Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সম্পাদকীয়
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: সম্পাদক
মোট লেখা:৩১৭
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৮ - মে
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
সম্পাদক
তথ্যসূত্র:
সম্পাদকীয়
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সম্পাদকীয়

অবহেলিত প্রযুক্তিনির্ভর সংস্কার

দেশে আজকের এই সময়ে রাজনীতি, অর্থনীতি, প্রশাসন, ব্যবসায়-বাণিজ্যে সবচেয়ে আলোচিত শব্দ সংস্কার৷ বর্তমান তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতায় আসার পর জনগরে কাছে সর্বপ্রথম যে প্রতিশ্র“তির বাণীটি শোনায়, সেটা হচ্ছে সংস্কার৷ সংস্কারে মাধ্যমে দেশে একটি সুষ্ঠু প্রশাসন ও সুষ্ঠু রাজনৈতিক চর্চার ক্ষেত্র তৈরি করা, অর্থনীতি ও ব্যবসায়-বাণিজ্যে ন্যায্যতা ও সততা প্রতিষ্ঠা করা, সর্বক্ষেত্রে দুর্নীতিবাজদের তাড়িয়ে ভালো, সৎ ও প্রজ্ঞাবান দেশপ্রেমিক মানুষদের নেতৃত্বে ও সামনের কাতারে নিয়ে আসার কথা বার বার উচ্চারিত হচ্ছে প্রধান উপদেষ্টাসহ অন্যান্য উপদেষ্টার কাছ থেকে৷ সেনাপ্রধানও একই সুরে কথা বলে আসছেন শুরু থেকেই৷ বর্তমান সরকারের উপদেষ্টাবর্গ ও সেনাপ্রধান একসুরে একই ধরনের জোরালো তাগিদ রেখে দেশে সংস্কারের কথা বলছেন, সে অনুযায়ী নানা উদ্যোগও সরকারের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে৷ বিচার বিভাগ স্বাধীন হয়েছে৷ দুর্নীতি দমন বিভাগও পুনর্গঠন করা হয়েছে৷ পুনর্গঠিত হয়েছে নির্বাচন কমিশন, পাবলিক সার্ভিস কমিশন৷ এ পুনর্গঠন ও সংস্কারে আমরা লক্ষ করেছি, পুরনো ব্যক্তির অপসারণ ও নতুন ব্যক্তিবর্গের সংযোজনের প্রক্রিয়াটিই অবলম্বিত হয়েছে৷ কিন্তু কার্যত সিস্টেমের তেমন কোনো পরিবর্তন হয়েছে বলে মনে হয় না৷ তাছাড়া গুটিকয়েক ক্ষেত্রেই এই ব্যক্তিবর্গের পরিবর্তন হয়েছে মাত্র৷ কিন্তু দেশের সার্বিক ক্ষেত্রে সার্বিক সংস্কার এখনো অনুপস্থিত৷ আমলাতন্ত্র রয়ে গেছে আগের অবস্থাতেই৷ সরকারি অফিস আদালত চলছে আগের অবস্থায়, আগের ব্যবস্থায়ই৷ অতএব সময়ের সাথে একদিন আবার শুরু হয়ে যাবে সেই পুরনো দুর্নীতির মহড়া৷ ইতোমধ্যেই লক্ষ করা গেছে, দুর্নীতি এখনো অব্যাহত৷ পুরনো দুর্নীতিবাজদের জায়গায় দখল করছে নতুন নতুন দুর্নীতিবাজ৷ এর মূল কারণ, গোটা সমাজ ও রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থায় যে সংস্কার প্রয়োজন ও প্রত্যাশিত ছিল, তা হয়নি৷ ফলে প্রকৃত সংস্কার থেকে যাচ্ছে অপূর্ণ৷ আসলে আমাদের প্রয়োজন তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সংস্কার ব্যবস্থা, যে সংস্কারের মাধ্যমে আমরা পেতে পারতাম একটা ই-গভর্নমেন্ট৷ যেখানে তথ্যপ্রযুক্তি আমাদেরকে উপহার দিতো এমন একটা ব্যবস্থা, যেখানে দুর্নীতিবাজদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়াতো এই তথ্যপ্রযুক্তি৷ তাই শুধু ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের অপসারণ বা বদল নয়, প্রয়োজন ছিল তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর একটি সংস্কার৷ কিন্তু আমরা বাস্তবে দেখছি, বহুল আলোচিত সংস্কারের তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সংস্কার রীতিমতো অবহেলিত হচ্ছে৷ আমরা মনে করি, সরকার সবক্ষেত্রে সংস্কারের যে উদ্যোগ হাতে নিয়েছে, তাকে সফল করার জন্যই প্রয়োজন সেখানে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সংস্কারের প্রতি সর্বোচ্চ জোর তাগিদ রেখে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেয়া ও এর যথাযথ বাস্তবায়ন৷ আশা করি, সে উপলব্ধি মাথায় রেখে সরকার সংস্কার এগিয়ে নেবে৷

আরেকটি বিষয়, তথ্যপ্রযুক্তির সুফল পেতে হলে প্রয়োজন সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলা৷ আজ সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ের মাধ্যমে যে ওয়েবভিত্তিক সমাজ ব্যবস্থা সদর্পে এগিয়ে চলেছে, তাকে অস্বীকার করার অন্য অর্থ সময়ের সাথে পিছিয়ে থাকা৷ ইন্টারনেটভিত্তিক সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং গত দুই-তিন বছরে যে দ্রুতগতিতে সামনে এগিয়ে চলেছে, তা সহজেই লক্ষণীয়৷ এই সামাজিক নেটওয়ার্কিংয়ের মাধ্যমে আজ প্রতিটি ব্যক্তির জন্য যে ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট খোলার সুযোগ উন্মুক্ত হয়েছে, তার মাধ্যমে যেকোনো ইন্টারনেট ব্যবহারকারী তাকে অন্যদের কাছে সহজেই তুলে ধরে সামাজিক স্রোতধারায় নিজেকে সম্পৃক্ত রাখতে পারে৷ আজকেই এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ের সময়ে কারো এ নেটওয়ার্কের বাইরে থাকার অর্থ নিজেকে অন্য ব্যক্তিবর্গ, সমাজ, এমনকি বিশ্ব থেকে সামাজিকভাবে বিচ্ছিন্ন করে রাখা৷ সুখের কথা, বাংলাদেশে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংয়ের চর্চা এরই মধ্যে আশাপ্রদভাবে শুরু হয়ে গেছে৷ আশা করি, এ প্রবণতা এ দেশের সবশ্রেণীর মানুষের মধ্যে সময়ের সাথে আরো জোরালো হবে৷ আমরা সামাজিকভাবে পারস্পরিক যোগাযোগকে করে তুলতে পারবো সুদৃঢ়৷ রক্ষা পাবো সামাজিক বিচ্ছিন্নতা থেকে৷ সামাজিক নেটওয়ার্কিং গুরুত্ব অনুধাবন করে বারাক ওবামাও তার রাজনৈতিক প্রচারে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিংকে কাজে লাগিয়েছেন যথার্থ গুরুত্ব দিয়ে৷ আমরা যেনো এর গুরুত্ব অনুধাবনে ব্যর্থ না হই৷ এ তাগিদ দিয়েই আমাদের এবারের প্রচ্ছদ প্রতিবেদন৷

অন্যদিকে আমাদের মেধাসম্পদ রক্ষায় সরকারের সীমাহীন অবহেলা বরাবরের৷ এক্ষেত্রে আছে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা ও অবকাঠামো সঙ্কটসহ নানা সমস্যা৷ এ বিষয়গুলো তুলে ধরে এ সংখ্যায় মোস্তাফা জব্বার একটি তাগিদী লেখা লিখেছেন৷ আশা করি লেখাটি পাঠকবর্গের ভালো লাগবে৷
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
২০০৮ - মে সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস