Comjagat.com-The first IT magazine in Bangladesh
  • ভাষা:
  • English
  • বাংলা
হোম > সফটওয়্যারের কারুকাজ
লেখক পরিচিতি
লেখকের নাম: কজ
মোট লেখা:১০৪১
লেখা সম্পর্কিত
পাবলিশ:
২০০৮ - মে
তথ্যসূত্র:
কমপিউটার জগৎ
লেখার ধরণ:
সফটওয়ার ->কারুকাজ
তথ্যসূত্র:
সফটওয়্যারের কারুকাজ
ভাষা:
বাংলা
স্বত্ত্ব:
কমপিউটার জগৎ
সফটওয়্যারের কারুকাজ

সিরিয়াল কী ছাড়া উইন্ডোজ এক্সপি/২০০০/২০০৩ সেটআপ

নতুন করে উইন্ডোজ সেটআপ দিলে প্রতিবার সিরিয়াল কী দিতে হয়৷ আর এই সিরিয়াল কী মুখস্থ রাখতে হয় বা কোথাও লিখে রাখতে হয়৷ নিচের পদ্ধতিতে সিরিয়াল কী ছাড়া উইন্ডোজ এক্সপি/২০০০/২০০৩ সেটআপ করতে পারবেন৷

প্রথমে উইন্ডোজ এক্সপি/২০০০/২০০৩ সিডি বা ডিভিডি হতে হার্ডডিস্কে কপি করুন৷ মনে রাখবেন ১৩৮৬ ফোল্ডারটি যেন পুরোটুকু কপি হয়৷ ফোল্ডার অপশন থেকে Show hidden files and folder সিলেক্ট করে ওকে দিয়ে বের হয়ে আসুন৷ এখন ১৩৮৬ ফোল্ডার গিয়ে setupp.ini ফাইলটির উপর রাইট ক্লিক করে Read Only অপশন থেকে টিক মার্ক উঠিয়ে দিন৷ এবার ফাইলটি খুলুন৷ ফাইলটিতে নিচের মতো লেখা পাবেন৷

[Pid]
ExtraData=6166656C736263737373B2574A0581
Pid=51873XXX
PID Gi XXX (ত্রিপল এক্স)-এর পরিবর্তে ২৭০ অর্থাৎ 270 দিয়ে পরিবর্তন করুন।এতে ফাইলটিতে দেখাবে:
[IPD]
ExtraData=6166656C736263737373B2574A0581
Pid=51873270


এবার ফাইলটি সেভ করে পুরো উইন্ডোজটি বুটেবল হিসেবে সিডিতে ইটজঘ করুন৷ এতে আপনাকে উইন্ডোজ এক্সপি/২০০০/২০০৩ সেটআপে প্রতিবার সিরিয়াল কী দিতে হবে না৷
...........................................................................................

উইন্ডোজ এক্সপিতে নেটমিটিং এনাবল করা

সাধারণত উইন্ডোজ এক্সপিতে নেটমিটিং সফটওয়্যারটি বিল্ট-ইন অবস্থায় ইনস্টল হয়ে থাকে৷ তবে এটি ব্যবহার করতে হলে এনাবল করতে হয়৷ এনাবল করতে নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুন :

স্টার্টরান conf.exe লিখে এন্টার দিন৷

এভাবে খুব সহজ পদ্ধতিতে এক্সপিতে নেটমিটিং এনাবল করা যায়৷ তবে উইন্ডোজ ২০০০-এ নেটমিটিংয়ের জন্য আলাদা সফটওয়্যার প্রয়োজন পড়ে৷

মোস্তাফিজুর রহমান রবিন
আড়াইহাজার, নারায়ণগঞ্জ
...........................................................................................

অ্যাডমিনিস্ট্রেটর অ্যাকাউন্টে এক্সেস করা

নিচে বর্ণিত কৌশল অবলম্বন করে আপনি অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অ্যাকাউন্টে এক্সেস করতে পারবেন৷ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের ক্ষমতাসম্বলিত ভিন্ন ইউজার অ্যাকাউন্টে পিসিতে লগইন করুন৷ এরপর Start->All ProgramsAccessories-> Command Prompt নেভিগেট করুন কমান্ড প্রম্পট ডায়ালগ বক্স ওপেন করার জন্য৷ এবার net user administrator কমান্ডটি টাইপ করুন৷ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরে নতুন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন এবং এন্টার চাপুন৷

লক্ষণীয় বিষয় : সাবধানতা অবলম্বনের জন্য বিকল্প কী তৈরি করুন যা উইন্ডোজ লেনগোতে পাসওয়ার্ড রিসেট ডিস্ক নামে পরিচিত৷ আর এ কাজটি করতে হবে অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার পরপরই৷ একাজটি করার জন্য নিচে বর্ণিত ধাপগুলো সম্পন্ন করুন :

পিসির সাথে ইউএসবি থাম্ব ড্রাইভ যুক্ত করুন৷

অ্যাডমিন ক্ষমতাসহ লগইন করুন৷ এবার Start-> Control Panetl গিয়ে User Account- এ বর্তমান অ্যাকাউন্ট ওপেন করুন৷
বাম দিকের প্যানে Prevent a forgotten password-এ ক্লিক করুন৷
Forgotten Password Wizard চালু হবে এবং কয়েকটি ধাপ আপনাকে গাইড করবে৷
...........................................................................................

কমান্ড প্রম্পট উইন্ডোর সাইজ বড় করা

সাধারণত কমান্ড উইন্ডো মাত্র ২৫ লাইন ডিসপ্লে করে যা দীর্ঘ টেক্সটের জন্য খুবই নগণ্য৷ যেমন হেল্প পেজ৷ নিচে বর্ণিত ধাপগুলো সম্পন্ন করে প্রদর্শিত কমান্ড লাইনের সংখ্যা বাড়ানো যায় :

কমান্ড প্রম্পট উইন্ডোর উপরের বাম প্রান্তে ক্লিক করে Properties সিলেক্ট করুন৷

Layout ট্যাবে সুইচ করুন এবং Window Size-এ উচ্চতার ভ্যালু পরিবর্তন করুন৷ এটিকে ৫০-এ সেট করুন৷ ডিফল্ট উইডথকে ৪০ ক্যারেক্টারে সেট করুন কেননা বেশিরভাগ এডিটরের ক্ষেত্রে ডিফল্ট ক্যারেক্টার উইডথ ৮০৷

Screen Buffer Size-এর অন্তর্গত উচ্চতা ৬০০তে বাড়িয়ে নিন৷ এই সংখ্যাটি কমান্ড প্রম্পটের নোটের লাইন সংখ্যা যার কারণে স্ক্রল ব্যাক করতে পারবেন৷ দীর্ঘ হেল্প টেক্সট ফাইল প্রদর্শনের জন্য যা সহায়ক হবে৷ ওকেতে ক্লিক করে এই সেটিংকে নিশ্চিত করুন এবং কমান্ড প্রম্পট উইন্ডো বন্ধ করুন৷ নতুন ভ্যালু কার্যকর থাকবে যখন কমান্ড প্রম্পটকে কল করা হবে৷

প্রীতম
দক্ষিণ মুগদা
...........................................................................................

ইন্টারনেট টাইম সার্ভারে আপনার কমপিউটারের ঘড়ি সিনক্রোনাইজ করা

যদি আপনার কমপিউটার ডোমেইনের অংশ না হয়ে থাকে, তাহলে আপনার কমপিউটারের ঘড়ির সময় ইন্টারনেট টাইম সার্ভারের সাথে সিনক্রোনাইজ করতে পারবেন৷ এ কাজটি করার জন্য আপনার টাস্কবারে টাইমে ডবল ক্লিক করুন৷ এবার Internet time ট্যাবে ক্লিক করুন৷ এবার টাইম সার্ভারে ক্লিক করুন যেটি ব্যবহার করতে চান এবং নিশ্চিত হয়ে নিন যে synchronize with an Internet time server চেকবক্স সিলেক্ট করা হয়েছে কি-না৷

আপনার ঘড়ি সিনক্রোনাইজ করার আগে ডেট যথাযথভাবে সেট করা হয়েছে কি-না তা নিশ্চিত হয়ে নিন৷ কেননা, Internet time server স্বয়ংক্রিয়ভাবে সময় আপডেট করে না যদি তারিখ ভুল হয়৷ যদি আপনার কমপিউটার পার্সোনাল বা নেটওয়ার্ক ফায়ারওয়াল ইনস্টল করা থাকে, তাহলে আপনাকে হয়তো টোয়েক করতে হবে অথবা time synchronization-কে আনব­ক করার জন্য সেটিং পরিবর্তন করতে হতে পারে৷

এরপর যখনই কমপিউটার স্টার্ট করবেন, সময় তখন Internet time server-এর সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সিনক্রোনাইজ হবে এবং অবহিত করবে আপনি সক্রিয় ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করছেন৷

...........................................................................................

বিরক্তিকর কোয়েরি ছাড়া ফাইল ডিলিট করা

যখনই কোনো ফাইল ডিলিট করা হয় তখন ভিসতা, এক্সপি নিশ্চিত হয়ে নেয়, আপনি সিলেক্ট করা ফাইল ও তার কনটেন্ট সত্যি সত্যি রিসাইলে বিনে নিতে চান কি-না৷ এ কোয়েরি আপাত দৃষ্টিতে উপকারী মনে হলেও তা বিরক্তিকর৷ এ ধরনের কোয়েরি থেকে মুক্ত হতে চাইলে নিচে বর্ণিত ধাপগুলো সম্পন্ন করুন :

ডেস্কটপ আইকন Recycle Bin-এ রাইট ক্লিক করুন৷
Properties কনটেক্সট কমান্ড ওপেন করুন৷
Gobal বা General ট্যাবের অন্তর্গত
Display delete confirmation dialog নিষ্ক্রিয় করুন৷
Ok করে নিশ্চিত করুন৷

সিরাজুল ইসলাম
ভিক্টোরিয়া রোড, টাঙ্গাইল
...........................................................................................

কারুকাজ বিভাগে লিখুন

কারুকাজ বিভাগের জন্য প্রোগ্রাম ও সফটওয়্যার টিপ্‌স লিখে পাঠান৷ লেখা এক কলামের মধ্যে হলে ভালো হয়৷ সফট কপিসহ প্রোগ্রামের সোর্স কোডের হার্ড কপি প্রতি মাসের ২০ তারিখের মধ্যে পাঠাতে হবে৷

সেরা ৩টি প্রোগ্রাম/টিপ্‌স-এর লেখককে যথাক্রমে ১,০০০ টাকা, ৮৫০ টাকা ও ৭০০ টাকা পুরস্কার দেয়া হয়৷ সেরা ৩ টিপ্‌স ছাড়াও মানসম্মত প্রোগ্রাম/টিপ্‌স ছাপা হলে তার জন্য প্রচলিত হারে সম্মানী দেয়া হয়৷ প্রোগ্রাম/টিপ্‌স-এর লেখকদের নাম কমপিউটার জগৎ-এর বিসিএস কমপিউটার সিটি অফিস থেকেও জানা যাবে৷ পুরস্কার কমপিউটার জগৎ-এর বিসিএস কমপিউটার সিটি অফিস থেকে সংগ্রহ করতে হবে৷ সংগ্রহের সময় অবশ্যই পরিচয়পত্র দেখাতে হবে এবং পুরস্কার চলতি মাসের ৩০ তারিখের মধ্যে সংগ্রহ করতে হবে৷

এ সংখ্যায় প্রোগ্রাম/টিপ্‌স-এর জন্য প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান অধিকার করেছেন যথাক্রমে মোস্তাফিজুর রহমান রবিন, প্রীতম ও সিরাজুল ইসলাম৷
পত্রিকায় লেখাটির পাতাগুলো
লেখাটি পিডিএফ ফর্মেটে ডাউনলোড করুন
২০০৮ - মে সংখ্যার হাইলাইটস
চলতি সংখ্যার হাইলাইটস