মেটাতে পারবে এবং কিছুক্ষণের জন্য প্লে করুন। এবার আপনার প্রোগ্রাম বেছে নেয়ার পর ফন্ট অর্গানাইজ করার কার্যক্রম শুরু করুন।

* উল্লেখ্য, চিত্র-৬-এ ফন্ট ম্যানেজার (FontBase) বাম দিকের কলাম ব্যবহার করে বিভিন্ন উপায়ে ফন্ট অর্গানাইজ করার জন্য : Favorites, Active, এবং Inactive এর মাধ্যমে অথবা কালেকশন সেটআপ অথবা তাদের ফোল্ডারে দেখার মাধ্যমে। মূল উইন্ডো স্টাইল এবং প্রতিটি টাইপফেসের ডিজাইন যথাযথভাবে ডিসপ্লে করে। সুতরাং আপনি লিস্ট জুড়ে স্ক্রল করতে পারবেন এবং প্রতিটি প্রোজেক্টের জন্য সেরা ফন্ট বেছে নিতে পারবেন
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটির সহায়ক ভিডিও
২০১৮ - আগস্ট সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস